• বৃহস্পতিবার, ০৮ ডিসেম্বর ২০২২, ২৩ অগ্রহায়ণ ১৪২৯
  • ||

রিকশাচালককে গাছের সঙ্গে বেঁধে নির্যাতন, গ্রেপ্তার ১

প্রকাশ:  ২৪ সেপ্টেম্বর ২০২২, ২২:৪১
জামালপুর প্রতিনিধি

পাওনা টাকা সময় মতো দিতে না পারায় দরিদ্র এক রিকশাচালককে গাছের সঙ্গে বেঁধে নির্যাতন করা হয়েছে। গতকাল শুক্রবার (২৩ সেপ্টেম্বর) বিকেলে জামালপুর সদর উপজেলার কেন্দুয়া ইউনিয়নের এ ঘটনা ঘটে।

এ ঘটনায় অভিযোগ উঠেছে ওই ইউনিয়নের পলিশা তুলসীবাড়ি গ্রামের হাফিজুর রহমানের বিরুদ্ধে।

খবর পেয়ে জামালপুর সদর থানার পুলিশ রিকশাচালক কামাল শেখকে উদ্ধার করে। ঘটনার সঙ্গে জড়িত হাফিজুরের বড় ভাই কামাল হোসেনকে গ্রেপ্তার করে।

জামালপুর সদর উপজেলার কেন্দুয়া ইউনিয়নের কাঁচাসড়া গ্রামের দরিদ্র রিকশাচালক কামাল শেখ সংসারের অভাবের কারণে ৩ মাস আগে পার্শ্ববর্তী গ্রামের হাফিজুর রহমানের কাছ থেকে ১০ হাজার টাকা ধার নেন। এক মাসের মধ্যে টাকা দিতে ফেরত দেওয়ার কথা থাকলেও পরবর্তীতে তিনি ফেরত দিতে পারেননি।

শুক্রবার বিকেলে কামাল শেখ পাশে গ্রামের জনৈক ব্যক্তির বাড়িতে খিচুড়ি রান্না করার কথা বলে বাড়ি থেকে বের হয়। সেখানে যাওয়ার পথে রাস্তায় ওৎ পেতে থাকা হাফিজুর রহমান এবং তার বড় ভাই কামাল হোসেন রিকশাচালককে রাস্তা থেকে তুলে নিয়ে বাড়ির উঠানে মেহগনি গাছের সঙ্গে বেঁধে বাঁশ দিয়ে পেটাতে থাকেন। খবর পেয়ে কামাল শেখের স্ত্রী মনোয়ারা এবং তাঁর দুই শিশু সন্তান তাঁকে উদ্ধার করতে এলে তাদেরকেও মারধর করে বাড়ি থেকে তাড়িয়ে দেন। পরে এলাকাবাসী জামালপুর সদর থানায় খবর দিলে পুলিশ হাফিজুর রহমানের বাড়িতে গিয়ে গাছের সঙ্গে বাঁধা অবস্থায় কামালকে উদ্ধার করে। এ সময় ঘটনার সঙ্গে জড়িত হাফিজুর রহমানের বড় ভাই কামাল হোসেনকে গ্রেপ্তার করে।

এ বিষয়ে জামালপুর সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) কাজী শাহনেওয়াজ বলেন, ঘটনার খবর পেয়ে হাফিজুরের বাড়ি থেকে গাছে সঙ্গে বাঁধা অবস্থায় কামাল শেখকে উদ্ধার করা হয়। ঘটনার সঙ্গে জড়িত একজনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। অভিযুক্ত হাফিজুরকে গ্রেপ্তারের চেষ্টা চলছে।

এই ঘটনায় রিকশাচালক কামাল শেখ বাদী হয়ে চারজনকে আসামি করে জামালপুর সদর থানায় মামলা দায়ের করেছেন।

রিকশাচালক,নির্যাতন,গ্রেপ্তার,জামালপুর
মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন

সারাদেশ

অনুসন্ধান করুন
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
close