• শুক্রবার, ১৫ নভেম্বর ২০১৯, ১ অগ্রহায়ণ ১৪২৬
  • ||

বিএসএফ’র গুলিতে নিহত বাংলাদেশির লাশ নদী থেকে উদ্ধার

প্রকাশ:  ৩০ মে ২০১৯, ১৮:৩৭
কুড়িগ্রাম প্রতিনিধি

কুড়িগ্রামের রৌমারী সীমান্তে বিএসএফ’র গুলিতে নিহত এক বাংলাদেশি গরু ব্যবসায়ী মাইদুল ইসলাম (২৫) এর লাশ নদী থেকে উদ্ধার করেছে পুলিশ।

বৃহস্পতিবার (৩০ মে) বিকেলে রৌমারী উপজেলার দাঁতভাঙ্গা ইউনিয়নের কাউয়ার চর গ্রাম এলাকায় জিঞ্জিরাম নদী তার লাশ উদ্ধার করা হয়।

এর আগে বুধবার (২৯ মে) রাত ৩টার দিকে রৌমারী উপজেলার পুর্বকানিয়ারচর সীমান্তের ১০৭৮ নম্বর আর্ন্তজাতিক সীমানা পিলারের নিকট বাংলাদেশি গরু ব্যবসায়ীরা ভারত থেকে গরু আনতে গেলে এ ঘটনা ঘটে।

বিএসএফ’র গুলিতে নিহত গরু ব্যবসায়ী মাইদুল ইসলাম দাঁতভাঙ্গা ইউনিয়নের দাঁতভাঙ্গা গ্রামের সাইজুদ্দিনের পুত্র।

এলাকাবাসী, পুলিশ ও বিজিবি সূত্রে জানা গেছে, ভারতের চোরাকারবারীদের সহায়তায় বাংলাদেশের ১০ থেকে ১২ জনের একটি দল পুর্বকানিয়ারচর সীমান্তের ১০৭৮ নম্বর আর্ন্তজাতিক পিলারের নিকট গরু আনতে যায়। এসময় ভারতের দিয়ারা ক্যাম্পের টহলরত বিএসএফ সদস্যরা বাংলাদেশি গরু ব্যবসায়ীদের লক্ষ্য করে গুলি ছুঁড়ে। এ ঘটনায় ৩ জন আহত হয়। এদের মধ্যে গুরুতর আহত মাইদুল ইসলামকে অন্যান্য সঙ্গিরা কাঁধে করে স্থানীয় এক পল্লী চিকিৎসকের বাড়িতে নিয়ে গেলে তিনি তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

এ পরিস্থিতিতে আইনি জটিলতা এড়াকে নিহত মাইদুলের লাশ তার সঙ্গিরা জিঞ্জিরাম নদীতে পানির নীচে লুকিয়ে রাখে এবং বৃহস্পতিবার ভোররাতে তার লাশ পানি থেকে উঠিয়ে সীমান্ত এলাকায় ফেলে আাসার চেষ্টা করে। কিন্তু বিষয়টি এলাকাবাসী টের পেলে গরু ব্যবসায়ীর লাশ আর নদী থেকে উঠাতে পারেননি তার সঙ্গি ব্যবসায়ীরা। পরে সকাল থেকে জাল ও হাজারী বড়শী দিয়ে স্থানীয়দের সহায়তায় মাইদুলের লাশ খুঁজতে থাকে পুলিশ ও বিজিবি।

বিকেলে হাজারী বড়শীতে লাশ আটকে গেলে নদী থেকে লাশ উদ্ধার করে পুলিশ।

৩৫ বিজিবি ব্যাটালিয়নের দাঁতভাঙ্গা বিওপি কমান্ডার আমিনুল ইসলাম ঘটনার সতত্য স্বীকার করে জানান, এ ঘটনায় পতাকা বৈঠকের মাধ্যমে বিএসএফ’র নিকট তীব্র প্রতিবাদ জানানো হয়েছে।

রৌমারী থানার অফিসার ইনচার্জ আবু মো: দিলওয়ার হাসান ইনাম বলেন, নদী থেকে বিএসএফ’র গুলিতে নিহত গরু ব্যবসায়ীর লাশ উদ্ধার করে থানায় আনা হয়েছে। ময়না তদন্তের জন্য মর্গে প্রেরণ করা হবে।

পিপিবিডি/অ-ভি

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন

সারাদেশ

অনুসন্ধান করুন
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত