• মঙ্গলবার, ২৪ মে ২০২২, ১০ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯
  • ||

দুর্বৃত্তের ওঠানো লোনা পানিতে ডুবছে স্বপ্নের সোনালী ধান

প্রকাশ:  ১৪ মে ২০২২, ২২:১৮
শেখ নাদীর শাহ্: খুলনা প্রতিনিধি

খুলনার কয়রা উপজেলার দক্ষিণ বেদকাশি ইউনিয়নের ৯ নং ওয়ার্ডস্থ বীণাপানি এলাকায় ইজারাকৃত মিঠাপানির খালে লবণ পানি উত্তোলনের ফলে নোনা পানিতে ডুবছে কৃষকের বোরো ধান। এছাড়াও স্থানীয় কৃষকদের প্রায় ১০০ বিঘা জমিতে আমন চাষ অনিশ্চিত হয়ে পড়েছে। এতে অসহায় হয়ে পড়েছেন স্থানীয় কৃষকরা। সর্বশেষ ভুক্তভোগী কৃষকেরা প্রতিকার চেয়ে স্থানীয় সংসদ সদস্য, জেলা প্রশাসক, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তাসহ সংশ্লিষ্ট দপ্তরে লিখিত অভিযোগ করেছেন।

অভিযোগ সূত্রে জানা যায়, কয়রা উপজেলার দক্ষিণ বেদকাশী ইউনিয়নের বীণাপানি এলাকায় প্রান্তিক কৃষক করোনাকালীন দৈন্যদশা কাটিয়ে কষ্টে দিনযাপন করছে। প্রাকৃতিক দুর্যোগ কবলিত ইউনিয়নের পূর্ব ও পশ্চিম পাশে দু’টি নদী। ইউনিয়নটির চারপাশে দুর্বল বেড়িবাঁধ থাকায় বসতবাড়ী ও জমি প্লাবিত হয়। ফলে এ এলাকার বেশিরভাগ মানুষ হতদরিদ্র ও অসহায়। তারপরেও তারা বেঁচে থাকার তাগিদে প্রতিকূল পরিবেশে বোরো ধানের আবাদ করে সফল হয়ে ফসল ঘরে তুলছেন।

সম্পর্কিত খবর

    আইলার পরে কৃষকের কৃষি জমি ধান চাষের উপযোগী করতে প্রায় ৭-৮ বছরের বেশি সময় লেগেছে। তাদের জমির মাঝ বরাবর একটা মিঠা পানির খাল আছে। আমন ধান ওঠানো ও পরবর্তীতে রোপনের প্রস্তুতিকালে দুর্বত্তরা খাল ক্রয়ের নামে দখলে নিয়ে খালে নোনা পানি ঢুকিয়েছে। এতে কৃষকের আবাদের সব জমি লোনা পানিতে প্লাবিত হয়েছে। চাষাবাদের অনুপযোগী হয়ে গেছে কৃষকের কয়েক হেক্টর কৃষি জমি। এ অবস্থায় চরম হতাশা ও আতঙ্কে দিনযাপন করছে বিস্তীর্ণ অঞ্চলের অসংখ্য কৃষক।

    কৃষকদের অভিযোগ, সম্প্রতি সময়ে লোনা পানি ঢুকাতে বাধা দেওয়ায় মোঃ আব্দুল মান্নান কারিকর, রাজ্জাক কারিকর ও তাদের পোষ্য সন্ত্রাসীরা স্থানীয় কৃষক মৃণাল কান্তি বিশ্বাসসহ আরও কয়েকজন প্রান্তিক চাষীদের মারতে উদ্যত হয়। বেশি বাড়াবাড়ি করলে জীবনের তরে শেষ করে দেবার হুমকি দিয়েছেন বলেও অভিযোগ করেন তারা। সর্বশেষ স্বপ্নের সোনালী ধান হারিয়ে জীবননাশের শঙ্কায় চরম নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছেন স্থানীয় কৃষকরা।

    এ বিষয়ে জানতে চাইলে আব্দুল মান্নান কারিগর বলেন, আমার বদ্ধ জলমহাল, এই খালে পানি ঢোকার কোনো পথ নেই, বের হওয়ারও কোনো পথ নেই। পাশের ঘের থেকে পানি চুইয়ে (ওভার ফ্লো) হয়ে আসছে। আমি ইচ্ছাকৃতভাবে পানি ওঠাইনি। কারো জমিতে গেলে আমার কি করার আছে? কয়রা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা অনিমেষ বিশ্বাস জানান, বিষয়টি তিনি শুনেছেন। খোঁজ খবর নিয়ে যদি এমন কিছু হয়ে থাকে তাহলে প্রকৃত দোষীদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

    পূর্বপশ্চিমবিডি/এসএনএস/এনজে

    লোনা পানিতে,সোনালী ধান,দুর্বৃত্তের ওঠানো
    মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন

    সারাদেশ

    অনুসন্ধান করুন
    • সর্বশেষ
    • সর্বাধিক পঠিত
    close