• বুধবার, ০৮ ফেব্রুয়ারি ২০২৩, ২৫ মাঘ ১৪২৯
  • ||

ফুটবল বিশ্বকাপ: সোনার বুটের দৌড় শুরু

প্রকাশ:  ০১ ডিসেম্বর ২০২২, ১১:৫০
স্পোর্টস ডেস্ক

চার বছর পরপর হয় বলেই ফুটবলপ্রেমীরা চাতক পাখির মতো তাকিয়ে থাকেন ফুটবল বিশ্বকাপের দিকে। কাতার বিশ্বকাপের পার হয়েছে ১১ দিন। ৬৪ ম্যাচের মধ্যে শেষ ৩৮ ম্যাচ। অর্ধেকের বেশি পথ পাড়ি দেওয়া টুর্নামেন্টে কে হাসবে শিরোপা জয়ের হাসিতে, সেটি এখনই কিছুতেই বলার উপায় নেই। বলার সুযোগ নেই কে জিতবে সোনার বুট। তবে সোনার বুটের দৌড় কিন্তু শুরু হয়ে গেছে। গতকালের আগ পর্যন্ত গোলসংখ্যায় যাঁরা এগিয়ে, তাঁদের তালিকা এখানে—চারজনই করেছেন ৩ গোল।

কিলিয়ান এমবাপ্পে

জাতটা গত বিশ্বকাপেই চিনিয়েছিলেন। ফ্রান্সের শিরোপা জয়ের অন্যতম নায়ক তিনি। ৪ গোল করে গোল্ডেন বুটের দৌড়েও ছিলেন। রাশিয়ায় না পারলেও এবার কাতারে এসে স্বপ্ন পূরণ করার পথে ইতিমধ্যে ২ ম্যাচে ৩ গোল করে ফেলেছেন এমবাপ্পে। ডেনমার্কের বিপক্ষে জোড়া গোলের আগে অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে করেছিলেন ১ গোল।

চোটজর্জর দল নিয়ে কোচ দিদিয়ের দেশমের মনে যে সংশয় ছিল তাও দূর করে দিয়েছেন এমবাপ্পে।

কোডি গাকপো নেদারল্যান্ডসের হয়ে প্রথমবার বিশ্বকাপ খেলতে এসেছেন। আর প্রথম আসরেই স্পটলাইটটা নিজের দিকে টেনে নিয়েছেন গাকপো। গ্রুপ পর্বে ৩ ম্যাচে ৩ গোল—ডাচদের দ্বিতীয় রাউন্ডে তুলে আইন্দোফেন উইঙ্গারও স্বপ্ন দেখছেন শিরোপার সঙ্গে গোল্ডেন বুট জেতার। এর মধ্যে গড়েছেন এক রেকর্ডও। বিশ্বকাপ ইতিহাসে দ্বিতীয় খেলোয়াড় হিসেবে গ্রুপ পর্বের তিন ম্যাচের তিনটিতে জালের দেখা পেয়েছেন তিনি। ১৯৮৬ বিশ্বকাপে এই রেকর্ডটি প্রথম গড়েছিলেন ইতালির আলেসান্দ্রো আলতোবেল্লি।

মার্কাস রাশফোর্ড শেষ ষোলোর টিকিট পেতে ওয়েলসের বিপক্ষে ড্র হলেই চলত ইংল্যান্ডের। কোচ গ্যারেথ সাউথগেট আক্রমণভাগে একটু পরিবর্তন আনলেন এ ম্যাচে। শুরুর একাদশে জায়গা দিলেন রাশফোর্ডকে। প্রথম দুই ম্যাচে বদলি হিসেবে নামার সুযোগ পেয়ে শুধু একটি গোল করেছিলেন ইরানের বিপক্ষে। এবার শুরুতে জায়গা পেয়ে জোড়া গোল করে কোচের আস্থার প্রতিদানও দিয়েছেন ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড ফরোয়ার্ড। ৩ ম্যাচে ৩ গোল নিয়ে গোল্ডের বুটের দৌড়েও এগিয়ে গেলেন রাশফোর্ড।

এনার ভ্যালেন্সিয়া ২০২২ বিশ্বকাপের প্রথম গোলদাতা তিনি। উদ্বোধনী ম্যাচে স্বাগতিক কাতারের বিপক্ষে জোড়া গোল করে তাক লাগিয়ে দেন ভ্যালেন্সিয়া। অফসাইডে একটি গোল বাতিল না হলে হ্যাটট্রিকও হয়ে যেত ইকুয়েডোরিয়ান ফরোয়ার্ডের। নেদারল্যান্ডসের বিপক্ষে দলের হার এড়ানো গোলটিও করেন ফেনারবাচ তারকা। কিন্তু ভ্যালেন্সিয়ার দুর্ভাগ্য, শেষ হয়ে গেছে তাঁর কাতার অভিযান। সেনেগালের বিপক্ষে ২-১ গোলে হেরে দ্বিতীয় রাউন্ডে যাওয়া হলো না ইকুয়েডরের। ৩ ম্যাচে ৩ গোল নিয়ে থামলেন তিনি।

বিশ্বকাপ
মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
close