• বুধবার, ২১ এপ্রিল ২০২১, ৮ বৈশাখ ১৪২৮
  • ||

অন্যের বিশ্বাসের প্রতি আঘাত করে লিখতেন মুশতাক: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

প্রকাশ:  ২৬ ফেব্রুয়ারি ২০২১, ১৮:৫৯
চট্টগ্রাম প্রতিনিধি

গাজীপুরের কাশিমপুর হাই-সিকিউরিটি কেন্দ্রীয় কারাগারে মৃত্যুবরণকারী লেখক মুশতাক আহমেদ অন্যের বিশ্বাসের প্রতি আঘাত করে লিখতেন। এজন্য তার বিরুদ্ধে বেশ কয়েকটা মামলা ছিল। কারাগারের ভেতর হঠাৎ অসুস্থ হয়ে তিনি মারা যান বলে জেনেছি। তার মৃত্যুতে কারা কর্তৃপক্ষের কোনও গাফিলতি আছে কি-না তদন্ত করা হবে।

শুক্রবার (২৬ ফেব্রুয়ারি) সকালে নগরের ষোলশহর ২ নম্বর গেট মোড়ে চট্টগ্রাম জেলা পুলিশ সুপারের কার্যালয় উদ্বোধন শেষে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খাঁন কামাল এসব কথা বলেন।

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, ‘ময়নাতদন্তের পরই মুশতাক আহমেদের মৃত্যুর সঠিক কারণ জানা যাবে। যেকোনো মৃত্যুর ঘটনা তদন্ত করা হয়। তদন্ত করে বলতে পারবো কী হয়েছে।’

তিনি বলেন, দেশে ষড়যন্ত্র হচ্ছে। অস্থিতিশীল পরিবেশ তৈরির পাঁয়তারা চলছে। আল জাজিরার প্রতিবেদন বাংলাদেশের মানুষ প্রত্যাখ্যান করেছে। যারা এই প্রতিবেদন তৈরিতে জড়িত সেসব বাংলাদেশির বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়া হবে। বাংলাদেশে থেকে কারা এই মিথ্যা প্রতিবেদন তৈরিতে সহযোগিতা করেছে সেটা নিয়ে তদন্ত করছে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী।

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, বাংলাদেশের পুলিশ আজ অনেক সক্ষম। তাদের দক্ষতা ও অভিজ্ঞতা কাজে লাগিয়ে যে কোনও চ্যালেঞ্জ মোকাবেলা করে বাংলাদেশে একটা শান্তির ফয়সালা করে যাচ্ছে। চট্টগ্রাম জেলার আইনশৃঙ্খলা নিয়ন্ত্রণ করার জন্য একটা উপযুক্ত কার্যালয় স্থাপন করা হলো।

মন্ত্রী আরো বলেন, মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে দেশ দুর্বার গতিতে এগিয়ে চলছে। তার সঙ্গে সমান্তরালভাবে আইনশৃঙ্খলা যদি আমরা নিয়ন্ত্রণে রাখতে পারি তাহলে উন্নতিটাও থমকে যাবে না। মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশনায় আজ পুলিশ যে কোনও চ্যালেঞ্জ মোকাবেলা করতে প্রস্তুত রয়েছে। জঙ্গি দমন, সন্ত্রাস দমন, বনদস্যু-চরমপন্থীর আত্মসমর্পণ, সব স্তরেই পুলিশের উজ্জ্বল ভূমিকা রয়েছে বলেই আমরা এ জায়গাটিতে আসতে পেরেছি।

এর আগে শুক্রবার বেলা সাড়ে ১১টার দিকে চট্টগ্রাম জেলা পুলিশ সুপারের কার্যালয় উদ্বোধন করেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী।

এ সময় অন্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন সাবেক মন্ত্রী আওয়ামী লীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য ইঞ্জিনিয়ার মোশাররফ হোসেন এমপি, শিক্ষা উপমন্ত্রী মহিবুল হাসান চৌধুরী নওফেল এমপি, সিটি মেয়র রেজাউল করিম চৌধুরী, সংসদ সদস্য এবিএম ফজলে করিম চৌধুরী, মোছলেম উদ্দিন আহমদ, মোস্তাফিজুর রহমান চৌধুরী, ড. আবু রেজা নদভী, চট্টগ্রাম রেঞ্জের ডিআইজি আনোয়ার হোসেন, সিএমপি কমিশনার সালেহ মোহাম্মদ তানভীর, পুলিশ সুপার এসএম রশিদুল হক।

প্রসঙ্গত, চট্টগ্রাম জেলা পুলিশ সুপারের কার্যালয়টি জনাজীর্ণ ও পুরাতন হওয়ায় ২০১৭ সালে গণপূর্ত বিভাগ-২ এর অধীনে নতুন ভবন নির্মাণকাজ শুরু হয়। সাময়িক সময়ের জন্য পুলিশি কার্যক্রম চলে হালিশহর ছোটপুলের জেলা পুলিশ লাইন্সে। এখন থেকে নগরের ২ নম্বর গেটে নতুন এ ভবন উদ্বোধনের মধ্য দিয়ে আবারও জেলা পুলিশের কার্যক্রম শুরু হচ্ছে।

পূর্বপশ্চিমবিডি/এসএস

চট্টগ্রাম,স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী
মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন
cdbl

সারাদেশ

অনুসন্ধান করুন
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
close