• মঙ্গলবার, ২২ সেপ্টেম্বর ২০২০, ৭ আশ্বিন ১৪২৭
  • ||
শিরোনাম

প্রবাসীর স্ত্রীকে ধর্ষণ মামলায় ইউপি চেয়ারম্যান গ্রেপ্তার

প্রকাশ:  ০৯ আগস্ট ২০২০, ২১:১৮
সুনামগঞ্জ প্রতিনিধি
আবু হেনা আজিজ

দিনের পর দিন এক প্রবাসীর স্ত্রীকে ধর্ষণ করার অভিযোগে দায়ের করা মামলায় সুনামগঞ্জের দোয়ারাবাজার উপজেলার মান্নারগাঁও ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান আবু হেনা আজিজ গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। রোববার (৯ আগস্ট) দুপুরে শহরের পিটিআই এলাকা থেকে তাকে গ্রেপ্তার করে সদর থানা পুলিশ। তার বিরুদ্ধে ধর্ষণ মামলা দায়ের করেছেন এক প্রবাসীর স্ত্রী (২৬) ।

গ্রেপ্তার আবু হেনা আজিজ যুক্ত্যরাজ্য বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক। গত ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে ধানের শীষ প্রতীকে সুনামগঞ্জের মান্নারগাঁও ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান নির্বাচিত হন তিনি। যুক্তরাজ্য প্রবাসী আবু হেনা আজিজ স্ত্রী-সন্তানকে লন্ডন রেখে দেশে একা বসবাস করে আসছিলেন। দেশে থাকা অবস্থায় সদর উপজেলার রঙ্গারচর এলাকার এক নারীর সঙ্গে প্রেমের সম্পর্ক গড়েন তিনি।

নির্যাতিতা তার দায়ের করা মামলায় দাবি করেছেন, সদর উপজেলার রঙ্গারচর ইউনিয়নের হরিনাপাটি গ্রামের এক প্রবাসীর স্ত্রী তিনি। সুনামগঞ্জ শহরের আলীপাড়া আবাসিক এলাকায় ১০ বছরের শিশু কন্যাসহ ইউপি চেয়ারম্যান আবু হেনা আজিজের বোনের বাসায় ভাড়া থাকতেন তিনি। গত ১০ এপ্রিল প্রথমে আবু হেনা আজিজ তাকে জোরপূর্বক ধর্ষণ করেন। এরপর থেকে ভয়ভীতি দেখিয়ে তিনি তাকে নিয়মিত ধর্ষণ করে আসছিলেন। এক পর্যায়ে তিনি অন্তঃসত্ত্বা হয়ে পড়েন।

আবু হেনা আজিজ উপস্থিত থেকে শহরের একটি ক্লিনিকে সম্প্রতি তার তিন মাসের গর্ভের সন্তান নষ্ট করান। নির্যাতিতা এমন ঘটনার বিচার দাবি করেন মামলায়। এই মামলায় রোববার দুপুরে আবু হেনা আজিজকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ।

তবে গ্রেপ্তারের পর ইউপি চেয়ারম্যান আবু হেনা আজিজ সাংবাদিকদের বলেন, তার বিরুদ্ধে আনা অভিযোগ ষড়যন্ত্রমূলক।

সুনামগঞ্জ সদর মডেল থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. সহিদুর রহমান বলেন, ‘মান্নারগাঁও ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান আবু হেনা আজিজের বিরুদ্ধে ধর্ষণ মামলা হয়েছে। তাকে গ্রেপ্তার করে আদালতে পাঠানো হয়েছে। আদালত তার জামিন না মঞ্জুর করে জেল হাজতে পাঠানোর আদেশ দিয়েছেন।’

পূর্বপশ্চিমবিডি/এসএস

সুনামগঞ্জ,প্রবাসী
মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন
cdbl

সারাদেশ

অনুসন্ধান করুন
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
close