• শুক্রবার, ১৫ নভেম্বর ২০১৯, ১ অগ্রহায়ণ ১৪২৬
  • ||

স্কুলছাত্রীকে আটকে রেখে ধর্ষণ করলেন গৃহশিক্ষক!

প্রকাশ:  ০৯ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ১৯:৩৪
পটুয়াখালী সংবাদদাতা
ধর্ষণে সহায়তাকারী আকলিমা বেগম

স্কুলছাত্রীকে তুলে নিয়ে আটকে রেখে ২০ দিন ধরে ধর্ষণ করেছে গৃহশিক্ষক।

খবর পেয়ে অভিযান চালিয়ে ধর্ষণে সহায়তাকারী আকলিমা বেগম (৪৫) নামে এক নারীকে গ্রেফতার করেছে র‍্যাব। সেই সঙ্গে স্কুলছাত্রীকে (১৩) উদ্ধার করা হয়েছে।

সোমবার (৯ সেপ্টেম্বর) সকাল ১০টার দিকে পটুয়াখালী শহরের সবুজবাগ এলাকায় অভিযান চালিয়ে স্কুলছাত্রীকে উদ্ধার ও ধর্ষকের সহযোগী আকলিমা বেগমকে গ্রেফতার করা হয়। তবে অভিযানের বিষয়টি টের পেয়ে গৃহশিক্ষক মাসুদ পালিয়ে যায়।

বিষয়টি নিশ্চিত করে পটুয়াখালী র‍্যাব-৮-এর ভারপ্রাপ্ত কোম্পানি কমান্ডার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মো. রইছ উদ্দিন বলেন, ২০ আগস্ট সকালে বিদ্যালয়ের উদ্দেশ্যে বাড়ি থেকে বের হয় আবদুল হাই বিদ্যানিকেতনের অষ্টম শ্রেণির ওই শিক্ষার্থী। পথিমধ্যে স্কুলছাত্রীকে অপহরণ করে নিয়ে যায় গৃহশিক্ষক মো. মাসুদ রানা শুভ (২৬) ও তার সহযোগী আকলিমা বেগম। অনেক খোঁজাখুঁজির পরও স্কুলছাত্রীকে না পেয়ে ২১ আগস্ট পটুয়াখালী সদর থানায় লিখিত অভিযোগ দেন ছাত্রীর মা। সেই সঙ্গে মেয়েকে উদ্ধারে র‍্যাবের সহযোগিতা চান তিনি।

অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মো. রইছ উদ্দিন আরও বলেন, ওই ছাত্রীকে তুলে নিয়ে অজ্ঞাত স্থানে আটকে রেখে ২০ দিন ধরে ধর্ষণ করছে গৃহশিক্ষক মাসুদ রানা। ধর্ষণে সহযোগিতা করেছে আকলিমা বেগম। সোমবার গোপন সংবাদের ভিত্তিতে শহরের সবুজবাগের মনু ফকিরের বাড়ির ভাড়াটিয়া আকলিমা বেগমের বাসায় অভিযান চালিয়ে ছাত্রীকে উদ্ধার করে র‍্যাব। সেই সঙ্গে আকলিমা বেগমকে গ্রেফতার করা হয়। এ সময় ধর্ষক মাসুদ রানা কৌশলে পালিয়ে যায়। পরে আকলিমা বেগমকে সদর থানায় হস্তান্তর করা হয়। পাশাপাশি স্কুলছাত্রীকে পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হয়।

পূর্বপশ্চিমবিডি/আরএইচ

পটুয়াখালী
মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন

সারাদেশ

অনুসন্ধান করুন
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত