• শনিবার, ১৮ জানুয়ারি ২০২০, ৫ মাঘ ১৪২৭
  • ||

মিঠুনের ঝড়ো ব্যাটিংয়ে সিলেটের সংগ্রহ ১৬২ 

প্রকাশ:  ১১ ডিসেম্বর ২০১৯, ১৫:০৪ | আপডেট : ১১ ডিসেম্বর ২০১৯, ১৫:১৭
স্পোর্টস ডেস্ক

বঙ্গবন্ধু বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগ (বিপিএল) এর উদ্বোধনী ম্যাচে মোহাম্মদ মিঠুনের ৮৪ রানের ঝড়ো ব্যাটিংয়ের উপর ভর করে চট্টগ্রাম চ্যালেঞ্জার্সের সামনে ১৬৩ রানের লক্ষ্য দাঁড় করিয়ে দিয়েছে সিলেট থান্ডার। নির্ধারিত ২০ ওভারে ৪ উইকেট হারিয়ে ১৬২ রান স্কোরবোর্ডে জমা করে দলটি।

এর আগে বুধবার (১১ ডিসেম্বর) মিরপুর শেরে-এ বাংলা ক্রিকেট স্টেডিয়ামে সিলেটের বিপক্ষে আগে ফিল্ডিং করার সিদ্ধান্ত নেন চট্টগ্রামের ভারপ্রাপ্ত অধিনায়ক রায়াদ এমরিত। ইনজুরির কারণে এ ম্যাচে নেই চট্টগ্রাম চ্যালেঞ্জার্সের অধিনায়ক মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ।

প্রথমে ব্যাট করতে নেমে শুরুটা ভালো হয়নি সিলেটের। সূচনালগ্নেই ফিরে যান রনি তালুকদার। উইকেটের পেছনে নুরুল হাসানের গ্লাভসবন্দি করে তাকে ফেরান রুবেল হোসেন। এ নিয়ে বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগের বিশেষ আসর বঙ্গবন্ধু বিপিএলে প্রথম উইকেটশিকারী হন তিনি।

রনি ফিরলেও দারুণ খেলতে থাকেন অপর ওপেনার জনসন চার্লস। মোহাম্মদ মিঠুনের কাছ থেকে পান যোগ্য সহযোদ্ধার সঙ্গ। তাতে রীতিমতো চোখ রাঙান তিনি। তবে বেশিদূর যেতে পারেননি ক্যারিবীয় ব্যাটার। তার চোখরাঙানি থামান নাসুম আহমেদ। ফেরার আগে ২৩ বলে ৭ চারে ঝড়ো ৩৫ রান করেন চার্লস।

সেই রেশ না কাটতেই এমরিতের শিকার হয়ে ফেরেন জীবন মেন্ডিস। ফলে সিলেটের রানের চাকা স্লো হয়ে যায়। ১০ ওভার হয়ে গেলেও ছক্কার দেখা মেলেনি। অবশেষ সেই বন্ধ্যাত্ব ঘোচান মোহাম্মদ মিঠুন। ১০.৫ ওভারে মুক্তার আলিকে লং অন দিয়ে বিশাল ছক্কা মারেন তিনি। এটিই এবারের বিপিএলের প্রথম ওভার বাউন্ডারি।

এরপরই খোলস ছেড়ে বের হয়ে আসেন মিঠুন। পরে চট্টগ্রাম চ্যালেঞ্জার্স বোলারদের ওপর রীতিমতো তাণ্ডব চালান তিনি। পথিমধ্যে ফিফটি তুলে নেন এ মিডলঅর্ডার ব্যাটসম্যান। এ পথে ৫ ছক্কা হাঁকান তিনি। তবে নেই কোনও চারের মার।

এদিকে মিঠুন যখন মারমুখী ব্যাটিং করছিলেন, তখন বেশ রয়েসয়েই যেন খেলছিলেন অধিনায়ক মোসাদ্দেক। ইনিংসের শেষ ওভারে আউট হওয়ার আগে ১টি করে চার ও ছয়ের মারে ৩৫ বলে ২৯ রান করেন তিনি। শেষপর্যন্ত অপরাজিতই থেকে যান মিঠুন। ক্যারিয়ার সর্বোচ্চ ইনিংসে মাত্র ৪৮ বলে ৪ চার ও ৫ ছয়ের মারে ৮৪ রান করেন তিনি।

চট্টগ্রামের পক্ষে বল হাতে ২৭ রান খরচায় ২ উইকেট নেন রুবেল হোসেন। এছাড়া নাসুম আহমেদ ও রায়াদ এমরিটের ঝুলিতে যায় ১টি করে উইকেট।

পূর্বপশ্চিমবিডি/অ-ভি

বিপিএল,বঙ্গবন্ধু,চট্টগ্রাম চ্যালেঞ্জার্স,সিলেট থান্ডার,মিঠুন
মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত