• সোমবার, ৩০ জানুয়ারি ২০২৩, ১৬ মাঘ ১৪২৯
  • ||

সাফ অনূর্ধ্ব-১৫

নেপালের বিপক্ষে হার বাংলাদেশের

প্রকাশ:  ০৫ নভেম্বর ২০২২, ১৯:২৬
স্পোর্টস ডেস্ক

সাফ অনূর্ধ্ব-১৫ নারী চ্যাম্পিয়নশিপে দ্বিতীয় ম্যাচে নেপালের বিপক্ষে ১-০ গোলের ব্যবধানে হেরেছে বাংলাদেশের মেয়েরা। এর আগে প্রথম ম্যাচে ভূটানকে ৮-০ গোলে হারিয়েছিলো বাংলাদেশ।

শনিবার (৫ নভেম্বর) কমলাপুরের বীরশ্রেষ্ঠ শহীদ সিপাহী মোস্তফা কামাল স্টেডিয়ামে নেপালের বিপক্ষে মাঠে নেমেছিলো বাংলাদেশ। শুরু থেকে শেষ পর্যন্ত দারুন ফুটবল খেলেছে নেপাল। অপরদিকে বাংলাদেশের ফুটবল ছিলো অনেকটাই অগোছালো। খেলার প্রথম আক্রমণে বাংলাদেশের রক্ষণে ভয় ধরিয়ে দিয়েছিলো নেপাল।

তৃতীয় মিনিটে সুশীলা কেসির শট পোস্ট কাঁপিয়ে চলে যায় মাঠের বাইরে। দ্বাদশ মিনিটে প্রথম সুযোগটাকে নষ্ট করেছেন নুসরাত জাহান মিতু। জয়নব বিবি রিতার পাসে মিতু শট নিতে পারলে গোল পেতে পারত বাংলাদেশ। ষষ্ঠদশ মিনিটেও গোলের সুযোগ নষ্ট করেছে বাংলাদেশ। জয়নব বিবির শট নেপালি গোলরক্ষকের গ্লাভস ফসকালে ফাঁকা পোস্ট পেয়েও বল বাইরে পাঠান উমহেলা মারমা। ২৪তম মিনিটে জয়নব বিবির ফ্রি-কিক প্রতিহত হয় পোস্টে লেগে।

৪১তম মিনিটে প্রথমার্ধের সবচেয়ে সহজ সুযোগটাকে নষ্ট করেছেন উমহেলা। সতীর্থের বাড়ানো বলে নেপাল গোলরক্ষককে আবারও একা পেয়ে বল পোস্টের উপর উঁচিয়ে মেরেছেন তিনি। গোলশূন্য প্রথমার্ধ শেষে খরা কাটাতে দ্বিতীয়ার্ধের শুরুতে দুই বদলি আনেন বাংলাদেশ কোচ গোলাম রব্বানী ছোটন।

ঐশী আক্তারের বদলি মাঠে নামেন ভুটান ম্যাচের হ্যাটট্রিক পাওয়া ফরোয়ার্ড সুরভী আকন্দ প্রীতি। থুইনুই মারমার বদলি নামানো হয় লিভা আক্তারকে। ৬৭ মিনিটে তৃষ্ণা রানীর বদলি হিসেবে নামানো হয় পুজা দাসকে।

একের পর এক খেলোয়াড় বদলেও নেপালের জমাট রক্ষণে চিড় ধরাতে পারেনি বাংলাদেশ। এই অর্ধের প্রায় পুরোটা সময় খেলার নিয়ন্ত্রণ নিজেদের দখলে রাখলেও গোল করার মতো একটিও সুযোগ বের করতে পারেনি গোলাম রব্বানী ছোটনের দল। উল্টো ৮৭তম মিনিটে বাংলাদেশ শিবিরকে স্তব্ধ করে জয় সূচক গোল তুলে নেয় নেপাল। মাঝমাঠ থেকে নেপালের ফ্রি-কিক ঠেকাতে সামনে এগিয়ে এসেছিলেন বাংলাদেশি গোলরক্ষক সঙ্গীতা রানী দাস। এরপর সুযোগ পেয়ে প্লেসিং শটে বল জালে জড়িয়ে দেন আগের ম্যাচে চার গোল করা ফরোয়ার্ড বর্ষা অলি।

পূর্বপশ্চিমবিডি/এসএম

চ্যাম্পিয়নশিপ,নারী,সাফ অনূর্ধ্ব-১৫,নেপাল,হার,বাংলাদেশ
মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
close