• মঙ্গলবার, ০৩ আগস্ট ২০২১, ১৯ শ্রাবণ ১৪২৮
  • ||

ইউপি সদস্যের কিল ঘুষি লাথিতে বৃদ্ধ নিহত

প্রকাশ:  ২২ জুলাই ২০২১, ১৯:৩১ | আপডেট : ২২ জুলাই ২০২১, ২০:০৬
মুন্সিগঞ্জ প্রতিনিধি

মুন্সিগঞ্জ সদর উপজেলায় ট্রলার ভাড়া নিয়ে কথা-কাটাকাটির জেরে স্থানীয় ইউপি সদস্যের হামলায় এক বৃদ্ধের মৃত্যুর অভিযোগ উঠেছে। বৃহস্পতিবার (২২ জুলাই) দুপুরে সদর উপজেলার শিলই ইউনিয়নের চরপাড়া গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

বিষয়টি নিশ্চিত করেন মুন্সিগঞ্জ সদর থানার পরিদর্শক (তদন্ত) মো. রাজিব খান। নিহত ব্যক্তির নাম মো. আলীম সরকার (৬৫)। তিনি ওই এলাকার বাসিন্দা। অভিযুক্ত ইউপি সদস্যের নাম রিয়াদুল হাকিম। তিনি শিলই ইউনিয়ন ৯ নম্বর ওয়ার্ড সদস্য।

এ বিষয়ে নিহতের ভাগিনা নিজাম বেপারী বলেন, আমার ছোট ভাই মহিউদ্দিন বেপারী দিঘিরপার বাজার থেকে চরপাড়া এলাকা পর্যন্ত ভাড়ায় ট্রলার চালায়। দিঘিরপার বাজার থেকে চর বেহেরপাড়া এলাকায় আসতে ৩০ থেকে ৪০ মিনিট সময় লাগে। জনপ্রতি ভাড়া ৩০ থেকে ৪০ টাকা। রিজার্ভ নিলে কমপক্ষে ৫০০ টাকা দেওয়ার কথা।

ঘটনাটি শুনেছি। একজন জনপ্রতিনিধি হয়ে সামান্য ট্রলার ভাড়ার জন্য একটি পরিবারের ওপর দুই দফা হামলা চালিয়েছেন। পরিবারের অভিভাবক আলীম সরকার পরিবারের অন্য সদস্যদের রক্ষা করতে গিয়ে প্রাণ হারালেন। এমন কাজকে ঘৃণা জানাই। আমরা এই জনপ্রতিনিধির বিচার চাই।

রুমা আফরোজ, শিলই ইউপির সংরক্ষিত নারী সদস্য

বৃহস্পতিবার বেলা সাড়ে ১১টার দিকে ইউপি সদস্য রিয়াদুল ইসলাম হাকিম মহিউদ্দিনের ট্রলারে বসেন। এ সময় তিনি মহিউদ্দিনকে যাত্রী না নিয়ে ট্রলার চালাতে বলেন। এলাকায় এসে আমার ভাইকে তিনি ১০০ টাকা ভাড়া দেন। আরও ভাড়া দাবি করলে মহিউদ্দিনকে চড়-থাপ্পড়, কিল-ঘুষি মারেন রিয়াদুল হাকিম।

তিনি আরও বলেন, বাড়িতে এসে বিষয়টি আমার মামা আলীম সরকারকে জানায় মহিউদ্দিন। আমার মামা এ ঘটনার বিচার চান। ঘটনাটি শুনে ইউপি সদস্য তার লোকজন নিয়ে দুপুর ১২টার দিকে আমাদের বাড়িতে এসে আমার ভাই, তার স্ত্রী ও আমাদের পেটানো শুরু করেন। এ সময় মামা আমাদের রক্ষা করতে গেলে তাকে কিল-ঘুষি-লাথি দিয়ে মাটিতে ফেলে পা দিয়ে মাড়াতে থাকেন। হাসপাতালে নেওয়ার আগেই বেলা ২টার দিকে মামা মারা যান।

শিলই ইউপির সংরক্ষিত নারী সদস্য ও স্থানীয় বাসিন্দা রুমা আফরোজ বলেন, ঘটনাটি শুনেছি। একজন জনপ্রতিনিধি হয়ে সামান্য ট্রলার ভাড়ার জন্য একটি পরিবারের ওপর দুই দফা হামলা চালিয়েছেন। পরিবারের অভিভাবক আলীম সরকার পরিবারের অন্য সদস্যদের রক্ষা করতে গিয়ে প্রাণ হারালেন। এমন কাজকে ঘৃণা জানাই। আমরা এই জনপ্রতিনিধির বিচার চাই।

মুন্সিগঞ্জ সদর থানার পরিদর্শক (তদন্ত) মো. রাজিব খান বলেন, ঘটনাটি জানার পর পুলিশ সেখানে যায়। এ ঘটনার পর থেকে ইউপি সদস্য পলাতক রয়েছেন। লাশ ময়নাতদন্তের জন্য মুন্সিগঞ্জ জেনারেল হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে। পরিবারের অভিযোগের ভিত্তিতে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।


পূর্বপশ্চিমবিডি/জিএস

ইউপি সদস্য,মুন্সিগঞ্জ,বৃদ্ধ নিহত
মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন

সারাদেশ

অনুসন্ধান করুন
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
close