• শনিবার, ৩০ মে ২০২০, ১৬ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৭
  • ||

শিবগঞ্জে জ্বর, শ্বাসকষ্টে একজনের মৃত্যু, দাফন নিয়ে জটিলতা 

প্রকাশ:  ৩০ মার্চ ২০২০, ১৪:৫৩ | আপডেট : ৩০ মার্চ ২০২০, ১৫:০১
চাঁপাইনবাবগঞ্জ প্রতিনিধি

চাঁপাইনবাবগঞ্জের শিবগঞ্জ উপজেলায় জ্বর, শ্বাসকষ্টে গোলাম নবী (৪৮) নামে একজনের মৃত্যুর পর গ্রামাবাসীদের মধ্যে করোনা আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়ে। ফলে ওই ব্যক্তির দাফন নিয়ে সৃষ্টি হয় জটিলতা। গ্রামবাসীরা এড়িয়ে চলতে শুরু করেন মৃতের বাড়ি। মৃতের পরিবার পড়ে সংকটে।

শনিবার (২৮ মার্চ) বিকেলে নয়ালাভাঙ্গা ইউনিয়নের খোনাপাড়া গ্রামের ইয়াসিন আলীর ছেলে ব্যবসায়ী নবী নিজ বাড়িতে মারা যান।রোববার (২৯ মার্চ) সকালে কর্তৃপক্ষের চেষ্টায় গ্রামবাসীকে বুঝিয়ে মরদেহ দাফন সম্পন্ন হয়।

সোমবার (৩০ মার্চ) দুপুরে সংশ্লিষ্ট ইউপি চেয়ারম্যান আশরাফুল হক জানান, ওই গ্রামের পরিস্থিতি এখন সম্পূর্ণ স্বাভাবিক। তিনি বলেন, এখন অবস্থা এমন দাঁড়িয়েছে যে, কারও জ্বর বা শ্বাসকষ্ট হলেই আতঙ্ক সৃষ্টি হচ্ছে। কিন্তু অপর দিকে মানুষকে ঘরে রাখতে আবার তাদের হিমসিম খেতে হচ্ছে।

অথচ মৃত ব্যক্তি ছিলেন পুরোনো শ্বাসকষ্ট (সিওপিডি) ও হৃদরোগি। যা তার পরিবার ছাড়াও আশপাশের অনেকেই জানতেন। এছাড়া সম্প্রতি ওই ব্যক্তি বাইরে কোথাও যাননি। এমনকি ওই এলাকাতে প্রবাস বা ঢাকা থেকেও কেউ আসেননি। কিন্তু করোনা আতঙ্কে সাধারণ মানুষ ঘাবড়ে যান।

সিভিল সার্জন জাহিদ নজরুল চৌধুরী গত রোববার (২৯ মার্চ) বিকেলে বলেন, নবী ৪/৫ বছর যাবত হৃদরোগ ও সিওপিডি (বক্ষব্যধী-ক্রনিক অবস্ট্রাক্টিভ পালমোনারি ডিজিজ) রোগে ভূগছিলেন। সিওপিডির কারণে শা¦সকষ্ট ও জ্বর হতে পারে। গত ৪ মার্চ তিনি রাজশাহী মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে এ রোগের চিকিৎসা নেন। সেখানে তাকে একজন মেডিসিন বিশেষজ্ঞ দেখাতে বলা হয়। কিন্তু তিনি তা না করে স্থানীয়ভাবে ঔষুধ সেবন করছিলেন।

গত শনিবার নবীর অসুখ বৃদ্ধি পেলে পরিবারের সদস্যরা রাজশাহী মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে কর্তব্যরত তাদের স্বজন একজন চিকিৎসকের সাথে যোগাযোগ করেন। ওই চিকিৎসক রোগিকে রাজশাহী নিয়ে আসার পরামর্শ দেন। পরিবারের সদস্যরা আ্যাম্বুলেন্স ডেকে রোগিকে ওঠানোর সময় তার মৃত্যু হয়।

সিভিল সার্জন বলেন,জটিলতা শুরু হয় দাফনের জন্য মরদেহের গোসল দেয়ার সময়। যিনি গোসল দেন, তিনি করোনা সন্দেহে মরদেহের গোসল দিতে অপরাগতা প্রকাশ করলে গ্রামে আতংক বেড়ে যায়। গুটি কয়েক আত্মীয় ছাড়া গ্রামবাসীরা ওই বাড়ি এড়িয়ে চলতে শুরু করেন।

ঘটনার খবর পেয়ে ওই রাতেই সিভিল সার্জন ঘটনাস্থলে ছুটে যান। ইউএনও, উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ও শিবগঞ্জ থানার ওসিও একই সময় ঘটনাস্থলে পৌঁছে গভীর রাত পর্যন্ত গ্রামবাসীকে বোঝান। তারা মৃত্যুর ঘটনাটি নিয়ে স্থানীয় সাংসদ(যিনি পেশায় চিকিৎসক) এর সাথে ও ঢাকায় আইইডিসিআর-এ কথা বলেন। আইইডিসিআর গোলাম নবীর করোনায় মৃুত্যুর বিষয়টি নাকচ করে।

সিভিল সার্জন ও প্রশাসন গ্রামবাসীকে বোঝানোর পর গত রোববার সকালে গোলাম নবীর দাফন সম্পন্ন হয়।

পূর্বপশ্চিমবিডি/আরএইচ

শিবগঞ্জ,করোনা
মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন

সারাদেশ

অনুসন্ধান করুন
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
close