• শনিবার, ০৪ এপ্রিল ২০২০, ২১ চৈত্র ১৪২৬
  • ||
শিরোনাম

মুজিববর্ষে ৪০ হাজার তরুণকে প্রশিক্ষণ দেওয়া হবে: পলক

প্রকাশ:  ২৯ ফেব্রুয়ারি ২০২০, ১৭:৫৯ | আপডেট : ২৯ ফেব্রুয়ারি ২০২০, ১৮:১০
পঞ্চগড় প্রতিনিধি
ফাইল ছবি

তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক বলেছেন, মুজিববর্ষে জাতির জনক বঙ্গবন্ধুর সোনার বাংলা গড়ার লক্ষ্যে প্রযুক্তিনির্ভর বাংলাদেশের স্বপ্ন বাস্তবায়নে ৪০ হাজার ৫০০ জনকে আইসিটি লার্নিংয়ে প্রশিক্ষণ দেওয়া হবে। শনিবার (২৯ ফেব্রুয়ারি) দুপুরে পঞ্চগড়ের দেবীগঞ্জে নৃপেন্দ্র নারায়ণ সরকারি উচ্চ বিদ্যালয়ের দক্ষিণে হাইটেক পার্কের প্রস্তাবিত এক একর জায়গা পরিদর্শন শেষে এক আলোচনা সভায় প্রধান অথিতির বক্তব্যে প্রতিমন্ত্রী এসব কথা বলেন।

প্রতিমন্ত্রী বলেন, গত তিন বছরে বাংলাদেশে ১১টি ম্যানুফ্যাকচারিং এবং অ্যাসেম্বলিং প্ল্যান্ট স্থাপিত হয়েছে। প্রতি বছর চার কোটি মোবাইল, ১০ লাখ ল্যাপটপ আমদানি করে, লার্নিং অ্যান্ড আর্নিং প্রজেক্টের মাধ্যমে মুজিববর্ষে ৪০ হাজার শিক্ষিত বেকারকে প্রশিক্ষণ দিয়ে দক্ষ করে গড়ে তোলা হবে। তারা যেন প্রযুক্তি ব্যবহার করে ঘরে বসেই আত্মকর্মসংস্থানের সুযোগ পায়।

তিনি বলেন, মুজিববর্ষে লক্ষাধিক তরুণ-তরুণীদের জন্য কর্মসংস্থান করা হবে। এটি ধরা হয়েছে, ২০২০ সালের ২৬ মার্চ থেকে ২০২১ সালের ২৬ মার্চ পর্যন্ত। কর্মসংস্থানের সুযোগ সৃষ্টির জন্য শিক্ষিত তরুণ-তরুণীদের ব্যাপক কারিগরি প্রশিক্ষণ গ্রহণ করতে হবে।

দেবীগঞ্জে হাইটেক পার্কের জায়গা পরিদর্শন করলেন তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী। ছবি: পূর্বপশ্চিম

পলক আরও বলেন, বাংলাদেশ ২০০৮ সালের ১২ ডিসেম্বর ডিজিটাল যুগে প্রবেশ করেছে। আমাদের এখনকার প্রজন্মকে আইসিটি বিষয়ে ব্যাপক দক্ষ হতে হবে। এ জন্য সরকার সারাদেশে ব্যাপক আইসিটি বিষয়ের উপর প্রশিক্ষণ চালু করেছে। প্রশিক্ষণ গ্রহণ করে শিক্ষিত তরুণেরা যাতে চাকরির সুযোগ পায় সে লক্ষ্যে পঞ্চগড়ের দেবীগঞ্জে এক একর জমির উপর ১০০ কোটি টাকা ব্যয়ে শেখ কামাল আইটি পার্ক ও ট্রেনিং কাম ইনকিউবেশন সেন্টার নির্মাণ করা হবে।

সারাদেশে জেলার পরিসংখ্যানে পঞ্চগড়কে এক থেকে গণনা করা হয়। সে হিসেবে পঞ্চগড়কে ১ নম্বর ডিজিটাল জেলা করা হবে। বঙ্গবন্ধু বলেছেন, সোনার বাংলা গড়তে হলে সোনার মানুষ হতে হবে। বাংলাদেশ সরকারের মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বাংলাদেশকে বঙ্গবন্ধুর আর্দশের সোনার বাংলা গড়ার প্রত্যয় নিয়ে কাজ করে যাচ্ছে। দুঃখী ও মেহনতী মানুষের মুখে হাসি ফুটানোর যে স্বপ্ন বঙ্গবন্ধু দেখতেন তা বাস্তবায়নে সরকার বদ্ধ পরিকর, যোগ করেন প্রতিমন্ত্রী।

অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন উপজেলা নির্বাহী অফিসার প্রত্যয় হাসান। অন্যদের মধ্যে বক্তব্য দেন উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আব্দুল মালেক চিশতী, দেবীগঞ্জ উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি গিয়াস উদ্দীন চৌধুরী, সাধারণ সম্পাদক হাসনাৎ জামান চৌধুরী জর্জ প্রমুখ।


পূর্বপশ্চিমবিডি/এনএসএম/কেএম

মুজিববর্ষ,প্রশিক্ষণ,পলক,পঞ্চগড়
মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন

সারাদেশ

অনুসন্ধান করুন
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
close