• বুধবার, ২১ অক্টোবর ২০২০, ৬ কার্তিক ১৪২৭
  • ||

পাবনায় ভোক্তা অধিকার কর্মকর্তার বিরুদ্ধে দুর্নীতির অভিযোগ

প্রকাশ:  ১৮ অক্টোবর ২০২০, ১৯:১৮
পাবনা প্রতিনিধি

ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তর পাবনার সহকারী পরিচালক আব্দুস সালামের বিরুদ্ধে দুর্নীতি ও অনিয়মের অভিযোগ তুলেছেন স্থানীয় ব্যবসায়ীরা।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক কয়েকজন ভুক্তভোগী বলেন, আব্দুস সালাম সহকারী পরিচালক হিসেবে যোগদানের পর থেকেই জেলার নয়টি উপজেলার বিভিন্ন ব্রেড ফ্যাক্টরি, চানাচুর কারখানা, রেস্টুরেন্ট, হোটেল, রেস্তরাঁ, বেকারি, সেমাই কারখানাসহ বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান থেকে দশ হাজার থেকে শুরু করে লক্ষাধিক টাকাও মাসোহারা নেন।

ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তরের মহাপরিচালকের বাড়ি পাবনায় হওয়ায় তার নাম ব্যবহার করেও এই কর্মকর্তা অর্থ আদায় করেন বলে ব্যবসায়ীদের অভিযোগ।

ব্যবসায়ীরা বলেন, আব্দুস সালাম ব্যবসায়ীদের অফিসে ডেকে নিয়ে জরিমানা ও ব্যবসা প্রতিষ্ঠান সিলগালা করার ভয় দেখিয়ে মোটা অংকের চাঁদা দাবি করেন। তার চাহিদা পূরণ না হলে ওই প্রতিষ্ঠানে ভ্রাম্যমাণ অভিযান পরিচালনা করাসহ তাকে বিভিন্নভাবে হয়রানি করেন।

পাবনা শহরের চারতলা এলাকা বিশিষ্ট ব্যবসায়ী ইয়াসিন আলী বলেন, আব্দুস সালামের কারণে এখন ব্যবসা করাই দুরূহ হয়ে পড়েছে। তার ক্রমবর্ধমান চাহিদা পূরণ করতে গিয়ে ব্যবসার পুঁজি হারানোর উপক্রম হয়েছে।

সৎ ব্যবসায়ীদের কাছে আব্দুস সালাম এখন মূর্তিমান আতংক বলে মনে করেন ইয়াসিন।

পাবনা চেম্বার অব কমার্স অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রির জ্যেষ্ঠ সহ-সভাপতি আলী মূর্তজা বিশ্বাস সনি বলেন, আব্দুস সালামের চাঁদাবাজির বিষয়ে ব্যবসায়ীদের অভিযোগ পাওয়ার পর আমরা জেলা প্রশাসনকে অবহিত করেছি। এরপরও তার বেপরোয়া আচরণের কোনো পরিবর্তন হয়নি।

পাবনা জেলা প্রশাসক কবীর মাহমুদ বলেন, আব্দুস সালামের বিরুদ্ধে লিখিত কোনো অভিযোগ আসেনি। সুনির্দিষ্ট অভিযোগ পেলে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

তবে অভিযোগের বিষয়ে ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তরের পাবনার সহকারী পরিচালক আব্দুস সালাম বলেন, অসাধু ব্যবসায়ী সিন্ডিকেটের অনৈতিক কার্যক্রমে বাধা দেওয়ায় তারা আমার বিরুদ্ধে মিথ্যা অভিযোগ করছেন; এসব সঠিক নয়।

পূর্বপশ্চিমবিডি/জেডআই

পাবনা
মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন
cdbl

সারাদেশ

অনুসন্ধান করুন
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
close