• মঙ্গলবার, ১৪ জুলাই ২০২০, ৩০ আষাঢ় ১৪২৭
  • ||

বজ্রপাতে তিন জেলায় প্রাণ গেল ৪ জনের

প্রকাশ:  ০৪ জুন ২০২০, ১৮:৫০
পূর্বপশ্চিম ডেস্ক

বজ্রপাতে দেশের তিন জেলা হবিগঞ্জ, জয়পুরহাট ও সুনামগঞ্জে বৃহস্পতিবার চারজনের মৃত্যু হয়েছে।

বজ্রপাতে হবিগঞ্জের বাহুবল উপজেলায় দুইজনের মুত্যু হয়েছে। তারা হলো- নোয়াওই গ্রামের দরদ মিয়ার ছেলে ওরকাইদ (১১) ও মানিকা গ্রামের আব্দুল সালামের ছেলে নছর উদ্দিন (১৭)।

বাহুবল থানার ওসি মো. কামরুজ্জামান জানান, সকাল ৮টায় ওরকাইদ বাড়ির পাশে একটি বিলে মাছ ধরতে যায়। হঠাৎ বজ্রপাত হলে ঘটনাস্থলে ওরকাইদ মারা যায়। আহত হয় জুনাইদ ও তার বন্ধু উসমান। আহতদেরকে বাহুবল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

এদিকে একই উপজেলার মানিকা গ্রামের নছর উদ্দিনসকাল ৬টায় জারিয়া বিলে মাছ ধরতে যায়। সকাল ৯টায় বজ্রপাত হলে ঘটনাস্থলে সে মারা যায়। এ ব্যাপারে দুটি অপমৃত্যুর মামলা হয়েছে।

জয়পুরহাটে টিউবওয়েলে গোসল করার সময় বজ্রপাতে সদর উপজেলার মোহাম্মদাবাদ ইউনিয়নের পারুলিয়া-গনকবাড়ি এলাকায় সুকুমার চন্দ্র সরকার(৫১) নামে এক কৃষকের মর্মান্তিক মৃত্যু হয়েছে।

দুপুরে মাঠের কৃষি কাজ শেষে নিজ বাড়িতে ফিরে বিকাল ৩টার দিকে সুকুমার চন্দ্র সরকার বাড়ির পাশে নলকূপে গোসল করতে যান। আকস্মিক বজ্রপাতে সুকুমার চন্দ্র সরকারের শরীর মাারত্মকভাবে ঝলসে গেলে স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার করে সাথে সাথে জয়পুরহাট আধুনিক জেলা হাসপাতালের জরুরি বিভাগে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষনা করেন।

সুকুমার চন্দ্র সরকার সদরউপজেলার পারুলিয়া-গনকবাড়ি গ্রামের মৃত রাজেন্দ্রনাথ সরকারের ছেলে।

সুনামগঞ্জে বজ্রপাতে তকবির হোসেন (১৩) নামে এক কিশোর নিহত হয়েছে। সুনামগঞ্জ জেলার দিরাই উপজেলার মিলনগঞ্জ বাজারে এ ঘটনা ঘটে।

নিহত তকবির হোসেন দিরাই উপজেলার চরনারচর ইউনিয়নের ললুয়ারচর গ্রমের খালেক মিয়ার পুত্র।

এলাকাবাসী ও নিহতের পারিবারিক সূত্রে জানাযায়, বেলা ১১টার সময় কিশোর তকবির হোসেন মাছ ধরাতে মিলনগঞ্জ বাজারের পাশে হাওরে যায়। এসময় হঠাৎ তার উপর বজ্রপাত ঘটলে সে আহত হয়। পরে স্থানীয়রা আহতাবস্থায় তকবির হোসেনকে উদ্ধার করে দিরাই উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

পূর্বপশ্চিমবিডি/এসএস

বজ্রপাত
মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন

সারাদেশ

অনুসন্ধান করুন
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
close