• বৃহস্পতিবার, ১১ আগস্ট ২০২২, ২৭ শ্রাবণ ১৪২৯
  • ||

উইন্ডিজে হতশ্রী এক বাংলাদেশ

প্রকাশ:  ২৮ জুন ২০২২, ১২:১১
স্পোর্টস ডেস্ক

সেন্ট লুসিয়া টেস্টে সফররত টাইগারদের ১৩ রানের লক্ষ্য ১০ উইকেট হাতে রেখে পার করে ফেলেছে স্বাগতিক ওয়েস্ট ইন্ডিজ। ২-০ ব্যবধানে সিরিজ জিতে টাইগারদের হোয়াইটওয়াশের লজ্জা দিল উইন্ডিজরা। এই টেস্টে বাংলাদেশের দুই ইনিংসের স্কোর যথাক্রমে ২৩৪ ও ১৮৬ রান। জবাবে প্রথম ইনিংসে উইন্ডিজরা ৪০৮ রান তুলে ১৭৪ রানের বিশাল লিড পায়।

এর আগে শেষ ইনিংসে বৃষ্টির কারণে দেরিতে শুরু হয়। বাংলাদেশ ব্যাট করতে নেমে সব কয়টি উইকেট হারিয়ে সংগ্রহ করে ১৮৬ রান। উইন্ডিজদের ১৩ রানের টার্গেট দেয় বাংলাদেশের। এই টার্গেট যে নিছক টার্গেটই। কেননা, লক্ষ্যে পৌঁছতে উইন্ডিজতে একটাও উইকেট খোয়াতে হয়নি। ১৩ রান সংগ্রহ করে নিয়েছে নিমিষেই।

ভেজা মাঠ অনেকটা সময় বাঁচিয়ে রেখেছিল বাংলাদেশের হার। প্রথম দুই সেশনে আউটফিল্ড প্রস্তুতই করতে পারেননি মাঠকর্মীরা। অবশেষে চা-বিরতির পর খেলা শুরু হয়।

মেহেদি হাসান মিরাজ দিনের চতুর্থ ওভারেই সাজঘরের পথ ধরেন ৪ রান করে। ইনিংস হার এড়াতে তখনও ২৬ রান দরকার বাংলাদেশের। নুরুল হাসান সোহান এরপর মারকুটে চেহারায় হাজির হলেন।

একের পর এক বাউন্ডারি হাঁকিয়ে দলকে বাঁচালেন ইনিংস হারের লজ্জা থেকে। ৪০ বলে ঝড়ো ফিফটি পূরণ করার সঙ্গে সঙ্গে দলকে লিডও এনে দেন সোহান।

সব কয়টি উইকেট হারিয়ে বাংলাদেশের সংগ্রহ ১৮৬ রান।

ম্যাচের তৃতীয় দিন শেষে নিজেদের দ্বিতীয় ইনিংসে বাংলাদেশের সংগ্রহ ছিল ৬ উইকেটে ১৩২ রান। প্রথম ইনিংসে সাকিব আল হাসানের দল গুটিয়ে গিয়েছিল ২৩৪ রানে। পরে ওয়েস্ট ইন্ডিজ ৪০৮ রানের বড় সংগ্রহ দাঁড় করিয়ে নেয় ১৭৪ রানের লিড।

এই হারের মধ্য দিয়ে পরাজয়ের এক মাইলফলক স্পর্শ করল টাইগাররা। ২০০০ সালে টেস্ট স্ট্যাটাস পাওয়ার পর ২২ বছরে ১৩৪টি টেস্ট খেলেছে বাংলাদেশ দল। এই ম্যাচের মধ্য দিয়ে সাদা পোশাকে হারের সেঞ্চুরি পূর্ণ করল তারা। যেখানে ১০০ হারের বিপরীতে টাইগারদের জয় ১৬টি ও ড্র আছে ১৮টি।

পূর্ব পশ্চিম/ম

বাংলাদেশ
মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
close