• বৃহস্পতিবার, ০১ অক্টোবর ২০২০, ১৭ আশ্বিন ১৪২৭
  • ||

ঝিনাইদহে ১৩ দিনের ব্যবধানে করোনায় দুই ভাইয়ের মৃত্যু

প্রকাশ:  ১৫ আগস্ট ২০২০, ২১:০১ | আপডেট : ১৫ আগস্ট ২০২০, ২১:০৫
ঝিনাইদহ প্রতিনিধি

ঝিনাইদহ জেলা ক্রীড়া সংস্থার সদস্য এ্যাডভোকেট তাছিকুল আলম খান আকরাম করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন (ইন্নালিল্লাহি ওয়া ইন্নালিল্লাহি রাজিউন)। শুক্রবার (১৪ আগস্ট) রাতে ঝিনাইদহ অস্থায়ী কেভিড-১৯ হাসপাতালে তিনি মারা যান।

মৃত্যুকালে তার বয়স হয়েছিল ৬০ বছর। তিনি শহরের আরাপপুর এলাকার ক্যাসেল ব্রীজ সংলগ্ন মরহুম নুরুন্নবী খান ওরফে মনি মিয়ার ছেলে।

পারিবারিক সুত্রে জানা গেছে, তিনি বেশ কিছু দিন ধরে করোনা উপসর্গ নিয়ে চলাফেরা করছিলেন। নমুনা পরীক্ষার পর তার ফলাফল পজিটিভ আসে। গত ১১ আগস্ট শ্বাসকষ্ট দেখা দিলে এ্যাডভোকেট আকরামকে করোনা হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। শুক্রবার রাত সাড়ে ১০টার দিকে তিনি মৃত্যুবরণ করেন।

গত ৩১ জুলাই করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে তার বড় ভাই জনতা ব্যাংকের সাবকে কর্মকর্তা সামছুল আলম খান সেলিম মারা যান। ১৩ দিনের ব্যবধানে একই পরিবারের দুই ভাই মারা গেলেন।

এ্যাডভোকেট আকরামের মৃত্যুতে গভীর শোক ও সমবেদনা জ্ঞাপন করেছেন ঝিনাইদহ-২ আসনের সংসদ সদস্য তাহজীব আলম সিদ্দিক সমি। এদিকে মরহুমের পরিবার পরিজনদের সমবেদনা জানাতে মরহুমের বাসভবনে যান ঝিনাইদহ পৌর আওয়ামী লীগের সভাপতি ও ঝিনাইদহ জেলা ক্রীড়া সংস্থার সাধারণ সম্পাদক জীবন কুমার বিশ্বাস। এদিকে শনিবার বেলা ১১টার দিকে আকরামের মৃতদেহ ইসলামী ফাউন্ডেশনের তত্বাবধানে ঝিনাইদহ পৌর গোরস্থানে দাফন করা হয়।

প্রসঙ্গত, মৃত দুই ভাই ঝিনাইদহ-২ আসনের সাবেক সংসদ সদস্য ও বিএনপি চেয়ারপার্সনের উপদেষ্টা মসিউর রহমানের শ্যালক।

জেলার সিভিল সার্জন দপ্তরের করোনাভাইরাস বিষয়ক মুখপাত্র প্রসেনজিৎ বিশ্বাস পার্থ জানান, ঝিনাইদহে এ পর্যন্ত করোনাভাইরাসে আক্রান্ত ২৩ জনের মৃত্যু হল। জেলায় মোট শনাক্ত হয়েছেন ১৩০৩ জন।

ঝিনাইদহে করোনাভাইরাসের সংক্রমণ দ্রুত বেড়ে চলেছে। জেলার সিভিল সার্জন সেলিনা বেগম বলেন, মানুষ স্বাস্থ্যবিধি মানছে না। হাটবাজারে আগের মত ভিড় করছে। এমনকি মাস্কও ব্যবহার করছে না। এতে সংক্রমণ বাড়ছে।

আরো পড়ুন: ঝিনাইদহে অপারেশনের পর প্রসূতির মৃত্যু, করোনা উপসর্গ বলে অপপ্রচার

পূর্বপশ্চিমবিডি/এসএস

ঝিনাইদহ
মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন
cdbl

সারাদেশ

অনুসন্ধান করুন
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
close