• মঙ্গলবার, ১৯ জানুয়ারি ২০২১, ৫ মাঘ ১৪২৭
  • ||

প্রয়োজন হলে আবারো ধর্ষণ করা হবে, বললেন ইউপি সদস্য

প্রকাশ:  ২৯ নভেম্বর ২০২০, ০৯:৫৪
ঠাকুরগাঁও প্রতিনিধি

ঠাকুরগাঁও সদরে চকলেটের প্রলোভন দেখিয়ে শিশুকে ধর্ষণচেষ্টার অভিযোগ উঠেছে সিরাজুল ইসলাম (বাতাসু) (৮০) নামে এক বৃদ্ধের বিরুদ্ধে। রোববার (২২ নভেম্বর ) বিকালে উপজেলার চিলারং ইউনিয়নের ৫নং ওয়ার্ড আরাজী পাহাড় ভাঙা গ্রামে (উদগাড়ী) এ ঘটনা ঘটে।

জানা যায়, শিশুটির পিতা মারা যাওয়ার পর থেকে পরিবারটি অসহায় হয়ে পড়ে এই সুযোগে বৃদ্ধ সিরাজুল ইসলাম (বাতাসু) এর আগে ঐ শিশুকে আরো ৩ বার ধর্ষণ করেন। বাতাসু ঐ ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য নাসিরুলের চাচা হওয়ায় ইউপি চেয়ারম্যনাকে দিয়ে ভয়ভীতি দেখিয়ে মিমাংসা করে দেয়।

একই কায়দায় গত ২২ নভেম্বর বিকালে শিশুটিকে একাই পেয়ে ধর্ষণের চেষ্টাকালে শিশুটি চিৎকার করলে বৃদ্ধ বাতাসু পালিয়ে যায় এবং কাউকে না বলার জন্য তার হাতে ২ টাকা ধরিয়ে দেয়। মেয়ের মুখে ঘটনা শুনার পর তার মা মেম্বার, চেয়ারম্যানের কাছে বিচার না পেয়ে ঠাকুরগাঁও সদর থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করেন।

শিশুটির মা অভিযোগ করে বলেন, আমার স্বামী বছর দু’বছর আগে মারা যায়। আমি ৩ মেয়েকে নিয়ে খুব কষ্ট করে দিন পার করছি। সারাদিন মাঠে কাজ করি এই সুযোগে বৃদ্ধ বাতাসু আমার শিশুকে এর আগে ৩ বার ধর্ষণ করেছে। আমি বিচার পাইনি। ফের গত রোববার বাচ্চাটাকে ধর্ষণচেষ্টা চালায়। নাসিরুল মেম্বারের কাছে ধর্ষকের বিচার চাইলে গেলে তিনি আমাকে বাজারে খারাপ ভাষায় গালিগালাজ করে এবং বলে পুলিশের কাছে গেলে তোর হাত কেটে নিবো। তোর মাথা আর দেহ দু’ভাগ করে দিবো। চারবার কেন প্রয়োজন হলে আবারো ধর্ষণ করা হবে। আমি দেখবো কোন পুলিশ আসে বিচার করতে।

এ বিষয়ে ইউপি সদস্য মোঃ নাসিরুল ইসলামের সাথে কথা বলার চেষ্টা করলে তিনি কথা বলতে রাজী হননি।

স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান মোঃ আইয়ুব আলী বলেন, ঘটনার কোনো কিছুই আমি জানি না, ঠাকুরগাঁও থানা থেকে পুলিশ এসেছিলো তখন আমাকে ডেকেছে এবং আমি গিয়েছিলাম।

ঠাকুরগাঁও সদর থানার এসআই রবিউল আলম ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেন।

পূর্বপশ্চিমবিডি/অ-ভি

ইউপি সদস্য,ধর্ষণ,ঠাকুরগাঁও
মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন
cdbl

সারাদেশ

অনুসন্ধান করুন
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
close