• বুধবার, ১৪ এপ্রিল ২০২১, ১ বৈশাখ ১৪২৮
  • ||

চার লেনে সুনামগঞ্জকে যুক্ত করার জোর দাবি পীর মিসবাহর

প্রকাশ:  ০৪ মার্চ ২০২১, ০১:৩৮ | আপডেট : ০৪ মার্চ ২০২১, ০২:২২
নিজস্ব প্রতিবেক

ঢাকা-সিলেট মহাসড়ক চার লেনে উন্নীত করার সিদ্ধান্ত একনেকে অনুমোদনের পর প্রকল্পটি সুনামগঞ্জ পর্যন্ত বিস্তৃত করার জোরালো দাবি উঠেছে।

সরকারের এই মেগা প্রকল্পটি বাস্তবায়ন হলে সিলেট বিভাগের তিনটি জেলা এর আওতায় আসবে সুনামগঞ্জই কেবল বঞ্চিত থাকবে। যে কারণে সরকারের বিশাল উন্নয়ন সুবিধার আওতায় উন্নয়নের নানা সূচকে পিছিয়ে থাকা হাওর অধ্যুষিত সুনামগঞ্জ জেলাকে যুক্ত করার জোরালো দাবি উঠেছে।

নানা শ্রেণি-পেশার মানুষের পাশাপাশি দাবির সঙ্গে একাত্মতা পোষণ করে বিষয়টি প্রধানমন্ত্রী বরাবর উপস্থাপনের কথা বলছেন সরকারি ও বিরোধীদলীয় সংসদ সদস্যরা।

সম্প্রতি দক্ষিণ এশিয়া আঞ্চলিক সড়ক নেটওয়ার্কে সংযুক্তির মাধ্যমে সামগ্রিক অর্থনৈতিক উন্নয়নের লক্ষ্যে জাতীয় অর্থনৈতিক পরিষদের নির্বাহী কমিটি (একনেক) ১৬ হাজার ৯১৮ কোটি ৫৮ লাখ টাকা ব্যয়ে ‘সাসেক ঢাকা-সিলেট করিডোর সড়ক উন্নয়ন’ প্রকল্প অনুমোদন করে।

জানা যায়, ঢাকার সঙ্গে সিলেটকে যে মহাসড়ক যুক্ত করেছে সেটি সিলেট বিভাগের সিলেট, মৌলভীবাজার ও হবিগঞ্জ জেলার ওপর দিয়ে গেছে। ওই সড়কটি চার লেনে উন্নীত করা হলে ওই তিনটি জেলা এর সুবিধায় এলেও স্বাস্থ্য, শিক্ষা, যোগাযোগসহ উন্নয়নের নানা সূচকে পিছিয়ে থাকা সুনামগঞ্জ জেলার মানুষ এর সুবিধা থেকে বঞ্চিত হবে। সচেতন মহল মনে করেন, সুনামগঞ্জ জেলাকে চার লেন মহাড়কের আওতাভুক্ত করতে সিলেট থেকে সুনামগঞ্জ পর্যন্ত অতিরিক্ত ৬৭ কিলোমিটার সড়কের উন্নয়ন প্রয়োজন।

বিস্তৃত করতে অতিরিক্ত যে অর্থ প্রয়োজন সেটার ব্যয়ভার সরকারের পক্ষে মেটানো অসম্ভব নয়। যে কারণে একনেকে পাস হওয়া প্রস্তাবটি সংশোধন করে সুনামগঞ্জকে চার লেন সড়কের আওতায় নিয়ে আসার জন্য সরকারের কাছে দাবি জেলাবাসীর।

সুনামগঞ্জ-৪ আসনের সংসদ সদস্য ও বিরোধীদলীয় হুইপ অ্যাডভোকেট পীর ফজলুর রহমান মিসবাহ বলেন, ঢাকা-সিলেট মহাসড়ক চার লেনে উন্নীতকরণ নিয়ে পররাষ্ট্রমন্ত্রী সংসদ সদস্যদের নিয়ে রাষ্ট্রীয় অতিথি ভবনে মতবিনিময় করেছিলেন। সেখানে আমি সুনামগঞ্জ পর্যন্ত চার লেনে উন্নীত করার জন্য দাবি জানিয়েছি। পরবর্তীতে পরিকল্পনামন্ত্রীর কাছেও বিষয়টি উপস্থাপন করি। কিন্তু হয়নি। সুনামগঞ্জের মানুষের জন্য এটি হতাশার। এর আগে ঢাকা-সিলেট মহাসড়ক প্রশস্ত হওয়ার সময়ও সুনামগঞ্জ বঞ্চিত হয়েছে। এবার চার লেনেও সুনামগঞ্জ নেই। সিলেট থেকে সুনামগঞ্জ পর্যন্ত ৬৭ কিলোমিটারের ব্যয় কোনো সমস্যা হওয়ার কথা নয়। সমস্যা হলো প্রধানমন্ত্রীর কাছে বিষয়টি যুক্তিসঙ্গতভাবে উপস্থাপন করা। প্রধানমন্ত্রী সুনামগঞ্জের উন্নয়নে আন্তরিক। ইতিমধ্যে তিনি সুনামগঞ্জের মানুষকে অনেক বড় বড় প্রকল্প উপহার দিয়েছেন।

তিনি বলেন, এবার যদি চার লেন সড়কের সুবিধা থেকে আমরা বঞ্চিত হই তবে আর কখনো সুনাগঞ্জের মানুষের কাছে এই সুযোগ আসবে কি না জানা নেই। আসুন একাত্ম হয়ে দাবি জানাই। প্রধানমন্ত্রীর কাছে আবেদন জানাতে হবে ঢাকা থেকে সিলেট হয়ে সুনামগঞ্জ পর্যন্ত চার লেন সড়ক উপহার দেওয়ার জন্য।

এদিকে, ছাতকে এক সংবর্ধনা সভায় একই দাবি জানিয়ে সুনামগঞ্জ-৫ আসনের সংসদ সদস্য মুহিবুর রহমান মানিক বলেন, সুনামগঞ্জবাসী বড় দুর্ভাগা। প্রধানমন্ত্রী ঢাকা-সিলেট সড়কের জন্য ১৪ হাজার কোটি টাকা দিলেন। এর সুবিধা সিলেট, মোলভীবাজার, হবিগঞ্জ জেলার মানুষ কম সময়ে ঢাকায় যাবেন, আসবেন। কিন্তু আমরা সুনামগঞ্জবাসী এখনো ওয়ান লেন, টু লেনে আছি। প্রধানমন্ত্রী আমাদের সুনামগঞ্জের মানুষের প্রতি অন্তরিক। আমাদের কৃতী সন্তান এম এ মান্নান এই কথাটা যদি একনেকের সভায় তুলে ধরতেন তবে প্রধানমন্ত্রী আপত্তি করতেন না।

পিপি/জেআর

পীর মিসবাহ
মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন
cdbl

সারাদেশ

অনুসন্ধান করুন
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
close