• শুক্রবার, ৩০ অক্টোবর ২০২০, ১৫ কার্তিক ১৪২৭
  • ||

কুমিল্লায় নিয়োগে রাজি না হওয়ায় প্রধান শিক্ষককে মারধর

প্রকাশ:  ১৭ অক্টোবর ২০২০, ২১:১৫
কুমিল্লা প্রতিনিধি

কুমিল্লার মুরাদনগরে ঘোড়াশাল আবদুল করিম উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষককে মারধরের অভিযোগে শুক্রবার (১৬ অক্টোবর) রাতে দুজনকে আটক করেছে পুলিশ।

প্রধান শিক্ষকের অভিযোগের ভিত্তিতে উপজেলা সদর ইউনিয়নের ঘোড়াশাল গ্রাম থেকে তাদের আটক করা হয়।

আটকরা হলেন, উপজেলা সদর ইউনিয়নের ঘোড়াশাল গ্রামের মৃত আসাদ মিয়ার ছেলে আবদুল বাক্কী (৪০) ও একই ইউনিয়নের করকটিয়া গ্রামের মৃত আবদুল বাতেন মিয়ার ছেলে আয়নল হক ওরফে শিবু (৪০)।

মামলা সুত্রে জানা যায়, উপজেলার ঘোড়াশাল আবদুল করিম উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক দেলোয়ার হোসেনের সঙ্গে বিদ্যালয়ের বিদ্বোৎসাহী সদস্য আবদুল বাক্কী ও অভিভবক সদস্য আয়নল হক শিবুর সঙ্গে বিদ্যালয়ের মালিকানাধীন দোকান ভাড়ার অর্থ আত্মসাৎ নিয়ে দ্বন্দ্ব চলে আসছিলো।

বিদ্যালয়ের পরিত্যক্ত একটি ভবন ২ লাখ টাকায় বিক্রি করে তা থেকেও ৫০ হাজার টাকা টাকা আত্মসাৎ করেন এ দুই সদস্য। ১৭ অক্টোবর উক্ত বিদ্যালয়ের শূন্য পদে সহকারী প্রধান শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষার দিন ধার্য্য হয়। উক্ত নিয়োগ পরীক্ষাকে কেন্দ্র করে আবদুল বাক্কী, আয়নল হক শিবু ও অজ্ঞাতনামা কয়েকজন ১৪ অক্টোবর বেলা ১১টার দিকে বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষকের রুমে প্রবেশ করে তাদের পছন্দের ব্যক্তিকে নিয়োগ দিতে চাপ সৃষ্টি করেন।

প্রধান শিক্ষক তাদের প্রস্তাবে রাজি না হওয়ায় তারা ক্ষিপ্ত হয়ে গালাগাল করতে থাকে। এক পযার্য়ে তারা প্রধান শিক্ষককে মারধরসহ লাঞ্ছিত করে। এ ঘটনায় প্রধান শিক্ষক দেলোয়ার হোসেন মুরাদনগর থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন।

এ ব্যাপারে মুরাদনগর থানার অফিসার ইনচার্জ (ভারপ্রাপ্ত) নাহিদ আহাম্মেদ বলেন প্রধান শিক্ষকের অভিযোগের ভিত্তিতে হামলাকারীদের গ্রেপ্তার করে শনিবার দুপুরে বিজ্ঞ আদালতের মাধ্যমে কুমিল্লা জেলহাজতে প্রেরণ করা হয়।

পূর্বপশ্চিমবিডি/জেডআই

কুমিল্লা
মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন
cdbl

সারাদেশ

অনুসন্ধান করুন
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
close