• রোববার, ২৭ নভেম্বর ২০২২, ১২ অগ্রহায়ণ ১৪২৯
  • ||

যৌতুকের দাবিতে অন্ত:সত্তা স্ত্রীকে নির্যাতন, ৯৯৯ ফোনে উদ্ধার

প্রকাশ:  ২৪ আগস্ট ২০২২, ২২:১৯
সুনামগঞ্জ প্রতিনিধি

সুনামগঞ্জ জেলার ছাতক পৌরসভার মন্ডলীভোগ এলাকার ৭নং ওয়ার্ডের জংলীবাড়ীর মোঃ রিপন মিয়ার ০৩ মাসের অন্তঃসত্তা স্ত্রী সূচনা বেগমকে যৌতুকের দাবিতে অমানবিক নির্যাতন ও গর্ভ নষ্ট করার চেষ্টার খবর পাওয়া গেছে।

বুধবার (২৪ আগস্ট) দুপুরে স্বামী মোঃ রিপন মিয়ার ভাই বাদশা মিয়া (৩০), বোন আনোয়ারা বেগম (৩৫) ও শৈলি বেগম (২৮) এর অমানবিক নির্যাতন ও ৩ মাসের গর্ভপাত নষ্ট করার চেষ্টা সহ্য করতে না পেরে ৯৯৯ নম্বরে অভিযোগ করেন। অভিযোগের ভিত্তিতে ছাতক থানা পুলিশ থালা বদ্ধ ঘর থেকে তাকে উদ্ধার করে।

জানা যায়,নির্যাতনের সাথে জড়িত স্বামী মোঃ রিপন মিয়ার ভাই বাদশা মিয়া, বোন আনোয়ারা বেগম ও শৈলি বেগম গত ০২ বছর আগে কালারুকা ইউনিয়নের সূচনা বেগমের সাথে রিপন মিয়ার বিয়ে হয়। বিয়ের পর থেকেই তাকে যৌতুকের দাবিতে স্বামীর পরিবারের সদস্যরা তাকে শারীরিক ভাবে নির্যাতন করে আসছে। অমানবিক নির্যাতনের কারণে গত দেড় বছর তিনি বাবার বাড়ি কালারুকায় অবস্থান করছিলেন। গত কিছুদিন আগে তিনি পরিবারিক শালিসের মাধ্যমে স্বামীর বাড়ি আসছিলেন।

এদিকে নির্যাতনের শিকার হওয়া সূচনা বেগমের গার্জিয়ানেরা জানিয়েছেন, সূচনার শরীরের বিভিন্ন স্থানে আঘাতের চিহৃ রয়েছে। ব্রেইটের দাগ রয়েছে। আহত অবস্থায় উদ্ধার করে ছাতক সরকারি হাসপাতাল ভর্তি করলে তার অবস্থার অবনতি হওয়ায় ছাতক থেকে সিলেট ওসমানী মেডিকেল হসপিটালে পাঠানো হয় বলে জানা গেছে।

এ ব্যাপারে ছাতক থানার অফিসার ইনচার্জ মাহবুবুর রহমান এ ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, ৯৯৯ ফোন পেয়ে তাৎক্ষণিক ঘটনাস্থলে উদ্ধার করে। এখনো মামলা হয়নি।

পূর্বপশ্চিম- শংকর/ এনই

সুনামগঞ্জ
মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন

সারাদেশ

অনুসন্ধান করুন
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
close