• শনিবার, ০৬ জুন ২০২০, ২৩ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৭
  • ||

রাজশাহীতে ফোনেই প্রাথমিক পরামর্শ পাবেন রোগীরা

প্রকাশ:  ৩০ মার্চ ২০২০, ২০:০৬
রাজশাহী প্রতিনিধি

করোনাভাইরাস নির্ণয় ও চিকিৎসা প্রদানের জন্য মেডিসিন বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক ডা. আজিজুল হক আজাদকে আহ্বায় করে ১৫ সদস্যের বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকদের সমন্বয়ে চিকিৎসা কমিটি গঠন করেছে রাজশাহী মেডিকের কলেজ (রামেক) হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ। কমিটির চিকিৎসকদের সরাসরি কল করে ২৪ ঘণ্টা সংশ্লিষ্ট বিষয়ে পরামর্শ নেয়া যাবে। এছাড়া করোনা সংশ্লিষ্ট বিষয়ে রামেক হাসপাতালে তথ্য আদান প্রদান ও প্রাপ্ত তথ্যাদি রেজিস্টারভুক্ত করার জন্য পাঁচটি হটলাইন নম্বর চালু করা হয়েছে।

সোমবার (৩০ মার্চ) সংবাদ সম্মেলনে এই তথ্য জানানো হয়েছে। সরকারের সিদ্ধান্ত মতো এই ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়েছে বলে সংবাদ সম্মেলনে জানান হয়।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন রামেক হাসপাতালের উপ-পরিচালক সাইফুল ফেরদৌস, রাজশাহী মেডিকেল কলেজের অধ্যক্ষ নওসাদ আলী, মেডিসিন বিভাগের প্রধান অধ্যাপক ডা. খলিলুর রহমান, মেডিসিন বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক ডা. আজিজুল হক আজাদ।

সংবাদ সম্মেলনে জানান হয়, রামেক হাসপাতাল থেকে কোন রোগীকে চিকিৎসা না দিয়ে ফিরিয়ে দেয়া হবে না। নতুন কেউ আসলে তাকে ফিরিয়ে দেয়া হবে না। সবার চিকিৎসা যথাযথভাবে হবে। যারা হাসপাতালে আসতে চান না তারা মোবাইল ফোনে চিকিৎসা বা পরামর্শ নিতে পারবেন। এ জন্য ১৫ জন চিকিৎসকের নাম্বার প্রস্তুত করা হয়েছে।

চিকিৎসা কটিমিটর ১৫ জন বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকের নাম ও নম্বর- ডা. আজিজুল হক আজাদ (০১৭১৫৩৬৭৮৪৪), ডা. জহুরুল হক (০১৭১২০০০৯১৮), ডা. সৈয়দ মাহাবুব আলম (০১৭১১০৭৪২৬৬), ডা. হারুন অর রশীদ (০১৭১১৯০৪৭৭৮), ডা. মাহাবুবুর রহমান (০১৭৬৩২৪৮৪৪৮), ডা. প্রবীর মোহন বসাক (০১৭১২৪১৬৮৬২), ডা. আখতারুল ইসলাম (০১৭১২৬২২৭১৬), ডা. আমজাদ হোসেন (০১৭১২৬৮৫৩৫০), ডা. মোহাইমেনুল হক (০১৭১৩৩২৬১৯৭৫), ডা. রেজাউল ইসলাম (০১৭১১৫৭৭৫৬৩), ডা. নাজনীন পারভীন (০১৭১১১৮০২৩৮), ডা. সেলিম খান (০১৭১৩২২৮৩৮৩), ডা. আমজাদ হোসেন প্রাং (০১৭১৮১৬৭৮১৯), ডা. রকিবুল ইসলাম (০১৯১৪৯৫৭৬৪৭) ও ডা. সিদ্দিকুর রহমান (০১৭১৬০৩৪৮১৪)। এছাড়া রামেক হাসপাতালের হটলাইন নম্বর- শনিবার ০১৭১৫৫৪৫৫৭২, ০১৭৩৪১৯৫৯৯৯ রোবার ০১৭৪৪৫৯৫৮৪২, ০১৭১৬৫৩৬৬৫৬, সোমবার ০১৭৪৪৫৯৫৮৪২, ০১৭১৫৮৪১২৬৬ মঙ্গলবার ০১৭৬৫৭০৯৪৪০, ০১৭৮২৯১৬৮৯১, বুধবার ০১৭৩৪১৯৫৯৯৯, ০১৯১৯৯৮১৯৪০, বৃহস্পতিবার ০১৭১১৯৮১৯৪১, ০১৭৪৪৫৯৫৮৪২ এবং শুক্রবার ০১৭৪৪৫৯৫৮৪২, ০১৭১২৫৫৯৬৭৩।

এদিকে সংবাদ সম্মেলনে আরও জানান হয়, রোববার দিবাগত রাত সাড়ে ১২ টার দিকে পবা উপজেলার ১৭ বছরের এক কিশোরকে ইনফেকশন ডিজিজ (আইডি) হাসপাতালের আইসোলেশন ইউনিটে ভর্তি করা হয়েছে। তাকে অবজারভেশনে রাখা হয়েছে। সে তিন দিনের জ্বর ও শুকনো কাশিতে আক্রান্ত। করোনাভাইরাসে আক্রান্ত কিনা তা পরীক্ষার পর জানা যাবে।


পূর্বপশ্চিমবিডি/ইমি

রাজশাহী,করোনাভাইরাস
মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন

সারাদেশ

অনুসন্ধান করুন
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
close