• সোমবার, ০৫ ডিসেম্বর ২০২২, ২০ অগ্রহায়ণ ১৪২৯
  • ||

প্রাণ-ফ্রুটো জুস খেয়ে ৫ শিশু অসুস্থ

প্রকাশ:  ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২২, ২১:২৪
লালমনিরহাট প্রতিনিধি

লালমনিরহাটে প্রাণ-ফ্রুটো (ম্যাংগো জুস) খেয়ে ৫ শিশু অসুস্থ হয়ে পড়েছে। ওই শিশুরা সদর হাসপাতালে চিকিৎসা নিয়ে বাড়ি ফিরলেও একজনকে আবারও হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

অসুস্থ শিশুরা হল, সদর উপজেলার গুড়িয়াদাহ সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ছাত্রী ও গোকুন্ডা ইউনিয়নের গুড়িয়াদহ ডারারপার গ্রামের সৈয়দ আলীর কন্যা সুফিয়া খাতুন (১০) ও সুমাইয়া খাতুন (৭), একই এলাকার এমদাদুলের কন্যা ইনু খাতুন (৬), সাইদুল ইসলামের কন্যা সাদিয়া খাতুন (৪) ও সৈয়দ আলীর নাতনি হাবিবা খাতুন (৫)।

জানা গেছে, রোববার (২৫ সেপ্টেম্বর) সকাল ১০টায় রাজমিস্ত্রী মাইদুল ইসলাম বাড়ির পাশের আলী হোসেনের মুদির দোকান থেকে ২৫০ মি.লি. প্রাণ-ফ্রুটো (ম্যাংগো জুস) কেনেন। ওই জুস ৫ শিশুর মধ্যে ভাগ করে দেন। শিশুরা জুস খাওয়ার প্রায় ৩০ মিনিট পর মাথা ঘুরে মাটিতে পড়ে যায়। পরে প্রায় ৩ ঘণ্টা তাদের মাথায় পানি ঢেলেও সুস্থ না হওয়ায় লালমনিরহাট সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

জানা গেছে, প্রাথমিকভাবে সদর হাসপাতালের জরুরি বিভাগে চিকিৎসা নিয়ে ৫ শিশু বাড়ি ফেরে। বাড়ি ফেরার কয়েক ঘণ্টা পেরিয়ে গেলেও অবস্থার উন্নতি নেই। এদের মধ্যে সুফিয়া খাতুনের অবস্থা আংশকাজনক। ফলে সোমবার (২৬ সেপ্টেম্বর) সকাল ৮টায় আবারও তাকে লালমনিরহাট সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। ৎ

তবে প্রাণ-ফ্রুটো (জুস)-এর বোতল চেক করে দেখা যায়, গত ৮.৭.২২ তারিখে উৎপাদন করা হয়েছে। যার মেয়াদ আগামী ৭.৪.২০২৩ সাল পর্যন্ত।

পরিবার জানায়, প্রায় ১৫ ঘণ্টা পরে ৫ জন শিশুর মধ্যে ৪ জন কিছুটা সুস্থ হয়েছে। কিন্তু সুফিয়া খাতুনের অবস্থা বেগতিক দেখে সোমবার আবারও লালমনিরহাট সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। সে এখন হাসপাতালে চিকিৎসাধীন।

লালমনিরহাট সদর হাসপাতালের জরুরি বিভাগের দায়িত্বরত চিকিৎসক বলেন, যে প্রাণ-ফ্রুটো জুস খেয়ে তারা অসুস্থ হয়েছে, এতে ভেজাল ছিল। তবে তারা বড় ধরনের দুর্ঘটনা থেকে রক্ষা পেয়েছে।

ওই জুসের ক্রেতা মাইদুল ইসলাম বলেন, বাড়ির পাশে আলী হোসেনের দোকান থেকে জুস কিনে শিশুদের দিয়েছি। তারা জুস খেয়ে অসুস্থ হওয়ায় আমি অবাক হয়েছি। এমন ঘটনায় এলাকা জুড়ে আতংক ছড়িয়ে পড়ে। ঘটনা শুনে এলাকাবাসী ভিড় করছেন।

দোকানদার আলী হোসেন জানান, স্থানীয় ডিলারের কাছ থেকে ওই জুস কিনি। কোনওদিন এমন হয়নি। এবার ৫ শিশুর অসুস্থতায় দুশ্চিন্তায় পড়েছি।

এ বিষয়ে গুড়িয়াদাহ সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মোছা. জাহানারা বেগম বলেন, ৫ শিক্ষার্থী স্কুলে না আসায় শিক্ষক ও অভিভাবকদের মাধ্যমে জানতে পারলাম, তারা অসুস্থ। গতকাল তারা জুস খেয়ে অসুস্থ হয়ে পড়েছে। তবে কোন কোম্পানির জুস তা তিনি জানেন না বলে জানান।

এ ব্যাপারে লালমনিরহাট সদর অফিসার ইনচার্জ (ওসি) এরশাদুল আলম বলেন, খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠানো হয়েছে। প্রাণ-ফ্রুটো জুস খেয়ে ৫ শিশু অসুস্থ হয়ে পড়েছে বলে প্রাথমিকভাবে এলাকাবাসী ধারণা করছেন। তবে ৫ শিশুর মধ্যে ৪ জন হাসপাতালে চিকিৎসা নিয়ে বাড়ি ফিরেছে আর একজন এখনো হাসপাতালে ভর্তি রয়েছে।

প্রাণ-ফ্রুটো,জুস,শিশু,অসুস্থ,লালমনিরহাট
মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন

সারাদেশ

অনুসন্ধান করুন
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
close