Most important heading here

Less important heading here

Some additional information here

Emphasized text
  • সোমবার, ১৯ আগস্ট ২০১৯, ৪ ভাদ্র ১৪২৬
  • ||

রিয়াল ছাড়ার কারণ জানালেন রোনালদো

প্রকাশ:  ১৮ জুলাই ২০১৮, ১০:২৪
স্পোর্টস ডেস্ক
প্রিন্ট icon

দীর্ঘ নয় বছরের সম্পর্কের ইতি টেনে এখন জুভেন্টাসের ঘরের ছেলে ক্রিস্টিয়ানো রোনালদো। ইতালির শহরে পা রাখা মাত্র সমর্থকদের উষ্ণ অভ্যর্থনা পেয়েছেন সিআর সেভেন। এখন তাঁর সামনে নতুন চ্যালেঞ্জ। ৩০ জুলাই থেকেই ৭ নম্বর সাদা-কালো জার্সি গায়ে চাপিয়ে নেমে পড়বেন অনুশীলনে। রিয়ালের জার্সি গায়ে ৪৫১টি গোল করেছেন। দুবার লা লিগা এবং চারবার চ্যাম্পিয়ন্স লিগ জয়ের নজির গড়েছেন। তারপরও কেন নিজের প্রিয় রিয়াল মাদ্রিদ ছেড়ে সিরি ‘এ’-এর ক্লাবে সই করার সিদ্ধান্ত নিলেন তিনি? এ প্রশ্ন রিয়াল ভক্তদের কুড়ে কুড়ে খাচ্ছিল। যার উত্তর নিজেই দিলেন সিআর সেভেন।

সোমবার সাংবাদিকদের মুখোমুখি হয়ে তিনি বলেন, ‘সাধারণত আমার বয়সের ফুটবলাররা কাতার বা চিনের অপেক্ষাকৃত ছোট ক্লাবে সই করার কথাই ভাবে। কিন্তু আমার মনে হয়, নতুন চ্যালেঞ্জের জন্য এখনও আমি যথেষ্ট ফিট। ম্যানচেস্টার হোক কিংবা রিয়াল, প্রত্যেকটা জায়গাই চ্যালেঞ্জিং ছিল। এবার জুভেন্টাসের পালা। আমার কমফোর্ট জোন থেকে বেরিয়ে এসে খেলতে চেয়েছি সবসময়। সেই জন্যই এই সিদ্ধান্ত। তাছাড়া ইতালির সেরা ক্লাব এটা। ম্যানেজার, কোচ সকলেই দুর্দান্ত। তাই সিদ্ধান্তটা নিতে খুব একটা সমস্যা হয়নি।’

শুধু দল ভারী করতে নয়, জুভেন্টাসকে চ্যাম্পিয়ন করতেই যে চার বছরের চুক্তি করেছেন, সে কথাও পরিষ্কার করে দিলেন পর্তুগিজ মহাতারকা। বিপুল অঙ্কের অর্থে রিয়াল থেকে জুভেন্টাসে এসেছেন রোনালদো। নিজেদের ক্লাবে তাঁকে পেতে ১০০ মিলিয়ন ইউরো ট্রান্সফার ফি দিয়েছে কর্তৃপক্ষ। পাশাপাশি চার বছরে স্ট্রাইকারকে ১২০ মিলিয়ন ইউরো দিচ্ছে ক্লাব।

তবে মজার বিষয় হলো, রোনালদো জুভেন্টাসে পা রাখার মাত্র ২৪ ঘণ্টার মধ্যেই সেই অর্থের প্রায় অর্ধেকই ফেরত পেয়ে গেল ক্লাব। কীভাবে? সিআর সেভেন আসামাত্রই হু হু করে বিক্রি শুরু করেছে ক্লাবের জার্সি। ২৪ ঘণ্টার মধ্যেই ৫ লক্ষ ২০ হাজার সিআর সেভেন লেখা জার্সি বিক্রি হয়েছে। তুরিনের এই ক্লাবের অফিসিয়াল পার্টনার অ্যাডিডাস।

স্থানীয় মিডিয়া সূত্রের খবর, কয়েক ঘণ্টার মধ্যে সেই কোম্পানির ২০ হাজার জার্সি বিক্রি হয়েছে শোরুম থেকে। এছাড়া অনলাইনে ৫ লক্ষ জার্সি কিনেছেন ক্রেতারা। ব্র্যান্ডেড জার্সির মূল্য ১০৪ ইউরো এবং রেপ্লিকা জার্সি মিলছে ৪৫ ইউরোয়। আর তাতেই একদিনে ৫৪ মিলিয়ন ইউরো এসেছে জুভেন্টাসের ঘরে। ২০১৬ মৌসুমে সাড়ে ৮ লক্ষ জার্সি বিক্রি হয়েছিল জুভেন্টাসের। সে সংখ্যাটা পার হওয়া যেন শুধুই সময়ের অপেক্ষা।

/এস কে

apps
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত