• মঙ্গলবার, ২৮ জানুয়ারি ২০২০, ১৪ মাঘ ১৪২৬
  • ||

নলছিটি ইউএনও’র অফিস-বাসভবনে বর্ণিল আলোকসজ্জা, ক্ষোভ প্রকাশ

প্রকাশ:  ১৪ ডিসেম্বর ২০১৯, ২৩:৫৯ | আপডেট : ১৫ ডিসেম্বর ২০১৯, ০০:০৪
বরিশাল প্রতিনিধি
ছবি: নলছিটি ইউএনও’র অফিস-বাসভবনে বর্ণিল আলোকসজ্জা

শহীদ বুদ্ধিজীবী দিবসে জাতির শ্রেষ্ঠ সন্তানদের প্রতি শ্রদ্ধা জানাতে কোনো আলোকসজ্জা না করার সরকারি সিদ্ধান্ত না মেনে নলছিটি উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার (ইউএনও) কার্যালয় ও বাসভবনে বর্ণিল আলোকসজ্জা করা হয়। এতে ক্ষোভ প্রকাশ করেছে বিভিন্ন রাজনৈতিক দল, মানবাধিকার ও সামাজিক সংগঠনের নেতাকর্মীরা।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানায়, শনিবার (১৪ ডিসেম্বর) সন্ধ্যার পরপরই তারা নলছিটি উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) রুম্পা সিকদারের কার্যালয় ও বাসভবনে আলোকসজ্জা দেখতে পান। শহীদ বুদ্ধিজীবী দিবসে আলোকসজ্জা দেখে তারা স্থানীয় সংবাদকর্মীদের জানান। পরবর্তীতে সংবাদকর্মীরা আলোকসজ্জার বিষয়টি ঝালকাঠির জেলা প্রশাসক মো. জোহর আলীর নজরে আনলে তাৎক্ষণিক তিনি আলোকসজ্জা বন্ধ করতে নলছিটির ইউএনওকে নির্দেশনা দেন। এরপরই বন্ধ করা হয় আলোকসজ্জা।

এ ঘটনায় ক্ষোভ প্রকাশ করে উপজেলার একাধিক মুক্তিযোদ্ধা বলেন, ১৯৭১ সালের ১৪ ডিসেম্বর দখলদার পাকিস্তানি হানাদার বাহিনী ও তার দোসর রাজাকার, আল-বদর, আল-শামস বাংলার শ্রেষ্ঠ সন্তান বুদ্ধিজীবীদের হত্যা করে। সরকার তাদের প্রতি শ্রদ্ধা জানাতে এ দিনে কোনো আলোকসজ্জা না করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে। এরপরও ইউএনও’র কার্যালয় ও বাসভবনে আলোকসজ্জা, এটা কোনোভাবে মেনে নেওয়া যায় না।

নলছিটি উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) রুম্পা সিকদার বলেন, আলোকসজ্জার দায়িত্ব থাকা লোকজন ভুলক্রমে এটি করেছিল। আমি জানার পর তা বন্ধ করে দিয়েছি। তবে বুদ্ধীজীবী দিবসের মত র্স্পশকাতর বিষয়ে কেন ভুল করার সুযোগ রয়েছে কিনা জানতে চাইলে তিনি কোন সদুত্তর দিতে পারেননি।

ঝালকাঠির জেলা প্রশাসক মো. জোহর আলী বলেন, এটা তো হওয়ার কথা নয়। শহীদ বুদ্ধিজীবী দিবসে আলোকসজ্জা না করতে সংশ্লিষ্ট সবাইকে নির্দেশনা দেয়া হয়েছে। এরপরও ভুলক্রমে হয়ে থাকলে আলোকসজ্জা বন্ধ করা হবে।

পূর্বপশ্চিমবিডি /জিএম

নলছিটি উপজেলা,নির্বাহী কর্মকর্তা,আলোকসজ্জা,বাসভবন,শহীদ বুদ্ধিজীবী দিবস
মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন

সারাদেশ

অনুসন্ধান করুন
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত