• বৃহস্পতিবার, ০৮ ডিসেম্বর ২০২২, ২৩ অগ্রহায়ণ ১৪২৯
  • ||

মধ্যরাতে বাল্যবিয়ে বন্ধ করলেন ইউএনও

প্রকাশ:  ২৩ সেপ্টেম্বর ২০২২, ১৬:১২
দিনাজপুর প্রতিনিধি

দিনাজপুর পৌর শহরে মধ্যরাতে অভিযান চালিয়ে এক স্কুল পড়ুয়া মেয়ের বাল্যবিয়ে বন্ধ করেছেন সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) মর্তুজা আল মুঈদ।

দিনাজপুর পৌর শহরের দক্ষিণ লালবাগ এলাকায় বৃহস্পতিবার (২২ সেপ্টেম্বর) রাত ১১টায় ইউএনও অভিযান চালান।

জানা গেছে, ওই এলাকার চা দোকানদার বাদশা মিয়ার ১৬ বছর বয়সী মেয়ে আনজুমানের সঙ্গে শহরের চাউলিয়াপট্টি এলাকার সালাম হোসেনের ছেলে ২২ বছর বয়সী আহাদ হাসান রুবেলের বিয়ে ঠিক হয়। আনজুমান দিনাজপুর উচ্চ বিদ্যালয়ের ৯ম শ্রেণির ছাত্রী এবং রুবেল ইলেকট্রিক মিস্ত্রির কাজ করে।

বৃহস্পতিবার রাতে আনুজামানের বিয়ের জন্য হলুদ অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। খবর পেয়ে তাৎক্ষণিক আনজুমানের বাসায় উপস্থিত হন ইউএনও মর্তুজা আল মুঈদ। এসময় বাল্যবিয়ে আয়োজনের ব্যাপারে বাবা বাদশা মিয়া ও মা লিজা বেগমকে জিজ্ঞাসাবাদ করেন। পরে বিয়ের উপর্যুক্ত না হওয়া পর্যন্ত মেয়ের বিয়ের আয়োজন করবে না মর্মে মুচলেকা দিয়ে ছাড়া পান মেয়ের মা ও বাবা।

পরে বিষয়টি ছেলে ও তার বাবাকে মোবাইলে জানানো হয়। একই সঙ্গে রোববার সদর উপজেলা পরিষদে এনে মুচলেকা দেওয়ার জন্য বলা হয়। যদি তারা মুচলেকা না দেয় তাহলে পরবর্তীতে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে বলে ইউএনও জানান।

এব্যাপারে ইউএনও মর্তুজা আল মুঈদ বলেন, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে সেখানে আমি উপস্থিত হই। তারা ১৬ বছর বয়সী মেয়েকে বিয়ে দেয়ার জন্য হলুদের আয়োজন করে। আমি বাল্যবিয়ে দিতে নিষেধ করি। এছাড়াও বাল্যবিয়ের কুফল সম্পর্কে তাদেরকে অবহিত করি। পরে তারা বিয়ের আয়োজন করবে না মর্মে মুচলেকা প্রদান করে। একই সঙ্গে ছেলে ও তার বাবাকে মুচলেকা দিতে বলা হয়েছে।

মধ্যরাত,বাল্যবিয়ে,ইউএনও,দিনাজপুর
মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন

সারাদেশ

অনুসন্ধান করুন
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
close