• শনিবার, ১৫ আগস্ট ২০২০, ৩১ শ্রাবণ ১৪২৭
  • ||

নৌকা ১ লাখ ৪৫ হাজার, নিকটতম প্রার্থী ১ হাজার

প্রকাশ:  ১৪ জুলাই ২০২০, ২২:১৪ | আপডেট : ১৪ জুলাই ২০২০, ২২:২২
বগুড়া প্রতিনিধি
সাহাদারা মান্নান

বগুড়া-১ (সোনাতলা-সারিয়াকান্দি) আসনের উপনির্বাচনে আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী সাহাদারা মান্নান বেসরকারিভাবে নির্বাচিত হয়েছেন। তিনি নৌকা প্রতীকে ভোট পেয়েছেন ১ লাখ ৪৫ হাজার ৯৬৬ ভোট। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী স্বতন্ত্র প্রার্থী ইয়াসির রহমততুল্লাহ ইন্তাজ ট্রাক প্রতীকে পেয়েছেন ১ হাজার ২১৮ ভোট। জাতীয় পার্টির প্রার্থী মোকছেদুল আলম নাঙ্গল প্রতীকে ভোট পেয়েছেন ৯৬৯।

মঙ্গলবার (১৪ জুলাই) রাতে রিটার্নিং অফিসার ও সিনিয়র জেলা নির্বাচন অফিসার মাহাবুব আলম শাহ বেসরকারি ফলাফল ঘোষণা করেন।

প্রসঙ্গত, করোনা ও বন্যা পরিস্থিতির মধ্যেও সংবিধান রক্ষা ছিল জরুরি। তাই সিইসি’র ভাষায় ‘বাধ্য হয়ে আয়োজন করা’ বগুড়া-১ আসনের উপনির্বাচন শান্তিপূর্ণ ভাবেই শেষ হয়েছে যদিও ভোটারদের উপস্থিতি ছিল একেবারেই কম। প্রতিদ্বন্দ্বী বিএনপির প্রার্থী আগেই নির্বাচনের মাঠ ছাড়ায় ভোটারদের এই উপস্থিতি নিয়েও খুব একটা চিন্তিত ছিলেন না সরকারি দলের প্রার্থী কিংবা নির্বাচন কমিশন। কারণ, দুই শতাংশ ভোট হলেও এ নির্বাচন বৈধ হবে তার ঘোষণা সিইসি দিয়েছিলেন আগেই। তারপরও সকাল ৯টা থেকে বিকাল ৫টা পর্যন্ত বিরতিহীনভাবে বগুড়া-১ (সারিয়াকান্দি-সোনাতলা) আসনের ১২৩ কেন্দ্রগুলোতে ভোট হয়েছে, এসেওছিলেন যৎসামান্য ভোটার।

বেলা বাড়ার সাথে সাথে আওয়ামী লীগ প্রার্থীর কর্মীরা বাড়ি বাড়ি গিয়ে ভোটারদের কেন্দ্রে আনতে শুরু করেন। এতে কেন্দ্রে উপস্থিতি বাড়তে থাকে। তবে উল্লেখযোগ্য ভোটার নজরে আসেনি।

বগুড়া-১ আসনে সংসদ উপনির্বাচনে এমপি পদে এবার ছয়জন প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেছেন। তারা হলেন- আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী প্রয়াত সংসদ সদস্য আব্দুল মান্নানের স্ত্রী সারিয়াকান্দি উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি সাহাদারা মান্নান (নৌকা), জাতীয় পার্টির প্রার্থী অধ্যক্ষ মোকছেদুল আলম (লাঙল), প্রগতিশীল গণতান্ত্রিক পার্টির মো. রনি (বাঘ), খেলাফত আন্দোলনের প্রার্থী প্রভাষক নজরুল ইসলাম (বটগাছ) ও স্বতন্ত্র প্রার্থী ইয়াসির রহমতুল্লাহ ইন্তাজ (ট্রাক)।

জেলা নির্বাচন কার্যালয় সূত্র জানায়, গত ১৮ জানুয়ারি আওয়ামী লীগ সংসদ সদস্য আব্দুল মান্নানের মৃত্যুতে বগুড়া-১ আসন শূন্য ঘোষণা করে নির্বাচন কমিশন। এরপর উপনির্বাচনের তারিখ ঘোষণা করা হয় ২৯ মার্চ। করোনার কারণে সেই তারিখে ভোটগ্রহণ স্থগিত হয়ে আবারও তারিখ নির্ধারণ করা হয়। সাংবিধানিক বাধ্যবাধকতার কারণে ১৮০ দিনের মধ্যে উপনির্বাচন করার নিয়ম থাকায় ১৪ জুলাই ভোটগ্রহণ করা হয় বগুড়া-১ আসনে।

সারিয়াকান্দি উপজেলার একটি পৌরসভা ও ১২টি ইউনিয়নে ভোটার সংখ্যা এক লাখ ৭৭ হাজার ৩৫২ জন এবং সোনাতলা উপজেলার একটি পৌরসভা ও সাতটি ইউনিয়নে ভোটার সংখ্যা এক লাখ ৫৩ হাজার ৫৬৬ জন। বন্যা ও করোনার মাঝে সাংবিধানিক কারণে ভোট হলেও স্বাস্থ্যসেবা মেনে ভোটগ্রহণ হয়। বগুড়া-১ আসনে মোট ভোটার সংখ্যা তিন লাখ ৩০ হাজার ৯১৮ জন।

পূর্বপশ্চিমবিডি/এসএস

বগুড়া,আওয়ামী লীগ
মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন

সারাদেশ

অনুসন্ধান করুন
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
close