• মঙ্গলবার, ১৯ অক্টোবর ২০২১, ৪ কার্তিক ১৪২৮
  • ||

ব্যক্তির গড়ে তোলা বিলজুড়ে শাপলা ফুলের বাহার

প্রকাশ:  ১১ অক্টোবর ২০২১, ১০:১৮ | আপডেট : ১১ অক্টোবর ২০২১, ১০:২৪
লক্ষ্মীপুর প্রতিনিধি:

প্রাকৃতিকভাবে গড়ে তোলা বিলে ফুটেছে শাপলা ফুল। বর্ষার শেষ থেকেই এই শাপলা ফুল, থাকে হেমন্তকাল পর্যন্ত। এ শাপলা বিল মন কাড়ছে লক্ষ্মীপুরের পর্যটকদের। দিগন্ত জুড়ে ফুটে থাকা শাপলা ফুলের সৌন্দর্য্য উপভোগ করতে আসছেন প্রকৃতি প্রেমীরা। প্রত্যন্ত অঞ্চলের সবুজ-শ্যামল প্রকৃতির সৌন্দর্য্যকে আরো সমৃদ্ধ করে তুলেতে পরিকল্পিতভাবে তৈরি এ শাপলা বাগান। রক্তলাল বর্ণের ফুটে থাকা হাজার হাজার শাপলা ফুলে ভরা এ বাগানটি দেখতে প্রতিদিনই আশপাশের এলাকাসহ দূর-দূরান্ত থেকে ছুটে আসে দর্শনার্থীরা। শাপলা বিলকে পর্যটন কেন্দ্রে রূপান্তরিত করা গেলে দার্শনার্থীদের সংখ্যা আরো বাড়বে বলে মনে করছেন স্থানীয়রা।

সবুজ প্রকৃতি লালন ও এর সমৃদ্ধির চিন্তা থেকেই এমন পরিকল্পনা সাহেব বাড়ি শাপলা বাগানের উদ্যেক্তা জাহাঙ্গীর আলমের। এজন্য দিনাজপুর থেকে রক্ত বর্ণের শাপলা বীজ সংগ্রহ করে চাষাবাদ করেন। এ বাগানের জমে থাকা শ্যাওলা ও আগাছা উৎপাদনে বাগান পরিচর্যার তিনি নিজেও সশরীরে কাজে নেমে পড়েন। এছাড়া রয়েছে কয়েকজন শ্রমিক। তিনি কুমিল্লা ভিক্টোরিয়া কলেজের অধ্যাপক।

সম্পর্কিত খবর

    লক্ষ্মীপুর সদর উপজেলার পূর্ব চর মনসা গ্রামে রাস্তার পাশেই বাগানটি। তিন বছর আগে প্রায় ২ একর জমিতে জলা কেটে পরিকল্পিতভাবে এ বাগানটি গড়ে তোলেন স্থানীয় প্রকৃতিপ্রেমী জাহাঙ্গীর হোসেন। তিনি নাম দিয়েছেন ‘সাহেব বাড়ি শাপলা বাগান’। বাগানটি আপন সৌন্দর্য্যে নয়নাভিরাম মুগ্ধতা বিলিয়ে যাচ্ছে। কোনো প্রকার বাণিজ্যিক চিন্তা ছাড়াই শুধুমাত্র সবুজ প্রকৃতি ও সৌন্দর্য্য বর্ধনের উদ্দেশ্যে জাহাঙ্গীর হোসেন নিজ জমিতে বাগানটি গড়ে তোলেন।

    জানা গেছে, প্রতিদিন সকাল সৌন্দর্য্য পিয়াসী মানুষ বাগানটি দেখতে আসেন। ভোরবেলায় দর্শনার্থী বেশি আসেন। ‘সাহেব বাড়ি শাপলা বাগান’ নামের এ শাপলা বিল দেখতে অনেকে পরিবার-পরিজন নিয়েও আসেন বলে জানায় স্থানীয়রা।

    স্থানীয় আবু তাহেরসহ দর্শনার্থীরা এমন উদ্যেগের প্রশংসা করে জানান, প্রত্যন্ত গ্রামে সবুজ গাছগাছালী সমৃদ্ধ প্রকৃতি ছাড়া দর্শন মুগ্ধতায় ভাললাগার আস্বাদন গ্রহণে তেমন কোনো কিছুই নেই। যুগ যুগ ধরে একই প্রকৃতি দেখে ঘোর লেগে গেছে স্থানীয়দের। এর মাঝে এই শাপলা বাগানটি অন্যরকম এক ভাললাগার সৃষ্টি করেছে।

    সাহেব বাড়ি শাপলা বাগানের উদ্যেক্তা জাহাঙ্গীর আলম জানান, এখনকার সময়ে নানান ছুতোয় গ্রামাঞ্চলেও প্রকৃতি উজাড় হচ্ছে। অথচ প্রকৃতি অক্সিজেন ও সৌন্দর্যের ভাণ্ডার। সবুজ প্রকৃতি লালন ও এর সমৃদ্ধির চিন্তা থেকেই এমন পরিকল্পনা তার। পরিকল্পনা অনুযায়ী নিজের প্রায় ২ একর জমিতে শাপলা চাষের উপযোগী খনন ও সেচ কাজ সম্পন্ন করেন। শেষে দিনাজপুর থেকে রক্ত বর্ণের শাপলা বীজ সংগ্রহ করে চাষাবাদ করেন।

    পূর্বপশ্চিমবিডি/আর

    বিলজুড়ে শাপলা ফুলের বাহার,বিলজুড়ে,শাপলা ফুল
    মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন

    সারাদেশ

    অনুসন্ধান করুন
    • সর্বশেষ
    • সর্বাধিক পঠিত
    close