• বৃহস্পতিবার, ০৯ এপ্রিল ২০২০, ২৬ চৈত্র ১৪২৬
  • ||

‘ভালোই খেলেন’ সৃজিত

প্রকাশ:  ০৮ ডিসেম্বর ২০১৯, ১০:৪৯ | আপডেট : ০৮ ডিসেম্বর ২০১৯, ১৩:১৩
ক্রীড়া প্রতিবেদক
ফাইল ছবি: ইডেনে সৌরভের সঙ্গে সৃজিতের সেলফি।

সিনেমার মানুষ, এ জগতের ভেতর-বাহির বেশ ভালো করেই চেনা তার। তাই বলে খেলাধুলা পছন্দ করেন না, তা কিন্তু নয়। সময় পেলেই ছুটে যান স্টেডিয়ামে।

ফুটবলের চেয়ে ক্রিকেটাই সৃজিতের ফেভারিট। ক’দিন আগেও ইডেনে যান ব্যাট-বলের লড়াই উপভোগ করতে। সেখানেই আবার দেখা হয়ে যায় নিজের প্রিয় তারকা সৌরভ গাঙ্গুলির সঙ্গে।

এই সুযোগ মিস করেননি। ভারতীয় কিংবদন্তির সঙ্গে সেলফি তুলে টুইটারে টুইটও করেন। বহুদিন পর ‘দাদা’র দেখা পাওয়া, রোমাঞ্চিত না হয়ে পারেন সৃজিত। তবে এও সত্য সিনেমার পাশাপাশি খেলাধুলাও কম বোঝেন না। ছোটবেলায় পাড়ার বন্ধুদের নিয়ে অনেক ম্যাচই খেলেছেন। এখনো সেই অভ্যাসটা যায়নি তার। এককথায় ভালোই খেলেন সৃজিত!

বিনোদন জগতের আলোচিত নাম এখন সৃজিত-মিথিলা। সম্প্রতি বিয়ের কাজটাও সেরে নিয়েছেন তারা। গত শুক্রবার (৬ ডিসেম্বর) সন্ধ্যায় দক্ষিণ কলকাতায় সৃজিত মুখার্জির বাসায় তাদের বিয়ে রেজিস্ট্রি করা হয়। ঘরোয়াভাবে আয়োজিত এই অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন মিথিলার বাবা-মা, ভাইবোন এবং সৃজিতের পরিবারের মানুষজন।

এর আগে জনপ্রিয় সংগীতশিল্পী তাহসানের সঙ্গে মিথিলার বিয়ে হয় ২০০৬ সালে। এরপর তাদের বিবাহবিচ্ছেদ হয় ২০১৭ সালের জুলাই মাসে। তাদের একমাত্র সন্তান আইরা এখন মিথিলার কাছেই আছে।

উল্লেখ্য, সৃজিত, একজন ভারতীয় চলচ্চিত্র পরিচালক, অভিনেতা, চিত্রনাট্যকার, অর্থনীতিবিদ। ২০১০ সালে প্রথম চলচ্চিত্র অটোগ্রাফ পরিচালনার পরপরই তিনি আলোচনায় আসেন। ছবিটি বাণিজ্যিকভাবে সফল হয় এবং সমালোচকদের দ্বারা প্রশংসিত হয়।

৬১তম জাতীয় চলচ্চিত্র পুরষ্কারে তার পরিচালিত ‘জাতিস্মর’ ছবিটি চারটি পুরষ্কার জিতে নেয়। ৬২তম জাতীয় চলচ্চিত্র পুরষ্কার অনুষ্ঠানে তার পরিচালিত চতুষ্কোণ সিনেমাটির জন্য তিনি সেরা পরিচালক এবং সেরা চিত্রনাট্য বিভাগে পুরষ্কার জিতে নেন। তার পরিচালিত রাজকাহিনী চলচ্চিত্রটি হিন্দিতে বেগম জান শিরোনামে পুনঃনির্মিত হয়েছে যার নাম ভূমিকায় অভিনয় করেছেন বিদ্যা বালান। তার নির্মাণাধীন চলচ্চিত্র কাকাবাবুর প্রত্যাবর্তন।

প্রেসিডেন্সী কলেজ থেকে অর্থনীতিতে স্নাতক পাশ করেন সৃজিত। পরবর্তীতে তিনি জহরলাল নেহেরু বিশ্ববিদ্যালয় থেকে অর্থনীতিতে এম.ফিল এবং পিএইচডি শেষ করেন। তার বাবা সমরেশ মুখোপাধ্যায় একজন স্থাপত্যবিদ্যার অবসর প্রাপ্ত শিক্ষক। তিনি ছিলেন একাধারে কবি, শিক্ষক, চিত্রশিল্পী। তার মা এনটমি বিভাগের একজন শিক্ষক।


পূর্বপশ্চিমবিডি/জেআর

ভালোই খেলেন সৃজিত,মিথিলা,সৃজিত
মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
close