Most important heading here

Less important heading here

Some additional information here

Emphasized text
  • সোমবার, ১৯ আগস্ট ২০১৯, ৪ ভাদ্র ১৪২৬
  • ||

জয়পুরহাটে ডায়রিয়ার প্রকোপ, হিমশিমে চিকিৎসকরা

প্রকাশ:  ১৫ মে ২০১৯, ১৯:৫১
গোলাপ হোসেন, জয়পুরহাট প্রতিনিধি
প্রিন্ট icon

গোলাপ হোসেন, জয়পুরহাট প্রতিনিধি

গত কয়েকদিনের টানা গরমে অস্থির হয়ে পড়েছে জয়পুরহাটের জনজীবন। আর এ তীব্র গরমের কারণে হাসপাতালে বাড়ছে ডায়রিয়া রোগীর সংখ্যা। সাথে জ্বর, শ্বাসকষ্ট ও অ্যাজমা রোগীর সংখ্যাও বেড়েছে।

এদের মধ্যে শিশু ও বয়স্ক রোগীর সংখ্যা বেশি। ফলে জয়পুরহাট জেলা আধুনিক হাসপাতালে স্বাভাবিক সময়ের চেয়ে রোগীর সংখ্যা বেশি রয়েছে। এতে রোগীদের সেবা দিতে গিয়ে হিমশিম খাচ্ছেন চিকিৎসক ও নার্সরা।

হাসপাতালের শিশু এবং ডায়রিয়া ওয়ার্ডে সরেজমিনে দেখা যায়, দুটি ওয়ার্ডই রোগীতে ঠাসা। পর্যাপ্ত শয্যা না থাকায় রোগীদের রাখা হয়েছে ওয়ার্ডের ভেতরে ও বাইরের বারান্দার মেঝেতে।

রোগীর চাপ এতটাই বেশি যে চিকিৎসক ও রোগীর স্বজনদের হাঁটাচলার জায়গাও নেই। বৈরি আবহাওয়া ও প্রখর রোদ, ধুলোবালির পাশাপাশি অপরিষ্কার-অপরিচ্ছন্নতা, প্রচণ্ড গরমে ইফতারে ভাজা পোড়া খাওয়া ইত্যাদি অনিয়মের ফলে এ রোগের বেশি প্রাদুর্ভাব ঘটে।

গত এক সপ্তাহে ডায়রিয়ায় আক্রান্ত হয়ে জেলা ও উপজেলা হাসপাতালগুলোতে চিকিৎসা নিয়েছেন প্রায় ৬ শতাধিক রোগী।

জয়পুরহাট জেলা আধুনিক হাসপাতালের মেডিকেল অফিসার ডা. সাইফুল ইসলাম জানান, হঠাৎ করে অতিরিক্ত তাপমাত্রা বেড়ে যাওয়ায় ডায়রিয়ার প্রাদুর্ভাব দেখা দিচ্ছে গরমে বাইরের দূষিত পানি পান ও নষ্ট খাবার খাওয়াসহ নানা কারণে।

গরমে ডায়রিয়ার ব্যাকটেরিয়ার প্রজনন ব্যাপকভাবে বেড়ে যায়। এছাড়া গরমে খাবারও দ্রুত নষ্ট হয়ে যায়। সেই পচা-বাসি খাবার খেলে ডায়রিয়া হয়। এ কারণে গরমে শিশুসহ সকলে যাতে বিশুদ্ধ পানি পান করে, সতেজ খাবার খায় এবং ইফতারে ভাজা পোড়া খাওয়া পরিহার করে ঠান্ডা জাতীয় খাবার এবং ফলমূল খাওয়ার পরামর্শ দিয়েছেন তিনি।

পিবিডি/এআইএস

apps

সারাদেশ

অনুসন্ধান করুন
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত