• সোমবার, ০৬ জুলাই ২০২০, ২২ আষাঢ় ১৪২৭
  • ||

গণশিক্ষা কেন্দ্রে পড়তে গিয়ে ৫ বছরের শিশু ধর্ষণের শিকার

প্রকাশ:  ০৪ অক্টোবর ২০১৯, ০০:৪৭
জামালপুর প্রতিনিধি

মসজিদ ভিত্তিক শিশু ও গণশিক্ষা কেন্দ্রে পড়তে গিয়ে ধর্ষিত হয়েছে ৫ বছরের এক শিশু। মসজিদ ভিত্তিক শিশু ও গণশিক্ষা কার্যক্রমের শিক্ষক মনিরুল ইসলাম (৪০) গণশিক্ষা কেন্দ্রেই শিশুটিকে ধর্ষণ করেছে বলে অভিযোগ উঠে। ৩ সন্তানের জনক মনির হোসেন দেওয়ানগঞ্জ উপজেলার বাহাদুরাবাদ ইউনিয়নের ভাংগার গ্রামের শুক্কুর আলীর পুত্র।

বুধবার (২ অক্টোবর) সকালে দেওয়ানগঞ্জ উপজেলার বাহাদুরাবাদ ইউনিয়নের ভাংগার গ্রাম জামে মসজিদে মসজিদ ভিত্তিক শিশু ও গণশিক্ষা কেন্দে এ ঘটনা ঘটে।জামালপুর জেনারেল হাসপাতালের আবাসিক মেডিকেল অফিসার (আরএমও) ডাঃ শফিকুজ্জামান জানান, শিশুটি বুধবার গভীররাতে ২৫০ শয্যার জামালপুর জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি হয়েছে। শিশুটির চিকিৎসা চলছে।

বাহাদুরাবাদ ইউনিয়নের ভাটির পাড়া গ্রামের ওই শিশুর মা ফাকায় গার্মেন্টেসে কাজ করেন। শিশুটি তার খালার কাছে থেকেই গণশিক্ষা কেন্দে পড়ে।

শিশুর খালা জানান, প্রতিদিনের মতো বুধবার সকাল ৯টায় ভাংগার গ্রাম জামে মসজিদে মসজিদ ভিত্তিক শিশু ও গণশিক্ষা কেন্দে পড়তে যায়। সেদিন কম ছাত্রছাত্রী ছিল। ওই শিশুকে রেখে অন্য ছাত্রছাত্রীদের গণশিক্ষা কেন্দ্রের পাশেই কামরাঙা ফল কুড়াতে পাঠায় শিক্ষক মনির। এই সুযোগে কেন্দ্রের ভেতরেই শিশুকে ধর্ষণ করে। শিশুটি বাড়িতে গেলে গোসল করানোর সময় তার কাপড়ে রক্তের দাগ দেখে ঘটনাটি বুঝতে পারে খালা। রক্তপাত বাড়তে থাকলে বুধবার রাত ১টায় জামালপুর জেনারেল হাসপাতালে তাকে ভর্তি করা হয়।

হাসপাতালের বেডে শুয়ে শিশুটি বলে, হুজুর আমারে দাদু দাদু বলে কোলে নিছে। আমি ব্যথা পাইছি।

দেওয়ানগঞ্জ থানার ওসি (তদন্ত) মুনিবুর রহমান এই প্রতিবেদককে জানান, এ ঘটনায় শিশুটির নানী সকিনা বাদী হয়ে বৃহস্পতিবার থানায় মামলা দায়ের করেছে। পুলিশ ধর্ষক মনিরকে গ্রেপ্তারের চেষ্টা চালাচ্ছে।

পূর্বপশ্চিমবিডি/জিএম

জামালপুর,দেওয়ানগঞ্জ উপজেলা,গণশিক্ষা কেন্দ্র,শিশু ধর্ষিত
মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন

সারাদেশ

অনুসন্ধান করুন
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
close