Most important heading here

Less important heading here

Some additional information here

Emphasized text
  • মঙ্গলবার, ১৬ জুলাই ২০১৯, ১ শ্রাবণ ১৪২৬
  • ||

গফরগাঁওয়ে অস্ত্রের মুখে কলেজছাত্রীকে ধর্ষণ, ধর্ষক গ্রেফতার

প্রকাশ:  ১৩ মে ২০১৯, ১৫:৪৬
গফরগাঁও প্রতিনিধি
প্রিন্ট icon

ময়মনসিংহের গফরগাঁও উপজেলার পাগলা থানার কান্দিপাড়া গ্রামে এক কলেজছাত্রীকে অস্ত্রের মুখে ধর্ষণ করার অভিযোগে ধর্ষক চাঁনু শিংকে (৪৩) গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

রোববার (১২ মে) রাতে তাকে গ্রেফতার করে পুলিশ।

থানায় দায়ের করা মামলায় ও ধর্ষিতার পরিবার সূত্রে জানা যায়, উপজেলার কান্দিপাড়া আব্দুর রহমান ডিগ্রী কলেজের দ্বাদশ শ্রেণির ছাত্রীকে গত ৮ ফেব্রুয়ারি রাত সাড়ে ৯টায় দিকে কান্দিপাড়া বাজারে বাসা একা পেয়ে প্রতিবেশী চাঁনু শিং তার সহযোগী মোশারফের সহায়তায় পিস্তল দেখিয়ে জিম্মি করে জোরপূর্বক ধর্ষণ করে।

এ সময় মোশারফ ধর্ষণের ভিডিও করে। এর কিছুদিন পর ইন্টারনেটে ও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেইসবুকে এই ভিডিওটি ছেড়ে দেওয়ার ভয় দেখিয়ে কলেজছাত্রীকে ময়মনসিংহ শহরের চরপাড়া এলাকায় একটি বেসরকারি স্পন্দন হাসপাতালে নিয়ে পুনরায় ধর্ষণ করে চাঁনু শিং। এ ধর্ষণের ঘটনাও ভিডিও করে তার সহযোগী হাসপাতালের মালিক স্বপন ও মোশারফ।

ধর্ষিতা জানায়, স্বপন ও মোশারফ হাসপাতালের ওই রুমে ধর্ষিতাকে আটকে রেখে দরজা বাইরে থেকে লাগিয়ে দেয়। এবং হাসপাতালে মালিক স্বপন ও মোশারফ তাকে ধর্ষণের পরিকল্পনা করে। হাসপাতালের এক নার্সের সহযোগিতায় কলেজছাত্রী হাসপাতাল থেকে পালিয়ে এসে গফরগাঁও শহরের এক আত্মীয় বাসায় আশ্রয় নেয়। এরপর ধর্ষক চাঁনু শিং বাড়িতে এসে ধর্ষিতার মাকে চাপ প্রয়োগ করে মেয়েকে তাদের হাতে তুলে দিতে। ধর্ষকের কথামতো ধর্ষিতার মা তার মেয়েকে চাঁনু শিং এর হাতে তুলে না দেওয়ায় চানু শিং এর লোকজন ধর্ষিতার মা ও ছোট বোনকে মারধর করে বাসায় থেকে বের করে দিয়ে তালা লাগিয়ে দেয়।

এরপর ধর্ষিতার পরিবার গফরগাঁও শহরের এক আত্মীয়র বাসায় আশ্রয় নেয। অসহায় পরিবারটি এ ঘটনায় উপজেলার সদরের কয়েকজন মানবাধিকারকর্মী ও উপজেলা দুর্নীতি প্রতিরোধ কমিটির সদস্যদের জানালে তাদের পরামর্শে গত রোববার সন্ধ্যায় ধর্ষিতার বাদী হয়ে পাগলা থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করেন।

এ ঘটনায় মামলা করার পর রোববার রাত ৮ টার দিকে পাগলা থানার পুলিশ কান্দিপাড়া বাজার থেকে ধর্ষক চানু শিংকে গ্রেফতার করে।

ধর্ষিতার মা জানায়, চানু শিং আমার মেয়েকে জোরপূর্বক একাধিকবার ধর্ষণ করেছে। এ ঘটনা প্রকাশ করলে ধর্ষণের ভিডিও ইন্টারনেটে ছেড়ে দেওয়াসহ আমি ও আমার মেয়েদের জানে মেরে ফেলবে বলে হুমকি দেয়।

এলাকাবাসী জানায়, চাঁনু শিং এলাকায় চিহিৃত ইয়াবা ব্যবসায়ী। এবং ইয়াবা কারবারীদের নিয়ে তার একটি বিশাল বাহিনী রয়েছে। সে নিজেকে সবসময় থানার পুলিশের প্রিয় লোক বলে পরিচয় দিতো। তার ভয়ে এলাকাবাসী মুখ খুলতে সাহস পায় না।

এ ব্যাপারে পাগলা থানার ওসি মোঃ ফায়েজুর রহমান বলেন, ভিকটিমকে ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে মেডিকেল চেকআপ ও ১৬৪ ধারা জবানবন্দি নেওয়ার জন্য ময়মনসিংহ আদালতে পাঠানো হয়েছে এবং মূল আসামিকে গ্রেফতার করা হয়েছে।

পিপিবিডি/পিএস

গফরগাঁও,কলেজছাত্রী,ধর্ষণ
apps

সারাদেশ

অনুসন্ধান করুন
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত