• শনিবার, ১৯ সেপ্টেম্বর ২০২০, ৪ আশ্বিন ১৪২৭
  • ||

প্রত্যাহার হলেন লাঞ্ছনার শিকার সেই এএসআই

প্রকাশ:  ১০ আগস্ট ২০২০, ১৪:২০
বরগুনা সংবাদদাতা
ফাইল ছবি

বরগুনার বামনা উপজেলায় বহু মানুষের সামনে ওসির হাতে লাঞ্চনার শিকার হওয়া সেই এএসআইকে প্রত্যাহার করা হয়েছে। তাকে বামনা থানা থেকে সরিয়ে বরগুনা পুলিশ লাইনে সংযুক্ত করা হয়েছে।

বিষয়টি নিশ্চিত করে বরগুনার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মো. মফিজুল ইসলাম বলেন, ওই এএসআইকে অন্যস্থানে পদায়নের জন্য থানা থেকে সরিয়ে পুলিশ লাইনে সংযুক্তের নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

রোববার (৮ আগস্ট) রাত ১১টার দিকে ভুক্তভোগী ওই এএসআইকে পুলিশ লাইনে সংযুক্ত করার জন্য নির্দেশ দেন ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা। এর পরপরই এর জন্য দাপ্তরিক কাজ শুরু হয়।

এএসআইকে প্রকাশ্যে ওসির থাপ্পড়ের ঘটনা তদন্তে কমিটি

ভুক্তভোগী ওই সহকারী উপপরিদর্শক (এএসআই) বলেন, রাতে পুলিশ লাইনে সংযুক্ত হওয়ার জন্য ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা নির্দেশ দিয়েছেন। এ জন্য প্রস্তুতি নিচ্ছি।

তবে তিনি বলেন, তবে কেন বা কী কারণে সেখানে সংযুক্ত করা হয়েছে, তা আমি এখনো জানি না।

অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মফিজুল ইসলাম বলেন, ভুক্তভোগী ওই এএসআইকে সুন্দর পরিবেশে কাজ করার সুযোগ করে দিতে চাই। এই মুহূর্তে তার বামনা থানায় কাজ করার অনুকূল পরিবেশ নেই। খুব অল্প সময়ের মধ্যে তাকে অন্যত্র পদায়ন করা হবে।

প্রসঙ্গত, কক্সবাজারে পুলিশের হাতে সেনাবাহিনীর অবসরপ্রাপ্ত মেজর সিনহা মোহাম্মদ রাশেদ খানের মৃত্যুর পর তার সহকর্মী সাহেদুল ইসলাম সিফাতের মুক্তির দাবিতে শনিবার (৮ আগস্ট) বামনায় মানববন্ধন করে শিক্ষার্থীরা। সেই মানববন্ধন পণ্ড করার সময় কর্তব্যরত এক এএসআইকে থাপ্পড় মারেন বামনা থানার ওসি ইলিয়াস হোসেন।

চড় মারার ভিডিওটি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়লে ব্যাপক সমালোচনা হয়।

লাঠিচার্জে সিফাতের সহপাঠীদের মানববন্ধন পণ্ড, এএসআইকে থাপ্পড় দিলেন ওসি


পূর্বপশ্চিমবিডি/এসএম

বরগুনা,পুলিশ,মেজর সিনহা,সিনহা মোহাম্মদ রাশেদ
মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন
cdbl

সারাদেশ

অনুসন্ধান করুন
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
close