• রোববার, ০৫ ফেব্রুয়ারি ২০২৩, ২২ মাঘ ১৪২৯
  • ||

মাদারীপুরে আগুনে পুড়ে ২ শিশুর মৃত্যুর ঘটনায় মা গ্রেপ্তার

প্রকাশ:  ০৬ ডিসেম্বর ২০২২, ২২:১২
মাদারীপুর প্রতিনিধি
অভিযুক্ত মা পূর্ণিমা রানী বৈদ্য।

মাদারীপুরের সদর উপজেলায় আগুনে পুড়ে দুই শিশুর মৃত্যুর ঘটনায় অভিযুক্ত মা পূর্ণিমা রানী বৈদ্যকে (২৪) গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। মঙ্গলবার (৬ ডিসেম্বর) বিকেলে ঢাকার কাকরাইল থেকে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়।

পূর্ণিমা সদর উপজেলার শিরখাড়া ইউনিয়নের শ্রীনদী এলাকার বাসিন্দা মানিক বৈদ্যর স্ত্রী।

স্থানীয়দের বরাতে পুলিশ জানায়, সদর উপজেলার ঝিকরহাটি এলাকার সাবেক সেনাসদস্য গোলাম মাওলা মাতুব্বরের একতলা টিনশেড ঘর ভাড়া করে স্ত্রী পূর্ণিমা ও দুই সন্তানকে নিয়ে থাকতেন সদর উপজেলার শিরখাড়া ইউনিয়নের শ্রীনদী এলাকার বাসিন্দা মানিক বৈদ্য। বাড়ির মালিক গোলাম মাওলা মাতুব্বর সপরিবারে ঢাকায় থাকেন। এক মাস আগে মানিককে একটি চুরির মামলায় পুলিশ গ্রেপ্তার করে। বর্তমানে তিনি কারাগারে রয়েছেন। সোমবার (৫ ডিসেম্বর) দুপুর ১২টার দিকে মানিকের ঘরে আগুন দেখতে পান প্রতিবেশীরা। পরে তারা ঘরের দরজা ভেঙ্গে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনেন এবং দেড় বছরের শিশু মানদের মরদেহ উদ্ধার করেন। এ সময় গুরুতর আহতবস্থায় আড়াই বছর বসয়ী আরেক শিশু রুদ্রকে হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

মাদারীপুর সদর থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মনোয়ার হোসেন চৌধুরী ঢাকা পোস্টকে বলেন, শিশু দুটির বাবা মানিক বৈদ্য বেশ কয়েকটি ডাকাতি মামলার আসামি। সম্প্রতি একটি মামলায় তিনি এখন জেলে। মানিকের সঙ্গে তার স্ত্রী পূর্ণিমার দীর্ঘদিন ধরে কলহ চলছিল। সম্প্রতি মানিক আরেকটি বিয়ে করবেন জানানোর পর স্বামী-স্ত্রীর মধ্যে ঝগড়া হয়। তখন পূর্ণিমা রাগে-অভিমানে মানিকের সংসার থেকে চলে যাবেন বলে সিদ্ধান্ত নেন। এ কারণে তিনি ঘরে আগুন দিয়ে পালিয়ে যান।

ওসি আরও বলেন, ঘটনার পর থেকেই পুলিশ শিশুদের মাকে খুঁজতে থাকে। তাকে আজ ঢাকা থেকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে অভিযুক্ত ওই মা ঘরে আগুন দিয়ে তার সন্তানদের হত্যার কথা স্বীকার করেছেন। এ ঘটনায় অগ্নিদগ্ধ শিশু দুটির চাচি রত্মা রানী বাদী হয়ে থানায় মামলা করেন। নিহত দুই শিশুর মরদেহ স্বজনদের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে।

মাদারীপুর,আগুন
মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন

সারাদেশ

অনুসন্ধান করুন
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
close