• শনিবার, ০৬ জুন ২০২০, ২৩ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৭
  • ||

করোনা জয় করে বাড়ি ফিরলেন পূর্বপশ্চিমের সাংবাদিক

প্রকাশ:  ০৮ মে ২০২০, ২১:৫৬
নিজস্ব প্রতিবেদক

করোনা জয় করে বাড়ি ফিরেছেন পূর্বপশ্চিমের জামালপুর জেলা প্রতিনিধি মেহেদি হাসান। করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে গত ২১ এপ্রিল থেকে তিনি জামালপুরের শেখ হাসিনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন ছিলেন।

দু’দফায় নেগেটিভ রির্পোট আসায় হাসপাতালের আইসেলেশন থেকে শুক্রবার (৮ মে) বিকেলে তাকে ছাড়পত্র দিয়েছে স্থানীয় স্বাস্থ্য বিভাগ। একইদিনে করোনা সংক্রমণ থেকে সুস্থ হওয়া আরও ৩৯ জনকে ছাড়পত্র দেয়া হয়েছে।

জামালপুর শেখ হাসিনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে করোনা জয় করে ফেরাদের শুভেচ্ছা জানান আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক জামালপুর-৩ আসনের সংসদ সদস্য সাবেক বস্ত্র ও পাট প্রতিমন্ত্রী মির্জা আজম। এসময় স্বাস্থ্য বিভাগের কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

মেহেদি হাসান সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে লিখেছেন, ‘আজ বিকাল ৩ টায় ডেপুটি সিভিল সার্জন ডা. শফিকুজ্জামান ভাই একটি মুক্তির চিঠি হাতে দিয়ে বললো আপনি সুস্থ - আপনার ছুটি। এটা এক অন্যরকম অনূভুতি, জীবনে এই প্রথম কোন হাসপাতালে ভর্তি তারপর আবার আইসোল্যাশন রুমে, প্রায় বিশ দিন কভিড-১৯ এর সাথে যুদ্ধ করার পর, ছুটির খবর শুনলে, বাঁধভাঙ্গা অশ্রু সামলাতে পারছিলাম না কিছুতেই । প্রতিদিন যেখানে করোনায় আক্রান্ত হয়ে সারা বিশ্বে হাজার হাজার মানুষ মারা যাচ্ছে- সেখানে আমার মতো কমল হৃদয়ের মানুষ বোঝেন তাহলে কি অবস্হা ! একাকিত্বের যন্ত্রনা আর নানা রকম অভিজ্ঞতা নিয়ে আমি এখন আমার মা এর কাছে ফিরে এসেছি। বাসায় আছি।

মেহেদী বেঁচে ফিরলেও মেহেদী আর মেহেদীর মধ্যে নেই। সে সকলের হয়ে গেছে। ভালোবাসার ঋন কখনো শোধ করা যাবেনা,অনেকের কাছে ঋণী হয়ে গেলাম । ব্যক্তি মেহেদীর দায়িত্ব আরো ভীষণ রকম বেড়ে গেলো। এই দুঃস্বপ্নের কয়েকটা দিন আমার জন্য আপনারা যা করেছেন তা স্মরণীয় হয়ে থাকবে । আপনাদের ভালোনাসাকে জানাই নতমস্তকে শ্রদ্ধা । আমি ক' জনের নাম বলবো? ভালোবাসার তো কোন সংখ্যা বা পরিমাপ নেই।

আমি আইসলোশনে যাওয়ার পর সাবেক প্রতিমন্ত্রী ও বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক আলহাজ্ব মির্জা আজম ভাই শত ব্যস্ততার মাঝেও প্রতিদিন ফোনে আমার খোঁজ নিয়ে আামাকে মানসিক ভাবে শক্তি যুগিয়েছেন সাহস দিয়েছেন, আমি আজন্ম কৃতজ্ঞ মহানুভব এই নেতার প্রতি।কৃতজ্ঞ জামালপুর-২ আসনের মাননীয় সংসদ সদস্য আলহাজ্ব ফরিদুল হক খান দুলাল কাকা ও সদর আসনের মাননীয় সংসদ সদস্য আলহাজ্ব ইঞ্জিনিয়ার মোজাফফর হোসেন মহোদয়ের কাছে।

আরো অনেকের কাছেই আমি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করছি যারা আামার শুভানুধ্যায়ী হয়ে আমার জন্য দোয়া করেছেন। বেঁচে যখন ফিরেছি, মানুষের সেবায় নিজেকে বিলিয়ে দিবোই, আবার নামবো মাঠে, ‘জাগো বাহে কুন্ঠে সবাই’ করোনার গ্রাস যেন করাল না হয়, এই হোক প্রার্থনা। আরো দুই সপ্তাহ বাসায় বিশ্রামে থাকতে হবে। দোয়া করবেন যেন পুরোপুরি সুস্থ হয়ে আপনাদের সেবায় নিয়োজিত হতে পারে।’

এদিকে জামালপুরের সিভিল সার্জন ডা. প্রনয় কান্তি দাস জানান, করোনা আক্রান্ত ৬ নারীসহ ৪০ জনের নমুনা পরীক্ষার রিপোর্ট ২ দফা নেগেটিভ আসায় তাদেরকে আইসেলেশন থেকে ছাড়পত্র দেওয়া হয়েছে। সুস্থ হওয়া ৪০ জনের মধ্যে হোম আইলেশনে ছিলেন ১১ জন। সুস্থ হয়ে বাড়ি ফেরাদের মধ্যে সদর উপজেলার ১৭, মেলান্দহের ৩, মাদারগঞ্জের ৯, ইসলামপুরের ১, দেওয়ানগঞ্জের ২, বকশীগঞ্জের ২ এবং সরিষাবাড়ির ৬ জন।

এর আগে জামালপুর শেখ হাসিনা মেডিকেল কলেজের আইসোলেশন থেকে দুই দফায় ৯ জন সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেন।

জেলায় এখন পর্যন্ত করোয় আক্রান্ত হয়েছেন ১০৩ জন। এদের মধ্যে মৃত্যুর পর ২ জনের নমুনা পরীক্ষায় করোনা শনাক্ত হয় এবং চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যায় একজন।

পূর্বপশ্চিমবিডি/এসএস

সাংবাদিক,জামালপুর,মেহেদি হাসান
মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন

সারাদেশ

অনুসন্ধান করুন
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
close