• শুক্রবার, ০৫ মার্চ ২০২১, ২০ ফাল্গুন ১৪২৭
  • ||

রোহিঙ্গাদের জন্মসনদ দিয়ে কারাগারে সাবেক প্যানেল মেয়র

প্রকাশ:  ২৫ জানুয়ারি ২০২১, ২২:৩৬
নিজস্ব প্রতিবেদক

প্রতারণার মাধ্যমে দুই রোহিঙ্গা নাগরিককে সুনামগঞ্জ পৌরসভা থেকে জন্মসনদ দেয়ার মামলায় সুনামগঞ্জ পৌরসভার ১ নম্বর ওয়ার্ডের সাবেক কাউন্সিলর (প্যানেল মেয়র-১) হোসেন আহমদ রাসেলকে কারাগারে পাঠানোর আদেশ দিয়েছেন আদালত। গত ১৬ জানুয়ারি পৌরসভার নির্বাচনে পরাজিত হয়েছেন তিনি।

আজ সোমবার (২৫ জানুয়ারি) পলাতক থাকা পৌরসভার ১ নম্বর ওয়ার্ডের কাউন্সিলর (প্যানেল মেয়র-১) হোসেন আহমদ রাসেল সুনামগঞ্জ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট সদর জোনের বিচারক কুদরত-এ-ইলাহী এর আদালতে হাজির হয়ে জামিন প্রার্থনা করলে আদালত তার জামিন নামঞ্জুর করে কারাগারে পাঠানোর আদেশ দেন।

বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন সুনামগঞ্জ পুলিশের কোর্ট পরিদর্শক মো. সেলিম নেওয়াজ।

প্রসঙ্গত, প্রতারণার মাধ্যমে দুই রোহিঙ্গা নাগরিককে সুনামগঞ্জ পৌরসভা থেকে জন্মসনদ দেওয়ার মামলায় গত ২০ জানুয়ারি বুধবার সুনামগঞ্জ পৌরসভার ১ নম্বর ওয়ার্ডের কাউন্সিলর (প্যানেল মেয়র-১) হোসেন আহমদ রাসেল, পৌরসভার সহকারী কর আদায়কারী পীযুষ কান্তি তালুকদার, পৌরসভার জন্ম-মৃত্যু নিবন্ধক ও স্যানিটারি পরিদর্শক মো. সেলিম উদ্দিন, পৌরসভার মেয়র নাদের বখত ও সুনামগঞ্জ বারের আইনজীবী কাওসার আলমসহ পাঁচজনের বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারি করে জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট সুনামগঞ্জ সদর জোনের বিচারক।

ওই মামলার নির্ধারিত তারিখে আদালত পুলিশের দেওয়া অভিযোগপত্র গ্রহণ করেন এবং মামলার পাঁচ আসামির বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারির আদেশ দেন। তবে এই পাঁচজন মামলার এজহার ভুক্ত আসামি নন। পুলিশ অভিযোগপত্রে তাদের নাম যুক্ত করেছে। তবে ২১ জানুয়ারি বৃহস্পতিবার আদালতে হাজির হয়ে জামিন নেন পৌরসভার মেয়র নাদের বখত ও সুনামগঞ্জ বারের আইনজীবী কাওসার আলম।

সুনামগঞ্জ পৌরসভার মেয়র নাদের বখত বলেছেন, যে ঘটনায় তার বিরুদ্ধে পরোয়ানা জারি হয়েছিল সে ঘটনার সঙ্গে তাঁর কোনও সংশ্লিষ্টতা নেই। যখন এসব সনদপত্র দেওয়া হয় তখন তিনি ঢাকায় ছিলেন। তখন মেয়রের দায়িত্বে ছিলেন পৌরসভার ১ নম্বর ওয়ার্ডের কাউন্সিলর (প্যানেল মেয়র-১) হোসেন আহমদ রাসেল। তাই এই প্রক্রিয়ার কোনও ভাবেই তিনি যুক্ত নন।

পিপি/জেআর

কারাগার
মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন
cdbl

সারাদেশ

অনুসন্ধান করুন
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
close