Most important heading here

Less important heading here

Some additional information here

Emphasized text
  • শুক্রবার, ২৩ আগস্ট ২০১৯, ৮ ভাদ্র ১৪২৬
  • ||

নারায়ণগঞ্জে নারীসহ ৪ জনের লাশ উদ্ধার

প্রকাশ:  ২৩ জুলাই ২০১৯, ১৫:৩১
নারায়ণগঞ্জ প্রতিনিধি
প্রিন্ট icon

নারায়ণগঞ্জে পৃথক ঘটনায় একই দিনে নারীসহ চারজনের মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। মঙ্গলবার (২৩ জুলাই) সকালে নারায়ণগঞ্জের ফতুল্লা, আড়াইহাজার, বন্দর ও সিদ্ধিরগঞ্জ থেকে মরদেহগুলো উদ্ধার করা হয়। উদ্ধারের পর ময়নাতদন্তের জন্য মরদেহগুলো নারায়ণগঞ্জ জেনারেল হাসপাতালের মর্গে পাঠিয়েছে পুলিশ।

নিহতদের মধ্যে তিনজন হলেন- আড়াইহাজার উপজেলার মারওয়ার্দী গ্রামের মৃত আহেদ আলীর ছেলে সুরুজ মিয়া (৪০), বন্দর উপজেলার কাইতাখালি এলাকার মৃত সফিউদ্দুন টুক্কি শিকদারের ছেলে মিশন শিকদার (২৮), ফতুল্লার লালখাঁ এলাকার মৃত আব্দুল হামিদের মেয়ে শেফালী বেগম (৪২)। এছাড়া সিদ্ধিরগঞ্জ থেকে অজ্ঞাত এক যুবকের মরদেহ উদ্ধার করা হয়।

পুলিশ জানিয়েছে আজ সকালে আড়াইহাজারে জমি-সংক্রান্ত বিরোধের জের ধরে মারওয়ার্দী গ্রামে সুরুজ মিয়াকে প্রতিপক্ষের লোকজন পিটিয়ে আহত করে। পরে তাকে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নেওয়া হলে সেখানে কর্তব্যরত ডাক্তার মৃত ঘোষণা করেন।

এদিকে সোমবার (২২ জুলাই) দিবাগত রাত ২টার দিকে বন্দর উপজেলায় কাইতাখালি এলাকায় পূর্ব শত্রুতার জের ও টাকা পয়সার লেনদেন সংক্রান্ত বিরোধে মিশন নামে এক যুবককে হত্যা করা হয়েছে। এ ঘটনায় মিঠুসহ ৪ জনকে আটক করেছে পুলিশ।

বন্দর থানার পরিদর্শক (তদন্ত) আজহারুল ইসলাম জানান, পূর্ব শত্রুতার জের ও টাকা পয়সার লেনদেন নিয়ে তাকে হত্যা করা হয়েছে বলে পরিবারের পক্ষ থেকে অভিযোগ করা হয়েছে। এ ঘটনায় তিনজনকে আটক করা হয়েছে, তাদেরকে জিজ্ঞাসাবাদ চলছে। বাকিদের ধরতে অভিযান অব্যাহত রয়েছে।

অন্য দিকে ফতুল্লার লালখাঁ এলাকায় শেফালী বেগম নামে এক নারীর মৃতদেহ উদ্ধার করা হয়েছে। ফতুল্লা মডেল থানার পরিদর্শক (তদন্ত) হাসানুজ্জামান জানান, পরিবারের অভিযোগ তার মৃগী রোগ ছিল। যার কারণে পড়ে গিয়ে মারা গেছেন তিনি। তবে ঘটনাটি রহস্যজনক হওয়ায় মরদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য সদর জেনারেল হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। ময়নাতদন্তে মৃত্যুর প্রকৃত কারণ জানা যাবে।

আজ মঙ্গলবার সকালে সিদ্ধিরগঞ্জের মিজমিজি এলাকার মতিন সড়কে বসুন্ধরা কয়েল কারখানার পাশ থেকে অজ্ঞাত এক যুবকের (২৫) মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। তার শরীরের বিভিন্ন স্থানে আঘাতের চিহ্ন রয়েছে। পুলিশের ধারণা অন্য কোথাও তাকে মেরে মরদেহ ওই স্থানে ফেলে রেখে গেছে হত্যাকারীরা।

পূর্বপশ্চিমবিডি/পিএস

নারায়ণগঞ্জ
apps

সারাদেশ

অনুসন্ধান করুন
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত