• শুক্রবার, ১৬ এপ্রিল ২০২১, ৩ বৈশাখ ১৪২৮
  • ||

সাবেকে আস্থা বর্তমান অধিনায়কের

প্রকাশ:  ০৮ এপ্রিল ২০২১, ১৬:২১ | আপডেট : ০৮ এপ্রিল ২০২১, ১৬:২৫
স্পোর্টস ডেস্ক

২০১৯ সালে ওয়ানডে বিশ্বকাপে পাকিস্তানের হতাশাজনক পারফরমেন্সের পর নেতৃত্ব হারান সরফরাজ আহমেদ। সেই সঙ্গে একাদশেও নিজের জায়গা হারান এই উইকেটরক্ষক ব্যাটসম্যান। বিশ্বকাপের পর মাত্র দুটি ওয়ানডে খেলার সুযোগ হয় তাঁর। পাকিস্তান দলে সরফরাজের সমাপ্তিও টেনে দিয়েছিলেন কেউ কেউ। তবে চমক দিয়ে লম্বা সময় পর দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে গুরুত্বপূর্ণ সিরিজ নির্ধারণী ম্যাচে প্রত্যাবর্তন ঘটে সাবেক এই অধিনায়কের।

এই সিরিজে পাকিস্তানি মিডল অর্ডারের টানা ব্যর্থতা এবং সাদাব খানের চোটে পরার কারণেই সরফরাজকে বাজিয়ে দেখে পাকিস্তান। তবে পাকিস্তানের সিরিজ জয়ের দিনে ব্যাট হাতে তাঁর অবদান মাত্র ১৩ রানের। এরপর উইকেটের পেছনেও গ্লাভস হাতে দেখা যায় ৩৩ পার করা এই ক্রিকেটারকে। যদিও বা ওপেনার ফখর জামান ও বাবরের কল্যাণে জয় পেতে বেশি অসুবিধা হয়নি সফরকারীদের।

দক্ষিণ আফ্রিকা সিরিজের স্কোয়াডে সরফরাজের অন্তর্ভুক্তিই আলোচনার জন্ম দিয়েছিল। তবে দলটির বর্তমান অধিনায়ক বাবর আজম জানিয়েছেন, দলের সিনিয়র ক্রিকেটারদের উপর আস্থা রয়েছে তাঁর। ওয়ানডেতে তাঁকে উইকেটরক্ষক এবং ৫ নম্বর ব্যাটসম্যান হিসেবে যত বেশি সম্ভব ব্যবহারের চেষ্টা করবো। আমরা আমাদের বেঞ্চ খেলোয়াড়দের অভিজ্ঞতা কাজে লাগানোর চেষ্টা করেছি। যেহেতু দলের মিডল অর্ডার ব্যর্থ হচ্ছিল, আমরা ভাবলাম তাঁকে (সরফরাজ) সেখানে বাজিয়ে দেখি।

দক্ষিণ আফ্রিকা সিরিজের তিন ম্যাচেই ব্যর্থ পাকিস্তানি মিডল অর্ডার। টপ অর্ডার আর বোলারদের সুবাদেই ৮ বছর পর এখানে সিরিজ জয়ের নজির স্থাপন করেছে বাবররা। তবে শেষ ম্যাচে মিডল অর্ডারের ভাগ্য ঘোরাতে সরফরাজকে অন্তর্ভুক্ত করা হয় একাদশে। পাকিস্তানি অধিনায়ক আরও বলেন, ‘কখনো কখনো দলকে তুলতে আপনাকে আওয়াজ করতে হবে, কখনো বা দলের উইকেটরক্ষক এটা করবে। যেহেতু আমাদের মিডল অর্ডার শেষ দুই ম্যাচে রান পেতে সংগ্রাম করছিল, তাই এটা দারুণ যে সবার অংশগ্রহণে আমরা সিরিজটি জিতেছি।’

পূর্বপশ্চিমবিডি/আর

বাবর আজম,সরফরাজ আহমেদ,পাকিস্তান
মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন
cdbl
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
close