• বৃহস্পতিবার, ০৪ জুন ২০২০, ২১ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৭
  • ||

চলে গেলেন মেসি-রোনালদোর গুরু

প্রকাশ:  ০৭ এপ্রিল ২০২০, ১৪:৫৭
স্পোর্টস ডেস্ক

দীর্ঘদিন ধরে প্যানক্রিয়েটিটিস (অগ্ন্যাশয়ের স্ফীতি ও প্রদাহ) নামক রোগে ভুগছিলেন তিনি। সোমবার (৬ এপ্রিল) ৭১ বছর বয়সে পৃথিবীর মায়া ত্যাগ করেছেন আন্তিচ। স্পেনের রাজধানী মাদ্রিদে মৃত্যু হয়েছে এই সার্বিয়ান নাগরিকের।

রিয়াল মাদ্রিদ, বার্সেলোনা ও অ্যাতলেতিকো মাদ্রিদ- স্প্যানিশ লা লিগার সফলতম ক্লাবের তালিকায় শীর্ষ তিনে রয়েছে তারা। একমাত্র ম্যানেজার হিসেবে এই তিনটি দলকেই কোচিং করিয়ে ইতিহাসের পাতায় ঠাঁই করে নেন এই রাদোমির আন্তিচ।

অ্যাতলেতিকোর পক্ষ থেকে বিষয়টি নিশ্চিত করা হয়েছে। সাবেক কোচ প্রাণ হারানোয় শোক প্রকাশ করে দলটির প্রধান নির্বাহী মিগেল অ্যাঙ্গেল গিল বলেছেন, ‘রাদোমিরের বিদায়ে আমরা ক্লাবের হৃদয়ের একটি টুকরো হারালাম।’

২০১৫ সালে অবসরে যাওয়ার আগে ২৭ বছর কোচিং করিয়েছেন আন্তিচ। বর্ণাঢ্য ক্যারিয়ারের সেরা সময়টা তিনি উপভোগ করেন অ্যাতলেতিকোতে। তার অধীনে ঘরোয়া ডাবল জিতেছিল দলটি। ১৯৯৫-৯৬ মৌসুমে ঘরে তুলেছিল লা লিগা ও কোপা দেল রের শিরোপা।

১৯৯১-৯২ মৌসুমে স্পেনের সবচেয়ে সফল ক্লাব রিয়ালের ম্যানেজারের দায়িত্ব পালন করেন আন্তিচ। এর প্রায় এক যুগ পর ২০০৩ সালে বার্সেলোনার ম্যানেজার হিসেবে ন্যু ক্যাম্পের ডাগআউটে দাঁড়িয়েছিলেন তিনি। এর মাধ্যমে রেকর্ড বইতে নাম ওঠে তার। রিয়াল ও বার্সা- স্প্যানিশ ফুটবলের দুই চিরপ্রতিদ্বন্দ্বীকে কোচিং করানো দ্বিতীয় ও সবশেষ ম্যানেজার আন্তিচ। তার আগে এই কীর্তি গড়তে পেরেছেন কেবল উরুগুয়ের এনরিকো ফার্নান্দেজ ভিয়োলা।

কোচিং করানোর আগে দীর্ঘ ১৭ বছর পেশাদার ফুটবল খেলেছিলেন আন্তিচ। সার্বিয়ার অন্যতম সেরা ক্লাব পার্টিজান বেলগ্রেডের পাশাপাশি ডিফেন্ডার হিসেবে তিনি প্রতিনিধিত্ব করেন স্প্যানিশ ক্লাব রিয়াল জারাগোজা ও ইংলিশ ক্লাব লুটন টাউনের। আন্তর্জাতিক পর্যায়ে সাবেক যুগোস্লাভিয়ার হয়ে ১৯৭৩ সালে একটি ম্যাচে মাঠে নেমেছিলেন তিনি।

পূর্বপশ্চিমবিডি/জেআর

মেসি,ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদো
মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
close