Most important heading here

Less important heading here

Some additional information here

Emphasized text
  • রবিবার, ২০ অক্টোবর ২০১৯, ৪ কার্তিক ১৪২৬
  • ||

মিষ্টির লোভ দেখিয়ে মাদরাসাছাত্রীকে ধর্ষণ, দপ্তরি গ্রেফতার

প্রকাশ:  ১৪ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ১৭:০৯ | আপডেট : ১৪ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ১৭:২৬
বগুড়া প্রতিনিধি
প্রিন্ট icon

বগুড়ার নন্দীগ্রাম উপজেলার থালতা মাজগ্রামের মাদরাসাছাত্রীকে (১০) ধর্ষণের অভিযোগে মাদরাসার দপ্তরীকে গ্রেফতার করেছে থানা পুলিশ।

গ্রেফতারকৃত দপ্তরী বাবলু গায়েন (৪৫) থালতামাজ গ্রামের আকবর আলী গায়েনের ছেলে।

নন্দীগ্রাম থানার কুমিড়া পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রের ইন্সপেক্টর আজিজার রহমান জানান, উপজেলার এস এম ফাজিল মাদরাসাছাত্রী শনিবার বেলা ১১টায় তার ক্লাসের কয়েকজন ছাত্রীর সাথে মাদরাসার পাশে একটি কমিউনিটি ক্লিনিকে ওষুধ নিতে যাচ্ছিল। এসময় ঐ ছাত্রীর সাথে তার মাদরাসার দপ্তরীর বাবলু গায়েন (৪৫) এর দেখা হয়। বাবলু গায়েন তাকে কমিউনিটি ক্লিনিকের পাশে তার বাড়িতে ডেকে নিয়ে যায়। বাবলুর ফাঁকা বাড়িতে তাকে ধর্ষণ করে। ঘটনাটি স্থানীয় লোকজন জানতে পেরে বাড়িটি ঘেরাও করে রাখে এবং তারা থানায় খবর দেয়। দুপুরে পুলিশ বাবলুর বাড়ি থেকে মাদরাসার ছাত্রীকে উদ্ধার করে এবং বাবলুকে গ্রেফতার করে।

জানা গেছে, বাবলু তার নাতীর জন্ম হওয়ার খবর জানিয়ে মিষ্টি খাওয়ানোর কথা শিশুটিকে বাড়ি ডেকে নিয়ে গিয়ে মিষ্টি খেতে দেয়। বাবলুর স্ত্রী ও ছেলের বউসহ সবাই হাসপাতালে থাকায় বাড়ি ফাকা ছিল। এই সুযোগে বাবলু শিশুটিকে ধর্ষণ করে বাড়িতেই আটকে রাখে।

নন্দীগ্রাম থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা শওকত কবির জানান, বাবলু গায়েনকে গ্রেফতার করে নন্দীগ্রাম থানায় আনা হয়েছে। এ ব্যাপারে থানায় মামলার প্রস্তুতি চলছে। মেয়েটিকে ডাক্তারি পরীক্ষার জন্য বগুড়া শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানোর প্রস্তুতি চলছে।

পূর্বপশ্চিমবিডি/অ-ভি

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন

সারাদেশ

অনুসন্ধান করুন
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত