• রোববার, ০৫ এপ্রিল ২০২০, ২২ চৈত্র ১৪২৬
  • ||

যখন শত কোটি টাকার ক্ষতিও অর্থহীন

প্রকাশ:  ২৪ মার্চ ২০২০, ২২:০১
স্পোর্টস ডেস্ক
মুম্বাই ইন্ডিয়ানসের মালিক নীতা আম্বানি। ফাইল ছবি

প্রাণঘাতী করোনাভাইরাস থাবা বসিয়েছে ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগ আইপিএলেও। আগামী ১৫ এপ্রিল পর্যন্ত পেছানো হয়েছে বিশ্বের অন্যতম জনপ্রিয় এই টি-টোয়েন্টি ফ্র্যাঞ্চাইজি লিগটি। গুঞ্জন শোনা যাচ্ছে কয়েক দিন ধরেই করোনার মহামারির কারণে এ বছর আইপিএল বাতিল হতে পারে। ফ্র্যাঞ্চাইজি দলগুলোও আইপিএল বাতিলের প্রস্তুতি নিয়ে রেখেছে। এমনকি আশাবাদী নয় ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ডও(বিসিসিআই) ।

আইপিএলে এ বছরের সংস্করণের ভবিষ্যৎ নিয়ে মঙ্গলবার টেলিকনফারেন্সে বসেছিল ফ্র্যাঞ্চাইজি দলগুলো। আপাতত এ টুর্নামেন্ট মাঠে গড়ানোর কোনো সম্ভাবনা নেই, জানিয়েছে সংবাদমাধ্যম।

একটি ফ্র্যাঞ্চাইজির অফিশিয়াল ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেসকে বলেন, ‘বর্তমান অবস্থার প্রেক্ষিতে মনে হচ্ছে আইপিএল এ বছর নাও হতে পারে। এমন হওয়ার শঙ্কাই বেশি।’ আইপিএল বাতিল হলে ২০০০ কোটি রুপিরও বেশি রাজস্ব হারাবে ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ড (বিসিসিআই)। ১০০ কোটি রুপি করে হারাবে প্রতিটি ফ্র্যাঞ্চাইজি দল। কোনো ক্ষতিপূরণ পাবে না তারা।

সেই অফিশিয়াল এ নিয়ে বলেন, ‘ফ্র্যাঞ্চাইজি কোনো ক্ষতিপূরণ পাবে না। (বাতিল হলে) টাকা কোথাও যাবে না। তাই ক্ষতিপূরণের প্রশ্ন ওঠার সুযোগ নেই।’ আইপিএলের বিধিতে দৈব-দুর্ঘটনায় বাতিল হওয়া নিয়ে নাকি কোনো ধারা নেই, এমনটি উল্লেখ করে একমত হয়েছেন একটি ফ্র্যাঞ্চাইজি দলের প্রধান নির্বাহী। বিসিসিআই এখন আপাতত আইপিএল নিয়ে ভাবছে না। বিসিসিআইয়ের এক বড় কর্মকর্তা বলেছেন, ‘ভবিষ্যৎ নিশ্চিত না। জানি না ভ্রমণে বাধ্যবাধকতা বা ভিসা নিষেধাজ্ঞা কবে উঠবে। কেউ জানে না সবকিছু কবে ঠিক হবে। ততক্ষণ পর্যন্ত এসব অর্থহীন (আইপিএল নিয়ে পরিকল্পনা)।’

বিসিসিআইয়ের সেই কর্মকর্তা আরও ব্যাখ্যাও করলেন, ‘ধরুন এখানে (ভারত) সব ঠিক হয়ে গেল। কিন্তু অন্য কোথাও ঠিক হলো না...আমরা ঠিক নিশ্চিত নই। জাপান, অলিম্পিকের আয়োজক দেশ, ওটাও পিছিয়ে গেছে। এই মহামারি খেলা কিংবা আইপিএলের চেয়েও অনেক বড়।’

মহামারি করোনাভাইরাসে এ পর্যন্ত আক্রান্ত হয়েছে বিশ্বের ১৬৮টি দেশ। প্রায় ৩ লাখ ৮০ হাজারের মতো মানুষ সংক্রমিত হয়েছে। মৃতের সংখ্যা ১৬ হাজারের বেশি। প্রায় গোটা বিশ্বেই সব ধরনের খেলাধুলা থেমে গেছে।

আইপিএল মাঠে গড়াতে অনির্দিষ্টকাল পর্যন্ত অপেক্ষার সুযোগ নেই। জুনের প্রথম সপ্তাহের পর এ টুর্নামেন্টের জন্য আর ফাঁকা সূচি নেই। এশিয়া কাপে অংশ না নিয়ে সেপ্টেম্বরে আইপিএল শুরু করার বিষয়েও খুব আত্মবিশ্বাস দেখাতে পারলেন না বিসিসিআই অফিশিয়াল, ‘এ মুহূর্তে কোনো কিছু ভাবার সুযোগ নেই। এটা (করোনা মহামারি) থামলেই কেবল চেষ্টা করা যাবে।’

উল্লেখ্য, এ মাসের ২৯ তারিখ থেকে আইপিএল শুরু হওয়ার কথা ছিল।করোনার কারণে ক্রীড়াজগতের বেশ কয়েকটি বড় টুর্নামেন্ট স্থগিত করা দেওয়া হয়েছে।

পূর্বপশ্চিমবিডি/জিএম

আইপিএল,বিসিসিআই,ক্রীড়াজগতে,মুম্বাই ইন্ডিয়ানস
মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
close