• বৃহস্পতিবার, ২৯ সেপ্টেম্বর ২০২২, ১৪ আশ্বিন ১৪২৯
  • ||

বাংলাদেশকে ফলোঅন না দিয়ে ব্যাটিংয়ে দক্ষিণ আফ্রিকা

প্রকাশ:  ১০ এপ্রিল ২০২২, ১৯:২৩
স্পোর্টস ডেস্ক

প্রথম ইনিংসে দক্ষিণ আফ্রিকা করেছিল ৪৫৩ রান। ফলোঅন এড়াতে বাংলাদেশের দরকার ছিল ২৫৩ রান। কিন্তু পারেনি বাংলাদেশ। ফলে ফলোঅনে পড়ে তারা। এরপরও বাংলাদেশকে আবার ব্যাটিংয়ে পাঠায়নি স্বাগতিকরা। ২৩৬ রানে এগিয়ে থেকে দ্বিতীয় ইনিংসের ব্যাটিং করবে দক্ষিণ আফ্রিকা।

পোর্ট অব এলিজাবেথের সেন্ট জর্জ পার্কে দ্বিতীয় টেস্টে লড়ছে বাংলাদেশ ও দক্ষিণ আফ্রিকা। প্রথম ইনিংসে মাত্র ২১৭ রানে গুটিয়ে যায় বাংলাদেশের ইনিংস।

মুশফিকের বিদায়ের পর ব্যাট হাতে বেশিক্ষণ থিতু হতে পারেননি আর কেউই। তাইজুল ইসলাম ৫, মেহেদি হাসান মিরাজ ১১ ও এবাদত হোসাইন ০ রানে বিদায় নিলে প্রথম ইনিংসে ২১৭ রানে গুটিয়ে যায় বাংলাদেশ।

প্রথম ইনিংসে দক্ষিণ আফ্রিকার করা ৪৫৩ রান থেকে এখনও ২৩৬ রান পিছিয়ে আছে সফরকারীরা।

বড় ব্যবধানে পিছিয়ে থাকলেও বাংলাদেশকে ফলো-অনে ব্যাট করতে দেয়নি দক্ষিণ আফ্রিকা। দ্বিতীয় ইনিংসে ব্যাট করতে মাঠে নেমেছে স্বাগতিক ওপেনাররা।

সিরিজের দ্বিতীয় টেস্টের তৃতীয় দিনে আজ রবিবার পোর্ট এলিজাবেথে বৃষ্টির কারণে খেলা কিছুটা বিলম্বে শুরু হয়। খেলা শুরু হওয়ার পর দারুণ শুরু পায় বাংলাদেশ। আগের দিন যেখানে উইকেট পতনের মিছিল চলছিল, সেখানে আজ সকালে বেশ অনায়াসেই রান তুলেছেন মুশফিক ও রাব্বি। এর মধ্যে দিনের প্রথম ওভারেই টানা ৩ বাউন্ডারি হাঁকান রাব্বি।

মুশফিক ও রাব্বি দুজনেই ছুটছিলেন ফিফটির পথে। কিন্তু ক্যারিয়ারের দ্বিতীয় টেস্ট ফিফটি থেকে মাত্র ৪ রান দূরে থামলেন রাব্বি। প্রোটিয়া স্পিনার কেশভ মহারাজের বলে কট অ্যান্ড বোল্ড হয়ে ফেরার আগে রাব্বির ব্যাট থেকে আসে ৮৭ বলে ৪৬ রান। বিদায়ের আগে মুশফিকের সঙ্গে তার জুটিত ৭০ রান যোগ হয়।

রাব্বির বিদায়ের পর মেহেদি হাসান মিরাজকে নিয়ে ইনিংস মেরামতের চেষ্টা করেন মুশফিক। ক্যারিয়ারের ২৫তম ফিফটির দেখাও পান তিনি। কিন্তু হার্মারের বলে বাউন্ডারি হাঁকিয়ে ফিফটি পার করলেও এক বল পরেই অযথা সুইপ শট খেলতে গিয়ে বোল্ড হয়ে ফেরেন এই অভিজ্ঞ ব্যাটার। লাঞ্চ বিরতির ঠিক আগের ওভারে বিদায় নেওয়ার আগে মুশফিক ১৩৬ বলে ৮ চারে ৫১ রান করেন।

এর আগে চার ব্যাটারের ফিফটিতে ভর করে সব উইকেট হারিয়ে দক্ষিণ আফ্রিকার প্রথম ইনিংসের সংগ্রহ দাঁড়ায় ৪৫৩ রান। স্বাগতিকদের হয়ে সর্বোচ্চ ৮৪ রান আসে মহারাজের ব্যাট থেকে। বল হাতে বাংলাদেশের স্পিনার তাইজুল ইসলাম একাই নেন ৬ উইকেট। ৩ উইকেট নেন পেসার খালেদ আহমেদ।

জবাবে ৫ উইকেটে ১৩৯ রান নিয়ে দ্বিতীয় দিন পার করে বাংলাদেশ। ওপেনার তামিম ইকবালের ব্যাট থেকে আসে ৪৭ রান এবং তিনে নামা নাজমুল হোসেন শান্ত করেন ৩৩ রান। দিন শেষে মুশফিক ৩০ রানে এবং ইয়াসির ৮ রানে অপরাজিত ছিলেন।

পূর্বপশ্চিম- এনই

বাংলাদেশ-দক্ষিণ আফ্রিকা,টেস্ট
মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
close