• রোববার, ০৫ এপ্রিল ২০২০, ২২ চৈত্র ১৪২৬
  • ||

মণিরামপুরে প্রকাশ্যে ওয়ারেন্টভুক্ত আসামিদের তালিকা

প্রকাশ:  ২৬ ফেব্রুয়ারি ২০২০, ২১:২৭
মণিরামপুর (যশোর) প্রতিনিধি

যশোরের নবাগত পুলিশ সুপার মুহাম্মদ আশরাফ হোসেনের উদ্যোগে মণিরামপুরে পুলিশিং সেবায় স্বচ্ছতা ফিরছে। নবাগত এসপির উদ্যোগে মণিরামপুরে উন্মুক্ত হলো ওয়ারেন্টভুক্ত আসামিদের তালিকা। মঙ্গলবার (২৫ ফেব্রুয়ারি) থেকে উপজেলার প্রতিটি ইউনয়ন পরিষদ চত্বরের নোটিশ বোর্ডে সংশ্লিষ্ট ইউনিয়নের ওয়ারেন্টভুক্ত আসামিদের তালিকা টানিয়ে দিচ্ছে পুলিশ।

বুধবার (২৬ ফেব্রুয়ারি) দুপুরে রোহিতা ইউপি চত্বরে ওই ইউনিয়নের ৬০ জন ওয়ারেন্টভুক্ত আসামির তালিকা টানিয়ে দেন খেদাপাড়া ক্যাম্প পুলিশের ইনচার্জ এসআই সালাউদ্দিন মিন্টু। এসময় সংশ্লিষ্ট ইউপি সচিব কৃষ্ণ গোপাল মুখার্জীসহ ইউপি সদস্যরা উপস্থিত ছিলেন।

এরআগে নবাগত পুলিশ সুপারের নির্দেশে থানায় সেবা নিতে আসা জনগণকে সেবার পাশাপাশি চকলেট দিয়ে আপ্যায়নের মাধ্যমে আলোচনায় আসে মণিরামপুর থানা পুলিশ।

এসআই সালাউদ্দিন বলেন, ওসি স্যারের নির্দেশে রোহিতা ও খেদাপাড়া ইউপি পরিষদের নোটিশ বোর্ডে স্ব-স্ব ইউনিয়নের ওযারেন্টভুক্ত পলাতক আসামিদের তালিকা টানিয়ে দেওয়া হয়েছে। তালিকা দেখে আসামিদের আদালতে আত্মসমর্পন করতে বলার জন্য দুই ইউনিয়নের প্রতিটি ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য ও গ্রাম পুলিশদের অনুরোধ করা হয়েছে। নতুন আসা আসামিদের নামও পর্যায়ক্রমে এই তালিকার সাথে যুক্ত হবে বলে জানান তিনি।

এদিকে পুলিশের এমন উদ্যোগের বিষয়টিকে ইতিবাচক বলছেন রোহিতা ইউপি সচিব, ইউপি সদস্যরাসহ অনেকেই।

তালিকা টানানোর সময় পরিষদে উপস্থিত থাকা লোকজন বলেন, আগে কেউ জানত না কার কার নামে মামলার ওয়ারেন্ট আছে। হঠাৎ করেই রাতের আধারে এসে পুলিশ লোকজনকে ধরে নিয়ে যেত। পরে আসামিসহ তার স্বজনরা জানত যে সে ওয়ারেন্টভুক্ত পলাতক আসামি। আবার অনেক সময় পুলিশ ওয়ারেন্টমূলে তুলে নিলেও পরে আসামি নতুন মামলায় জড়িয়ে যেত। এখন তালিকা উন্মুক্ত হওয়ায় কাউকে আর পুলিশ ধরা লাগবে না। আসামিরা নিজে যেয়ে আদালতে হাজিরা দিতে পারবে।

ইউপি সচিব কৃষ্ণ গোপাল মুখার্জী বলেন, এটি ভাল উদ্যোগ। পুলিশের এই উদ্যোগে জনগণের হয়রানি কমবে।

মণিরামপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) রফিকুল ইসলাম বলেন, জিআর ও সিআর মামলায় এবং সাজাপ্রাপ্ত প্রায় দুই হাজার ৬০০ আসামির বিরুদ্ধে এই থানায় ওয়ারেন্ট রয়েছে। এসপি স্যারের নির্দেশে দু’দিন ধরে থানা এলাকার প্রতিটি ইউনিয়ন পরিষদের বোর্ডে সংশ্লিষ্ট এলাকার ওয়ারেন্টভুক্ত আসামিদের তালিকা টানানো হচ্ছে। অনেক সাজাপ্রাপ্ত আসামি পুলিশের চোখ ফাঁকি দিয়ে এলাকায় ঘুরে বেড়ায়। আবার অনেকেই জানেন না তার নামে ওয়ারেন্ট আছে। উন্মুক্ত এই তালিকার ফলে স্থানীয়রা আসামিদের খবর পুলিশকে জানিয়ে সহযোগিতা করতে পারবেন। আবার যারা ওয়ারেন্টের বিষয়টি জানতেন না তারা তালিকার মাধ্যমে খবর পেয়ে আদালতে হাজিরা দিয়ে জামিন পেতে পারবেন।


পূর্বপশ্চিমবিডি/এএম

যশোর,মনিরামপুর,ওয়ারেন্টভূক্ত আসামি
মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন

সারাদেশ

অনুসন্ধান করুন
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
close