• শনিবার, ২০ আগস্ট ২০২২, ৫ ভাদ্র ১৪২৯
  • ||

যেভাবে পাওয়া যাবে মোটরসাইকেলের মুভমেন্ট পাস

প্রকাশ:  ০৭ জুলাই ২০২২, ১৬:৪৮
নিজস্ব প্রতিনিধি

দেশের এক জেলা থেকে অন্য জেলায় মোটরসাইকেল চলাচলে নিষেধাজ্ঞা দিয়েছে বাংলাদেশ রোড ট্রান্সপোর্ট অথরিটি (বিআরটিএ)। তবে ‘অতি জরুরি’ ক্ষেত্রে ঢাকাসহ দেশের এক জেলা থেকে অন্য জেলায় যেতে মুভমেন্ট পাসের ব্যবস্থা করেছে বাংলাদেশ পুলিশ। ডিএমপির মিডিয়া অ্যান্ড পাবলিক রিলেশনস বিভাগের উপ-পুলিশ কমিশনার (ডিসি) মো. ফারুক হোসেন বলেন, আগেরবারের মতো এবারো অনলাইনে পাশ দেওয়া হচ্ছে না। এবার মুভমেন্ট পাসের জন্য ডিএমপির ট্রাফিক বিভাগের উপ-কমিশনারের (ডিসি) কার্যালয়ে গিয়ে ফরম সংগ্রহ করতে হবে। ফরম পূরণ করে জমা দিতে হবে। পুলিশের যদি মনে হয় আবেদনকারীর অন্য জেলায় মোটরসাইকেলে গমন করা প্রয়োজন, সেক্ষেত্রে তিনি অনুমতি পাবেন।

পুলিশ সদর দপ্তর জানায়, ঢাকার বাইরের জেলাগুলোতে মুভমেন্ট পাসের ফরম পাওয়া যাবে পুলিশ সুপারের (এসপি) কার্যালয়, প্রতিটি জেলার থানা ও তথ্য কেন্দ্রে। মুভমেন্ট পাসের জন্য রাইডারকে যে ফরম দেওয়া হবে সেটির দুটি অংশ থাকবে। অফিস কপি এবং রাইডার কপি। উভয় ফরমে যাত্রার স্থান (জেলা), গন্তব্যের স্থান (জেলা), ভ্রমণের রুট, ভ্রমণের কারণ, ভ্রমণের তারিখ, ভ্রমণের সময়, মোটরসাইকেলের রেজিস্ট্রেশন নম্বর, যাত্রী সংখ্যা এবং রাইডারের মোবাইল নম্বর দিতে হবে। ফরমে পুলিশ কর্মকর্তা অনুমোদন দিলে রাইডারের কপিতে সিল দিয়ে দেওয়া হবে। সেই সিল নিয়ে নির্দিষ্ট গন্তব্যে যেতে পারবেন ওই রাইডার।

সদর দপ্তর আরো জানায়, মুভমেন্ট পাস কেবল জরুরি প্রয়োজনের জন্য, এটি দিয়ে কেউ রাইড শেয়ার করতে পারবেন না। পুলিশের কাছে কাউকে এমন সন্দেহ হলে তার যাত্রা বাতিল করা হতে পারে।

এর আগে বুধবার (৬ জুলাই) রাজারবাগ পুলিশ লাইনসে ত্রৈমাসিক অপরাধ পর্যালোচনা সভায় পুলিশের মহাপরিদর্শক (আইজিপি) বেনজীর আহমেদ এবিষয়ে মুভমেন্ট পাসের বিষয়ে অনুমতি দেন।

এর আগে ঈদুল আযহায় সাত দিন সারা দেশের মহাসড়কে যৌক্তিক কারণ ছাড়া মোটরসাইকেল না চালানোর পাশাপাশি এক জেলায় রেজিস্ট্রেশন করা মোটরসাইকেল অন্য জেলায় না চালানোর নির্দেশ দেয় সড়ক পরিবহন ও সেতু মন্ত্রণালয়।

রবিবার (৩ জুলাই) সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদেরের সভাপতিত্বে (ভার্চুয়ালি) মন্ত্রণালয়ের সভাকক্ষে ঈদযাত্রা নিরাপদ ও নির্বিঘ্ন করার লক্ষ্যে অনুষ্ঠিত সভায় এ নির্দেশ দেওয়ার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়।

সভায় জানানো হয়, ঈদুল আযহার আগের তিন দিন, ঈদের দিন ও ঈদের পরের তিন দিন সারা দেশের মহাসড়কে যৌক্তিক কারণ ছাড়া মোটরসাইকেল চালানো যাবে না। অনুমোদিত এলাকার বাইরে মোটরসাইকেল রাইড-শেয়ারিং করা যাবে না।

পাশাপাশি এক জেলায় রেজিস্ট্রেশন করা মোটরসাইকেল অন্য জেলায় চালানো যাবে না। তবে যৌক্তিক ও অনিবার্য প্রয়োজনে পুলিশের অনুমতি নিয়ে মোটরসাইকেল চালানো যাবে।

মোটরসাইকেল
মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন

সারাদেশ

অনুসন্ধান করুন
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
close