Most important heading here

Less important heading here

Some additional information here

Emphasized text
  • শুক্রবার, ২০ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ৫ আশ্বিন ১৪২৬
  • ||

নুসরাত হত্যা মামলায় বাদি-তদন্তকারীকে জেরা 

প্রকাশ:  ০৯ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ১৪:৪৩ | আপডেট : ০৯ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ১৪:৫১
ফেনী প্রতিনিধি
প্রিন্ট icon

ফেনীর আলোচিত মাদরাসাছাত্রী নুসরাত জাহান রাফিকে আগুনে পুড়িয়ে হত্যার ঘটনায় দায়ের করা মামলায় সোমবার (৯ সেপ্টেম্বর) মামলার বাদি নুসরাতের বড় মাহমুদুল হাসান নোমান ও মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা শাহ আলমকে পুনরায় জেরা করছেন আসামি পক্ষের আইজীবীরা।

এর আগে তারা দুইজন আদালতে সাক্ষ্য দেয়ার পর আসামি পক্ষের আইনজীবীরা তাদেরকে জেরা করেছেন। রোববার পুনরায় জেরা করার আবেদন করলে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইবু্যুনালের বিচারক মামুনুর রশীদ জেরা করার অনুমতি দেন। এই মামলার সাক্ষ্যগ্রহণের আজ ৪৭ তম কার্যদিবস।

মামলার বাদি পক্ষের আইনজীবী শাহ জাহান সাজু বলেন, শাহ আলমের জেরা শেষ হওয়ার মধ্য দিয়ে আলোচিত এ মামলার সাক্ষ্যগ্রহণের কার্যক্রম শেষ হয়েছে। আজ মামলার বাদি ও তদন্তকারী কর্মকর্তার জেরা শেষে আসামিদের পরীক্ষা। তারপর যুক্তিতর্ক।

এর আগে গত ২৭ জুন মামলার বাদি ও প্রথম সাক্ষী নুসরাতের বড় ভাই মাহমুদুল হাসান নোমানের সাক্ষ্য গ্রহণ শুরু হয়। নুসরাতের মা শিরিন আখতার ও বাবা মাওলানা একেএম মুসা ও নুসরাতের ছোট ভাই রাশেদুল হাসান রায়হানসহ ৯২ জনের সাক্ষ্য ও জেরা শেষ হয়েছে।

চলতি বছরের ২৭ মার্চ সোনাগাজী ইসলামিয়া ফাজিল মাদরাসার আলিম পরীক্ষার্থী নুসরাত জাহান রাফিকে যৌন নিপীড়নের দায়ে মাদরাসার অধ্যক্ষ সিরাজ উদ দৌলাকে গ্রেফতার করে পুলিশ। ৬ এপ্রিল ওই মাদরাসা কেন্দ্রের সাইক্লোন শেল্টারের ছাদে নিয়ে অধ্যক্ষের সহযোগীরা নুসরাতের শরীরে আগুন ধরিয়ে দেয়। টানা পাঁচদিন মৃত্যুর সঙ্গে লড়ে ১০ এপ্রিল মারা যান নুসরাত জাহান রাফি। এ মামলায় ১৬ জনকে অভিযুক্ত করে গত ২৯ মে ফেনীর জুডিসিয়াল ম্যাজিষ্ট্রেট আদালতে চার্জশিট দাখিল করেছে মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা শাহ আলম।

পূর্বপশ্চিমবিডি/আরএইচ

ফেনী
মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন

সারাদেশ

অনুসন্ধান করুন
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত