• শনিবার, ১৯ সেপ্টেম্বর ২০২০, ৪ আশ্বিন ১৪২৭
  • ||

‘ইমরান বেঈমান-দেশদ্রোহী, ওকে এবার শিক্ষা দেব’

প্রকাশ:  ১৩ আগস্ট ২০২০, ১৩:১৭
আন্তর্জাতিক ডেস্ক

পাকিস্তান ক্রিকেট দলের সাবেক খেলোয়াড় জাভেদ মিয়াঁদাদ, তার মুখে হয়তো কিছুই আটকায় না। তিনি দেশের প্রধানমন্ত্রীকেও যা খুশি বলতে পারেন। মিয়াঁদাদের মনে হচ্ছে, পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান দেশ ও দেশের মানুষের সঙ্গে বেঈমানি করেছেন। আর তাই তিনি এবার তাকেও শাস্তি দেবেন।

মিয়াঁদাদের এমন জোড়ালো বিস্ফোরণে কেঁপে উঠেছে পাকিস্তান। ১৯৯২ সালে বিশ্বকাপ জয়ী পাকিস্তান দলের সদস্য মিয়াঁদাদ একের পর এক গুরুতর অভিযোগ করেছেন পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রীর বিরুদ্ধে্।

মিয়াঁদাদ তার ইউটিউব চ্যানেলে বলেন, পাকিস্তানের জনতার সঙ্গে বেঈমানি করেছে ইমরান খান। ও নিজেকে আল্লাহ্ ভাবতে শুরু করেছে। ও মনে করছে যা খুশি তাই করবে। কেউ আটকানোর নেই। দেশের প্রধানমন্ত্রী ওকে আমি বানিয়েছি। আমার সহায়তা না থাকলে ও এত বড় পদে কোনও দিন বসতে পারতো নাকি! আর ও দেশের জন্য কী করছে। দেশকে ধোকা দিচ্ছে ও। ইমরান খানকে এবার আমি শিক্ষা দেব। দেশের সঙ্গে খারাপ কিছু করা কাউকে আমি ছাড়ব না।

তিনি আরও বলেন, ইমরান খান মনে করে পিসিবি চালানোর লোক পাকিস্তানে নেই। তাই বিদেশিদের নিয়োগ করেছে। এবার বিদেশিরা পিসিবি থেকে টাকা তছরুপ করে পালিয়ে গেলে কে তাদের ধরে আনবে। পিসিবিতে একের পর এক ভুল লোক নিয়োগ করেছে ইমরান খান। তারা লুটেপুটে খাচ্ছে।

মিয়াঁদাদ জানান, পাকিস্তানের ডিপার্টমেন্টাল ক্রিকেট বন্ধ করে দিয়েছেন ইমরান খান। ফলে ঘরোয়া ক্রিকেটে চুটিয়ে খেলা অনেক ক্রিকেটার এখন বেকার হয়ে গিয়েছে।

তিনি বলেন, ইমরান খান নিজেও ডিপার্টমেন্টাল ক্রিকেট খেলেছে। শোয়েব মালিক, বাবর আজম, ফাওয়াদ আলমের মতো ক্রিকেটাররাও এই টুর্নামেন্ট খেলে জাতীয় দলে সুযোগ পেয়েছে। এখানে খেলে অনেক ক্রিকেটার চাকরি পেতো। কিন্তু ইমরান খান এবার সেটা বন্ধ করে দিয়েছে। যা পারছে ও করছে। নিজে একজন ক্রিকেটার হয়ে ও ক্রিকেটারদের ক্ষতি করছে।

পূর্বপশ্চিমবিডি/অ-ভি

জাভেদ মিয়াঁদাদ,খেলোয়াড়,সাবেক,পাকিস্তান,ক্রিকেট,প্রধানমন্ত্রী,ইমরান খান
মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন
cdbl
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
Latest news
close