• রোববার, ১৭ অক্টোবর ২০২১, ২ কার্তিক ১৪২৮
  • ||

হেরেছে মেসিহীন বার্সা ও রোনালদোর ম্যানইউ

প্রকাশ:  ১৫ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০৯:৩৯
স্পোর্টস ডেস্ক

বার্সেলোনাকে তাদেরই মাঠে নতুন এক লজ্জাই উপহার দিয়ে গেল বায়ার্ন মিউনিখ। পরিস্থিতি অবশ্য বদলে গেছে আরো আগেই। ৬ মে ২০১৫ সালের সেই চ্যাম্পিয়নস লিগ সেমিফাইনালের দল দুটো থেকে চেহারা বদলে গেছে অনেকগুলো। সবচেয়ে বড় চেহারাটাই তো নেই। লিওনেল মেসি সেদিন জোড়া গোল করে, একটি করিয়ে শিরোনাম কেড়ে নিয়েছিলেন। সেই মেসিই যে নেই বার্সার।

যদিও দুই বছর আগে বায়ার্নের কাছে ৮-২ গোলে হারের প্রতিশোধ নেওয়ার ঘোষণা দিয়ে আবারো জার্মান চ্যাম্পিয়নদের কাছে ধরাশায়ী কাতালান ক্লাব বার্সেলোনা। মেসিহীন বার্সা এদিন বায়ার্নের কাছে হেরেছে ৩-০ গোলে। অপরদিকে চ্যাম্পিয়ন্স লিগের গ্রুপপর্বে নিজেদের প্রথম ম্যাচে সুইজারল্যান্ডের ক্লাব ইয়ং বয়েজের বিপক্ষে ২-১ ব্যবধানে হেরেছে ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদোর ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড।

সম্পর্কিত খবর

    ঘরের মাঠ নুক্যাম্পে প্রথমার্ধেই গোল খায় বার্সা। ৩৪ মিনিটে লিরয় সানের অ্যাসিস্ট থেকে স্কোর শিটে নাম তুলে বায়ার্নকে এগিয়ে দেন থমাস মুলার। পুরো ম্যাচে বল পজেশন ছাড়া, আক্রমনের সুযোগ তৈরির বিচারে বায়ার্নের বিপক্ষে প্রতিরোধ গড়তেই পারেনি কুম্যানের দল। বায়ার্নের যেখানে ৮টি শট লক্ষ্যে আঘাত হএনছে সেখানে বার্সেলোনা একবারও অনটার্গেটে শট নিতে পারেনি।

    ম্যাচের দ্বিতীয়ার্ধে আলোটা কেড়ে নেন রবার্ট লেভানডোভস্কি। ৫৬ মিনিটে জামাল মুসিয়ালার অ্যাসিস্টে বায়ার্নের লিড দ্বিগুণ করেন এই পোলিশ। ৮৫ মিনিটে নিজের দ্বিতীয় আর দলের তৃতীয় গোল করেন লেভানডোভস্কি। আর তাতেই ৩-০র বড় হারের লজ্জা পায় বার্সেলোনা।

    অপরদিকে রিয়াল মাদ্রিদ লিজেন্ড ইকার ক্যাসিয়াসের রেকর্ড ছোঁয়ার রাতে গোল পেলেও দলকে জয় এনে দিতে পারলেন না ক্রিস্টিয়ানো রোনালদো। ওয়াঙ্কডর্ফ স্টেডিয়ামে শুরু হওয়া ম্যাচে দুর্দান্ত শুরু করে ইংলিশ জায়ান্ট ম্যানইউ। ১৩তম মিনিটে গোল করে দলকে এগিয়ে যান চ্যাম্পিয়ন্স লিগে রেড ডেভিলদের হয়ে পুনরাভিষেক হওয়া রোনালদো।

    ব্রুনো ফার্নান্দেসের দুর্দান্ত এক উড়ন্ত পাস ঠেকিয়ে বল নিয়ন্ত্রনে এনে প্রতিপক্ষের গোলরক্ষককে বোকা বানিয়ে জাল খুঁজে নেন পর্তুগিজ এ ফরোয়ার্ড। ৩৬তম মিনিটে ইয়ং বয়েজ মিডফিল্ডার মার্টিন্স পেরেইরাকে ফাউল করে লালকার্ড দেখেন ম্যানইউ ডিফেন্ডার ওয়ান বিসাকা। ৫৫ মিনিট বাকি থাকতেই ইউনাইটেড ১০ জনের দলে পরিনত হয়।

    বিরতির পর একজন বাদে খেলতে থাকা ম্যানইউ ছন্দ হারিয়ে ফেলে। এদিকে সমতায় ফিরতে মরিয়া ইয়াং বয়েজ একের পর এক আক্রমণ করতে থাকে। ৬৬তম মিনিটে অবশেষে নিকোলাস মৌমি নিগামালেউর গোলে সমতায় ফেরে স্বাগতিকরা। ৭২তম মিনিটে রোনালদো ও ফের্নান্দেসকে তুলে নিয়ে জেসে লিনগার্ড ও নেমানিয়া মাতিচকে মাঠে নামান কোচ উলে গুনার সুলশার। যোগ করা সময়ের শেষ মিনিটে ম্যানইউর জালে থিওসন সিবাচু বল জড়ালে ২-১ গোলের জয় পায় ইয়াং বয়েজ।

    পূর্বপশ্চিমবিডি/আর

    মেসিহীন বার্সা,রোনালদোর ম্যানইউ
    মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন
    • সর্বশেষ
    • সর্বাধিক পঠিত
    close