• শনিবার, ০৪ এপ্রিল ২০২০, ২১ চৈত্র ১৪২৬
  • ||

ফিল্মি স্টাইলে জুয়াড়িকে তুলে এনে টর্চার, ৩ যুবক কারাগারে

প্রকাশ:  ১৭ ফেব্রুয়ারি ২০২০, ২৩:১৯
নারায়ণগঞ্জ প্রতিনিধি
গ্রেফতার তিন যুবক। ছবি: পূর্বপশ্চিম

নারায়ণগঞ্জে দশ লাখ টাকা চাঁদার দাবিতে শহরের চিহ্নিত জুয়াড়ি বড় শাজাহানকে তুলে নিয়ে কথিত টর্চার সেলে নির্যাতনের ঘটনায় আটজনকে আসামি করে মামলা দায়ের করা হয়েছে। এ ঘটনায় রোববার রাতে গ্রেফতারকৃত তিন যুবককেও এই মামলায় আসামি করে জেলহাজতে পাঠানো হয়েছে। সোমবার (১৭ ফেব্রুয়ারি) দুপুরে অপহরণ ও নির্যাতনের শিকার শাজাহান বাদি হয়ে নারায়ণগঞ্জ সদর মডেল থানায় মামলা দায়ের করেন।

মামলায় আটক তিনজনকে গ্রেফতার দেখিয়ে ৭ দিনের রিমান্ড চেয়ে আদালতে প্রেরণ করেছে পুলিশ। পরে রিমান্ড শুনানি মঙ্গলবার ধার্য রেখে তাদেরকে কারাগারে প্রেরণ করা হয়েছে বলে নিশ্চিত করেছেন কোর্ট পুলিশের পরিদর্শক মো. আসাদুজ্জামান।

গ্রেফতারকৃতরা হলেন, পাইকপাড়া পুল এলাকার আলাউদ্দিনের ছেলে মো. সানি (২৮), ২১৭ নং বিবি রোডের মৃত নাছির আহম্মেদের ছেলে মো. হানিফ নাঈম (৩০) এবং দেওভোগ আখড়া দিঘির পাড় এলাকার বাবল বিশ্বাসের ছেলে শ্রী রতন বিশ্বাস (২৯)।

মামলা দায়েরের সত্যতা নিশ্চিত করে সদর মডেল থানা পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) জয়নাল আবেদীন জানান, শাজাহান তার মামলায় দাবি করেছেন, তাকে হোন্ডায় তুলে নিয়ে যায় এবং একটি নির্মাণাধিন বাড়িতে আটকে রেখে দশ লাখ টাকার চাঁদা দাবিতে মারধর করা হয়। এ ঘটনায় আটক তিনজনকে গ্রেফতার দেখিয়ে আদালতে প্রেরণ করা হয়েছে।

এদিকে একটি সূত্র জানায়, গ্রেফতার ওই তিন যুবক শহরের মধ্যে নিজেদেরকে ছাত্রলীগের কর্মী এবং একজন এমপি পুত্রের লোক হিসেবে পরিচয় দিয়ে থাকে। তবে ছাত্রলীগে এদের কোনো পদপদবী নেই বলে অপর একটি সূত্রে জানা গেছে।

অপহরণ ও চাঁদাবাজির মামলায় গ্রেফতারকৃত এই তিন যুবক ছাত্রলীগের কর্মী কিনা জানতে চাইলে নারায়ণগঞ্জ মহানগর ছাত্রলীগের সভাপতি হাবিবুর রহমান রিয়াদ পূর্বপশ্চিমকে বলেন, এরা ছাত্রলীগের কেউ না। ছাত্রলীগের সাথে এদের কারো কোন সম্পৃক্ততা নেই।

তিনি বলেন, ছাত্রলীগে কোন সন্ত্রাসী বা চাঁদাবাজের স্থান নেই। ছাত্রলীগের কর্মী বলে পরিচয় দিয়ে কেউ অন্যায় অপরাধ করলে তাদেরকে সরাসরি আইনের হাতে তুলে দেয়ার আহবান জানান রিয়াদ।

প্রসঙ্গত, ১৬ ফেব্রুয়ারী সন্ধ্যা সাড়ে ছয়টার দিকে শহরের বাস টার্মিনাল থেকে জুয়াড়ি বড় শাজাহানকে পাঁচটি মোটর বাইকেযোগে প্রায় দশজন যুবক তুলে নিয়ে আসে। পরে শহরের চাষাড়ায় বংগবন্ধু সড়কে হক প্লাজার উত্তর পাশে একটি নির্মাণাধিন ভবনে তাকে তিনঘন্টা আটকে রেখে দশ লাখ টাকা চাঁদা দাবিতে নির্যাতন চালানো হয়। পরে খবর পেয়ে পুলিশ ও র্যা ব রাত ৯ টার দিকে অভিযান চালিয়ে অপহৃত শাহজাহানকে উদ্ধারসহ ওই তিন যুবককে আটক করে।


পূর্বপশ্চিমবিডি/এসএএস/কেএম

নারায়গঞ্জ,কারাগার,১০ কোটি টাকা,জুয়াডি
মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন

সারাদেশ

অনুসন্ধান করুন
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
close