• রোববার, ১৭ অক্টোবর ২০২১, ২ কার্তিক ১৪২৮
  • ||

কাদের মির্জার নির্যাতন: জাপা নেতার কান্না, ভিডিও ফেসবুকে

প্রকাশ:  ১১ সেপ্টেম্বর ২০২১, ২১:৪৬ | আপডেট : ১১ সেপ্টেম্বর ২০২১, ২১:৫১
নোয়াখালী প্রতিনিধি

নোয়াখালীর কোম্পানীগঞ্জের বসুরহাট পৌরসভার মেয়র আবদুল কাদের মির্জার নির্মম নির্যাতনের শিকার উপজেলা জাতীয় পার্টির সাধারণ সম্পাদক সাইফুল ইসলাম স্বপন ঘটনা তুলে ধরে কান্নায় ভেঙে পড়েছেন। শুক্রবার (১০ সেপ্টেম্বর) রাত থেকে এমন একটি ভিডিও ফেসবুকে ভাইরাল হয়েছে।

২ মিনিট ১২ সেকেন্ডের ভিডিওতে স্বপন বলেন, বুধবার বিকেল ৫টার দিকে বসুরহাট বাজারের কালামিয়া ম্যানশনের সামনে কাদের মির্জা ও তার অনুসারী ৩০-৪০ জন যুবকের সঙ্গে দেখা হয়। এ সময় কাদের মির্জা আমাকে ধরতে বলেন। তাদের সঙ্গে পুলিশও ছিল। তারা সেখান থেকে আমাকে মোটরসাইকেলে উঠিয়ে নিয়ে যায় পৌরসভা কার্যালয়ের তৃতীয় তলায়। সেখানে একটি ব্যানারে লেখা ছিল বঙ্গবন্ধু শিক্ষা ও গবেষণা পরিষদ। এ সময় মুখ ও পা দেখিয়ে নির্যাতনের বর্ণনা দিয়ে কান্নায় ভেঙে পড়েন স্বপন।

জাপা নেতা আরো বলেন, কী জন্য আমাকে নিয়ে গেছে জানি না। ওইখানে নিয়ে বিভিন্ন ভিডিও করা হয়েছে। কোনোদিন কারও সঙ্গে ভেজাল করিনি। আমার কাছ থেকে জোর করে কীসে কীসে লেখা নেওয়া হয়েছে!

একাধিক সূত্রে জানা যায়, শনিবার সন্ধ্যায় কাদের মির্জা ও তার অনুসারীরা উপজেলা জাতীয় পার্টির সভাপতি আবদুল লতিফ মুন্সীসহ তিন নেতাকে ডেকে নিয়ে বসুরহাটের একটি রেস্তোরাঁয় সংবাদ সম্মেলন করতে বাধ্য করেন। সেখানে একটি লিখিত বক্তব্য পড়ে শোনান লতিফ মুন্সী।

তিনি বলেন, গত বুধবার রাতে নিজ ইচ্ছায় কাদের মির্জার সঙ্গে সাক্ষাৎ করতে যান উপজেলা জাতীয় পার্টির সাধারণ সম্পাদক। পরে কোনো অনাকাঙ্ক্ষিত ঘটনা ছাড়া তিনি সুস্থ শরীরে পৌরসভা থেকে চলে যান।

তবে তাদের এ ধরনের বক্তব্য নাকচ করে দিয়েছেন ভুক্তভোগী জাপা নেতা। তিনি বলেন, তারা চাপে পড়ে ভয়ে এমন বক্তব্য দিয়েছেন, যা পুরোপুরি মিথ্যা এবং কাদের মির্জার সাজানো নাটক। সুস্থ হলে এ ঘটনায় আইনের আশ্রয় নেব।

এ বিষয়ে শনিবার বসুরহাটের মেয়র আবদুল কাদের মির্জার ফোনে কল দিলেও তিনি কেটে দেন।

কোম্পানীগঞ্জ থানার ওসি সাইফুদ্দিন আনোয়ার জানান, তিনি বিষয়টি শুনেছেন। তবে এখন পর্যন্ত কেউ লিখিত অভিযোগ দেয়নি।

পূর্বপশ্চিমবিডি/এসএস

নোয়াখালী,কাদের মির্জা,জাতীয় পার্টি
মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন

সারাদেশ

অনুসন্ধান করুন
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
close