• মঙ্গলবার, ৩১ মার্চ ২০২০, ১৭ চৈত্র ১৪২৬
  • ||

শিক্ষকের বিরুদ্ধে শিক্ষার্থীকে যৌন হয়রানির অভিযোগ

প্রকাশ:  ১৯ ফেব্রুয়ারি ২০২০, ১৬:৫৮ | আপডেট : ১৯ ফেব্রুয়ারি ২০২০, ১৭:০৯
রংপুর প্রতিনিধি

রংপুরের বদরগঞ্জ থানায় অরুন্নেছা স্কুল অ্যান্ড কলেজের সহকারী শিক্ষক সেলিম শাহ’র বিরুদ্ধে যৌন হয়রানির অভিযোগ উঠেছে। মঙ্গলবার (১৮ ফেব্রুয়ারি) বদরগঞ্জ থানায় ওই অভিযোগ করেন অষ্টম শ্রেণির এক শিক্ষার্থীর বড়ভাই। সূত্রে জানা যায়, সেলিম শাহ অরুন্নেছা স্কুল অ্যান্ড কলেজের স্কুল শাখার বিজ্ঞান বিভাগের শিক্ষক। তার কাছে শিক্ষার্থীরা সব সময়ই প্রাইভেট পড়ে থাকেন। এ সুযোগকে কাজে লাগিয়ে তিনি নানা সময়ে শিক্ষার্থীদের যৌন হয়রানি করে থাকেন। এরই ধারাবাহিকতায় তিনি অষ্টম শ্রেণির ওই শিক্ষার্থীকে কু-প্রস্তাব দেন। কিন্তু ওই শিক্ষার্থী তার প্রস্তাবে রাজি না হলে শিক্ষক সেলিম ওই শিক্ষার্থীর মোবাইল ফোনে নোংরা ভাষায় বিভিন্ন বার্তা পাঠাতে থাকেন। ফলে ওই শিক্ষার্থী বিষয়টি পরিবারের লোকজনকে জানাতে বাধ্য হন।

পরিবারের সদস্যরা বিষয়টি নিয়ে নানা জনের সাথে কথা বলে অবশেষে থানায় অভিযোগ করার সিদ্ধান্ত নেন। ওই শিক্ষার্থীর বড়ভাই শিক্ষক সেলিম শাহ’র বিরুদ্ধে থানায় বোনকে যৌন হয়রানির লিখিত অভিযোগ করেন।

বদরগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) হাবিবুর রহমান হাওলাদার অভিযোগ প্রাপ্তির কথা স্বীকার করে বলেন, বিষয়টি তদন্তাধীন রয়েছে। তাই এবিষয়ে এখনই মন্তব্য করা সঠিক হবেনা বলে মনে করেন তিনি।

অরুন্নেছা স্কুল অ্যান্ড কলেজের ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষক আহম্মেদ হোসেন বলেন, এখন পর্যন্ত অভিভাবকের পক্ষ থেকে কেউ কিছু বলেনি। তবে লোকমুখে ঘটনাটি শুনেছি। ঘটনা সত্য হলে সহকারী শিক্ষক সেলিম শাহ’র দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি হওয়ায় উচিত বলে মনে করেন তিনি।

শিক্ষার্থীর মা বলেন, বিষয়টি ধামাচাপা দিতে কুতুবপুর ইউপি চেয়ারম্যান নানাভাবে প্রভাব সৃষ্টি করেছেন। কিন্তু আমরা পারিবারিকভাবে সিদ্ধান্ত নিয়েছি মেয়েকে প্রয়োজনে মাদরাসায় পাঠাবো তবুও শিক্ষক সেলিম শাহ’র দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি চাই।

এদিকে কুতুবপুর ইউপি চেয়ারম্যান আতিয়ার রহমান দুলু অভিযোগ অস্বীকার করলেও এবিষয়ে কোন মন্তব্য করতে রাজি হননি তিনি।


পূর্বপশ্চিমবিডি/এএম

রংপুর,ছাত্রী যৌন হয়রানি,শিক্ষক
মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন

সারাদেশ

অনুসন্ধান করুন
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
close