• রোববার, ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২০, ১২ আশ্বিন ১৪২৭
  • ||

দেশ গড়ায় ক্যাডেটদের অগ্রণী ভূমিকা রাখতে হবে: সেনাপ্রধান

প্রকাশ:  ২৪ জানুয়ারি ২০২০, ২১:৫৭
মির্জাপুর (টাঙ্গাইল) প্রতিনিধি

দেশ গড়ায় ক্যাডেটদের অগ্রণী ভূমিকা পালনের আহ্বান জানিয়েছেন সেনাবাহিনী প্রধান জেনারেল আজিজ আহমেদ। শুক্রবার (২৪ জানুয়ারি) মির্জাপুর ক্যাডেট কলেজের প্রাক্তন ক্যাডেটদের তিন দিনব্যাপী ১৩তম পুনর্মিলনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় তিনি এ আহ্বান জানান। আজ ছিল পুনর্মিলনীর দ্বিতীয় দিন। মির্জাপুর এক্স ক্যাডেট অ্যাসোসিয়েশন এ পুনর্মিলনী অনুষ্ঠানের আয়োজন করে।

এ দিন সকাল ১১টা ২০ মিনিটের দিকে সেনাপ্রধান হেলিকপ্টারযোগে ক্যাডেট কলেজের পাশ্ববর্তী স্কয়ার ফার্মাসিটিক্যালের হেলিপ্যাডে অবতরণ করেন। পরে সেখান থেকে তিনি সেনাবাহিনীর পাজেরো জিপযোগে ক্যাডেট কলেজে এসে পৌঁছান। সেখানে তাকে অভ্যর্থনা জানান ৯ পদাতিক ডিভিশন ও সাভার এরিয়া কমান্ডার জিওসি মেজর জেনারেল মো. আকবর হোসেন, কলেজ অধ্যক্ষ বিমান রায় চৌধুরী, মির্জাপুর এক্স ক্যাডেট অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি ব্রিগ্রেডিয়ার (অব.) সুলতান উদ্দিন ইকবাল ও অন্যান্য অতিথিবৃন্দ। এরপর সেনাপ্রধান অতিথি মির্জাপুর ক্যাডেট কলেজের প্রাক্তন ক্যাডেটদের পুনর্মিলনী অনুষ্ঠানের উদ্বোধন করেন এবং প্যারেডে সালাম গ্রহণ করেন।

সম্পর্কিত খবর

    এ সময় তিনি প্যারেডে অংশগ্রহণকারী ক্যাডেট ও প্রাক্তন ক্যাডেটদের উদ্দেশ্যে বক্তৃতা করেন। বক্তব্যে তিনি ক্যাডেটদের সফলতা ও উত্তরোত্তর সমৃদ্ধি কামনা করে বলেন, প্রাক্তনদের অনুসরণ করে নতুন ক্যাডেটদের দেশ গড়ায় অগ্রণী ভূমিকা পালন করতে হবে। এরপর তিনি ক্যাডেটদের দ্বারা বর্ণাঢ্য চিত্র প্রদর্শনী ও বিজ্ঞান মেলার শুভ উদ্বোধন করেন। পরে প্রধান অতিথি ও প্রাক্তন ক্যাডেটরা পুনর্মিলনীর স্মৃতি রক্ষার্থে কলেজের শহীদ মিনার এলাকায় বৃক্ষরোপণ করেন।

    বর্তমান ও প্রাক্তন ছাত্রদের পদচারনায় কলেজ ক্যাম্পাস মুখরিত হয়ে উঠে। সন্ধ্যার পর মনোজ্ঞ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। অনুষ্ঠানে স্থানীয় বিশিষ্ট ব্যক্তিবর্গসহ প্রাক্তন অধ্যক্ষ, উপাধ্যক্ষ ও অনুষদ সদস্যরা উপস্থিত ছিলেন।

    পুনর্মিলনী অনুষ্ঠানে যোগ দিতে আসা মির্জাপুর ক্যাডেট কলেজের ১৩তম ব্যাচের ছাত্র রাশিয়া প্রবাসী ড. মজিবর রহমান বলেন, এই পুনর্মিলনী আমার কাছে ব্যাপক আনন্দের। সেই ১৯৮১ সালে এই প্রতিষ্ঠান থেকে লেখাপড়া শেষ করে বের হয়ে যাওয়ার পর আবার সবার সাথে দেখা হওয়ার এটাই ছিলো সুবর্ণ সুযোগ। তাই সেই রাশিয়া থেকে এই অনুষ্ঠানে যোগ দিতে বাংলাদেশে এসেছি।

    আরেক প্রাক্তন ছাত্র ও রাজউক উত্তরা মডেল কলেজের ভাইস প্রিন্সিপাল মো. আমিনুর রহমান খান বলেন, আমি মির্জাপুরের সন্তান। ঢাকা যাওয়া আসার পথে অপলক দৃষ্টিতে মির্জাপুর ক্যাডেট কলেজের দিকে তাকিয়ে থাকি। অনেক স্মৃতি। এই পুনর্মিলনী অনুষ্ঠানের মাধ্যমে সবার সাথে দেখা হয়ে অনেক ভাল লাগছে।

    প্রাক্তন ছাত্র ও সুইডেন প্রবাসী গোলাম মাওলা খান বলেন, আমি সুইডেনে থাকলেও ক্যাডেট কলেজে অতিবাহিত করা দিনগুলো সবসময় মনে পড়ে। পুনর্মিলনী অনুষ্ঠানে যোগ দিয়ে সবার সাথে দেখা হচ্ছে। অনেক ভাল লাগছে। মনটা সতেজ হয়ে যাচ্ছে।

    মির্জাপুর এক্স ক্যাডেট’স এসোসিয়েসনের সভাপতি সাবেক বিগ্রেডিয়ার জেনারেল সুলতান উদ্দিন বলেন, এমন একটি অনুষ্ঠানের আয়োজন করতে পেরে নিজেকে ধন্য মনে করছি। ক্যাডেট কলেজকে এমন মিলন মেলায় পরিণত হতে দেখে ভীষণ রকম স্বস্তি পাই।

    বৃহস্পতিবার থেকে তিন দিনব্যাপী মির্জাপুর ক্যাডেট কলেজের প্রাক্তন ক্যাডেটদের পুনর্মিলনী শুরু হয়েছে। এদিন প্রাক্তন ক্যাডেটবৃন্দ কলেজে উপস্থিত হতে শুরু করলে এক আবেগঘন পরিবেশের সৃষ্টি হয়। সন্ধ্যায় বর্তমান ও প্রাক্তন ক্যাডেটবৃন্দের অংশগ্রহণে সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান ও আতশবাজির আয়োজন করা হয়। শনিবার দিনভর নানা অনুষ্ঠানের মধ্যদিয়ে তিন দিনব্যাপী পুনমিলনী অনুষ্ঠানের সমাপ্তি হবে।

    পূর্বপশ্চিমবিডি/এসএস

    মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন
    cdbl

    সারাদেশ

    অনুসন্ধান করুন
    • সর্বশেষ
    • সর্বাধিক পঠিত
    close